ভার্চুয়াল রিয়েলিটি-তে নির্বাচনী প্রচার! ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্ণর হতে চান ২২ বছরের শুভম

  • Written By: Amartya Lahiri
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া প্রদেশের গভর্ণর নির্বাচনে লড়ছেন ২২ বছরের ভারতীয়-আমেরিকান যুবক শুভম গোয়েল। আইটি পেশায় যুক্ত শুভম নবতম প্রযুক্তি ভার্চুয়াল রিয়েলিটিকে নির্বাচনী প্রচারে কাজে লাগাচ্ছেন। শুধু এজন্যই নয়, আরও বিভিন্ন কারণেই তাঁকে ঘিরে আকর্ষণ তৈরি হয়েছে মার্কিন মুলুকে।

    ভার্চুয়াল রিয়েলিটি-তে নির্বাচনী প্রচার!

    শুভমকে এখন প্রা.য়ই দেখা যাচ্ছে ক্যালিফোর্ণিয়ার রাস্তায়। হাতে একটি মেগাফন নিয়ে তাতেই প্রচার চালাচ্ছেন নিজের হয়ে। পথ চলতি মানুষকে ডেকে ডেকে বোঝাচ্ছেন কেন তিনিই উপযুক্ত প্রার্থী। এই তরুণের উৎসাহ দেখে তাঁর কথা মন দিয়ে শুনছেনও ক্যালিফোর্ণিয়ার মানুষ। তবে সবচেয়ে সাড়া জাগিয়েছে ভার্চুয়াল রিয়েলিটিতে তাঁর প্রচার।

    আমেরিকা কেন বিশ্বের কোথাওই বোধহয় আর কোনও ভোট প্রার্থী এই প্রযুক্তিতে প্রচারে ব্যবহার করেননি। আসলে তিনি নিজে একজন প্রযুক্তি-পাগল মানুষ। তাঁর জন্ম, বেড়ে ওঠা সবই আমরিকার ক্যালিফোর্ণিয়াতে হলেও তাঁর আদি বাড়ি উত্তরপ্রদেশে। তাঁর বাবা-মা'ও আইটি পেশাতেই আছেন। তাঁর মা করুণা গোয়েলের বাড়ি মীরাটে। বাবা বিপুল গোয়েল লক্ষ্ণৌয়ের মানুষ। উত্তরপ্রদেশ থেকে কাজের সূত্রেই তাঁরা আমেরিকায় এসেছিলেন। বিপুল গোয়েলের এখন নিজেরই একটি সফটওয়্যার সংস্থা রয়েছে।

    বাবার সংস্থায় অবশ্য যোগ দেয়নি শুভম। আইটি নিয়ে পড়াশোনাও সে করেনি। তাঁর পড়াশোনা অর্থনীতি ও সিনেমা নিয়ে। তবে এখন একটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি সংস্থাতেই চাকরি করেন। তাঁর বিশ্বাস ভারচুয়াল রিয়েলিটি গোটা পৃথিবীটাকেই একদিন বদলে দেবে। বদলে দেবে এখনকার প্রচলিত পড়াশোনার ধরণধারণ। শিক্ষার খরচও অনেক কমে যাবে ভার্চুয়াল রিয়েলিটির হাত ধরে। তাই শুধু প্রচারের সময় এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভোটারদের সঙ্গে আদান প্রদানই নয়, তাঁর নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতেও একটা বড় জায়গা দখল করে আছে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি।

    প্রচার পর্বে ভার্চুয়াল রিয়েলিটির মাধ্যমেই তাঁকে এক ভোটার প্রশ্ন করেছিলেন নির্বাচনে জিতলে তিনি কি প্রশাসনিক পদক্ষেপ নেবেন? শুভম প্রথমেই জানিয়েছেন তাঁর প্রিয় প্রযুক্তির কথা। তিনি জানান, তিনি পাবলিক এডুকেশন সিস্টেমে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি প্রযুক্তিকে ব্যবহার করতে চান। এতে পড়াশোনার খরচ অনেক কমে যাবে।

    প্রযুক্তি নিয়ে মেতে থাকা একজন তরুণ হঠাৎ রাজনীতিতে কেন, এ প্রশ্ন অনেকের মনেই ঘুরছে। শুভম বলছেন, কোনও হঠাৎ খেয়ালে নয়, অনেক ভেবেচিন্তেই তিনি ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্ণর হওয়ার দৌড়ে নাম লিখিয়েছেন। এর আগে তাঁর রাজনীতির সঙ্গে কোনও সংশ্রব ছিল না। কিন্তু তিনি লক্ষ্য করে দেখেছেন, অনেক নতুন নতুন প্রযুক্তি আসছে, যেগুলি বর্তমান পৃথিবীর অনেক সমস্যা দূর করতে পারে। ক্যালফোর্নিয়া এলাকাতেই অনেক এরকম আবিষ্কারক আছেন। যাদের মাথায় দারুন দারুন ভাবনা রয়েছে। কিন্তু রাজনীতি থেকে তাঁরা দূরেই থাকেন। রাজনীতিবিদরাও প্রযুক্তিবিদদের কাছে পৌঁছতে পারেন না। এই ফাঁক ভরাট করাটাই তাঁর মূল লক্ষ্য।

    প্রযুক্তি-রাজনীতির মেলবন্ধন ঘটানো ছাড়াও তিনি স্বাধীন কন্ছের মুখ হতে চান। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দলীয় রাজনীতিতে তিনি ছিলেন না, ভবিষ্যতেও য়াবেন না। নির্দল প্রার্থী হিসেবেই থাকবেন। কারণ দলীয় রাজনীতিতে অনেক দুর্নীতি থাকে। তাতে আগল টানতে চান এই তরুণ।
    নিজের ভারতীয় শিকড়কেও কিন্তু কখনও অস্বীকার করেন না শুভম। তাই এডুকেশন সিস্টেমে ভারচুয়াল রিয়েলিটি প্রযুক্তিকে কাজে লাগানোর পাশাপাশি জিতলে তাঁর অন্যতম লশ্র্য থাকবে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে আমেরিকায় বসবাসকারী ভারতীয় সম্প্রদায়ের মতকে তুলে ধরা। এছাড়াও ক্যালিফোর্নিয়ার আপামর যুব সম্প্রদায়ের সামনেও নিজেকে উদাহরণ হিসেবে পেশ করতে চান এই ভারতীয়-আমেরিকান তরুণ। তাঁদের বার্তা দিতে চান শুধু অর্থ ও খ্যাতির পিছনে না দৌড়ে সমাজ পরিবর্তনের কথাও ভাবা উচিত।

    শুধু ভার্চুয়াল রিয়েলিটি দিয়ে নয়, রাস্তায় মেগাফোন হাতেও প্রচার চালাচ্ছেন। পাশাপাশি চষে বেড়াচ্ছেন সান্টা মোনিকা, সান ফ্রান্সিসকো, ওয়ালনাট ক্রিক, ক্যাম্ব্রিয়ার মতো শহরের বিভিন্ন প্রান্তে। সভা করছেন বিভিন্ন স্কুলেও। তাঁর দাবি আশাতীত সাড়াও মিলছে প্রচারে। গত চার বছর এ প্রদেশের গভর্ণর ছিলেন ডেমোক্র্য়াট নেতা জেরি ব্রাউন। এবার কোনও দলের দিকে না ঝুঁকে ক্যালিফোর্নিয়ার জনগন এই প্রযুক্তি ভক্ত, স্বাধীন মতের সমর্থক ভারতীয়-আমেরিকান তরুন নির্দল প্রার্থীকে বেছে নেয় কিনা সেটাই দেখার।

    English summary
    22-year-old Indian-American Shuvam Goel is running for the governor of the US state of California. He is using virtual reality technology in the campaign.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more