• search

হাফিজ সঈদ পাকিস্তানের জন্য একটি হুমকি: পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    নয়াদিল্লি, ২১ ফেব্রুয়ারি : এই প্রথমবারের জন্য পাকিস্তান মেনে নিল যে জঙ্গি নেতা হাফিজ সঈদ তাদের দেশের পক্ষে সবচেয়ে ক্ষতিকর বিষয়। পাক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী খওয়াজা আসিফ একথা স্বীকার করে নিয়েছেন। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই পাকিস্তানের এক ধর্মীয়স্থানে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার পর থেকেই দেশ জুড়ে সন্ত্রাসবিরোধী উদ্যোগে নেমেছে পাকিস্তান।

    পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছেন, হাফিজ সঈদ সমাজের পক্ষে একটি হুমকি, জাতীয় স্বার্থেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভারতের তরফে, পাকিস্তানে সঈদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টিকে স্বাগত জানানোর পরই এই মন্তব্য উঠে আসে পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দিক থেকে।

    হাফিজ সঈদ পাকিস্তানের জন্য একটি হুমকি: পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী

    এর আগে ভারতের তরফে জানানো হয়, জঙ্গি সংগঠন জামাত-উদ -দাওয়া প্রধান হাফিজের বিরুদ্ধে জঙ্গি দমন মূলক নীতি নিয়ে তাকে আইনে আওতায় হচ্ছে, যার সুফল আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দেখা যাবে। হাফিজ সঈদ ভারতে বার বার নাশকতা ঘটিয়েছে। এই জঙ্গি নেতার বিরুদ্ধে ভারতের লড়াইয়েও পাকিস্তানের এই পদক্ষেপ প্রভাব ফেলবে বলে আশা প্রকাশ করা হয় ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফে।

    কয়েক সপ্তাহ ধরে জঙ্গি দমনে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নিতে দেখা গিয়েছে পাকিস্তানকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাপে পড়ে হাফিজ সঈদকে গৃহবন্দি করা থেকে শুরু করে, বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর এই জঙ্গি নেতার বিরুদ্ধে পাকিস্তানের সন্ত্রাস বিরোধী আইনে ব্যবস্থা নেওয়ার উদ্যোগ দেখা গিয়েছে পাকিস্তানে। এর আগে ২৬/১১ মুম্বই হামলার মূলচক্রী হাফিজকে এতদিন ধরে দেশে আশ্রয় দিয়ে যাচ্ছিল পাকিস্তান। তবে এরপর হাফিজকে নিয়ে পাকিস্তান কী পদক্ষেপ নেয়, তার দিকে তাকিয়ে ভারত।

    English summary
    The Pakistan government appears to have acknowledged for the first time that 26/11 mastermind Hafiz Saeed, who has been placed under house arrest by Pakistan and listed under an anti-terrorism law, was a threat to the country. Pakistan media quoted the country's defence minister Khawaja Asif as saying that Saeed could "pose a serious threat to society and has been arrested in the larger national interest".

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more