• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মোদীর ভারতের হামলার ভয় তাড়া করছিল ইমরানকে! অভিনন্দনকে নিয়ে পাকিস্তান সংসদে স্বীকারোক্তি সাংসদের

সামনে যতই তেড়ে ফুঁড়ে উঠুক না কেন, পাকিস্তান (pakistan) বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারতকে ভয় পায়। এই কথাই পাকিস্তান সংসদে স্বীকার করে নিলেন সেখানকার এক সাংসদ। বুধবার প্রসঙ্গ টেনে সেই সাংসদ দাবি করেন, ভারতের হামলার ভয়ে ভীত হয়েই ইমরান খানের (imran khan) সরকার তড়িঘড়ি ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমান (Abhinandan Varthaman)কে মুক্তি দিয়েছিল।

 পাক সাংসদের স্বীকারোক্তি

পাক সাংসদের স্বীকারোক্তি

ভারতের সামরিক শক্তিকে ভয় পায় পাকিস্তান। এই কথাই স্বীকার করে নিলেন পাকিস্তানের সাংসদ। পাকিস্তানের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে পাকিস্তান মুসলিম লিগ এন-এর নেতা আওয়াজ সাদিক দাবি করেন, ভারতের ভয়ে ভীত হয়েই ইমরান খানের সরকার ভারতীয় বায়ু সেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে তাড়াতাড়ি মুক্তি দিয়েছিলে। প্রসঙ্গত, আকাশে দুই দেশের যুদ্ধ বিমানের লড়াইয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল অভিনন্দনের বিমান। প্যারাশুটে করে নামার সময় তিনি গিয়ে পড়েন পাকিস্তানের সীমানায়। সেখানে তাঁকে গ্রেফতার করে পাকিস্তানের সেনা।

নিশানায় পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী

নিশানায় পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী

বুধবার পাকিস্তান মুসলিম লিগ এন-এর নেতা আওয়াজ সাদিকের নিশানায় ছিলেন ছিলেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শা মহম্মদ কুরেশি। তিনি দাবি করেন, ওই দিন গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শা মহম্মদ কুরেশি বলেছিলেন, পাকিস্তান যদি অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি না দেয়, তাহলে ভারত পাকিস্তানকে আক্রমণ করবে। আর তা হবে ওইদিন রাত নটার মধ্যে। পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমে এমনই তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে অভিনন্দনের মুক্তিতে সওয়াল

গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে অভিনন্দনের মুক্তিতে সওয়াল

পিএমএল-এন নেতা বলেছেন, কুরেশি সেই সময় সংসদের অন্য দলগুলির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। তালিকায় ছিল পিপিপি, পিএমএল-এন। বৈঠকে ছিলেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল ওমর জাভেদ বাজওয়া। সেই বৈঠকেই অভিনন্দনের মুক্তিতে সওয়াল করেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী।

পা কাঁপছিল সেনা প্রধানের

পা কাঁপছিল সেনা প্রধানের

পিএমএল-এন নেতা সংসদে বলেছেন, বিদেশমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠক করতে চাইলেও তাতে অংশ নেননি তিনি। তবে ছিলেন সেনাপ্রধান। তাঁর পা কাঁপছিল। তিনি ঘর্মাক্ত ছিলেন। সেই সভায় বিদেশমন্ত্রী বলেছিল অভিনন্দনকে যেতে দেওয়া হোক। কেননা ভারত পাকিস্তানের ওপর হামলার পরিস্থিতি তৈরি করেছে।

বিরোধীরা আর সরকারকে সমর্থন করবে না

বিরোধীরা আর সরকারকে সমর্থন করবে না

পিএমএল-এন নেতা সাদিক সংসদে বলেছেন, অভিনন্দন সহ পাকিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে বিরোধীরা সরকারকে সমর্থন করেছে। কিন্তু তারা আর তা করবেন না।

১ মার্চ, ২০১৯ অভিনন্দনের মুক্তি

১ মার্চ, ২০১৯ অভিনন্দনের মুক্তি

ভারতের সীমায় ঢুকে পড়ায় পাকিস্তানের এফ-১৬ বিমানের সঙ্গে আকাশেই লড়াই শুরু করেছিলেন অভিনন্দন বর্তমান। কিন্তু অভিনন্দনের বিমান গিয়ে পড়ে পাকিস্তানের দিকে। প্যারাসুটে করে জীবন রক্ষা হয় অভিনন্দনের। এরপর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ১ মার্চ আটারি-ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে অভিনন্দনকে ভারতের হাতে তুলে দেয় পাকিস্তান।

পা কাঁপছিল পাক সেনা প্রধানের, ভয়ে অভিনন্দনকে ছেড়ে দেয় ইমরান!

English summary
Fearing attack from India Imran Khan Govt abruptly released Abhinandan Varthaman, says Pak MP
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X