• search

তুষার ধসে আফগানিস্তানে মৃত শতাধিক, ধ্বংস হয়েছে ২টি গ্রাম

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    কাবুল, ফেব্রুয়ারি ৬: আফগানিস্তানে তুষার ধসে এখনও পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা শতাধিক। এর মধ্যে একটি গ্রামেই মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৫০ জনের। খারাপ আবহাওয়া এবং উদ্ধারকার্যে সমস্যার ফলে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে।

    গত ৩ দিন ধরে চূড়ান্ত তুষার পাতের পরই নামে তুষার ধস। যার ফলে তছনছ হয়ে গেছে বহু বাড়ি। মধ্য ও উত্তরপূর্বের প্রভিন্স গুলিতে রাস্তাঘাট ধসের নিচে চাপা পড়ে রয়েছে। বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে সড়ক যোগাযোগ। ফলে সময়মতো ঘটনাস্থলে পৌঁছতে পারছেনা উদ্ধারকারী দল। তাঁরা দুর্গম অঞ্চলগুলিতে যেতে পারছেন না।

    তুষার ধসে আফগানিস্তানে মৃত শতাধিক, ধ্বংস হয়েছে ২টি গ্রাম

    আফগানিস্তানের প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলা মন্ত্রকের মুখপাত্র মহম্মদ ওমর মহম্মদী জানিয়েছেন, নুরিস্তান প্রদেশে সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তুষারধসের ফলে আফগানিস্তানের বার্গমাতাল জেলায় দুটি গ্রাম সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। একটি গ্রাম থেকে ৫০ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। অপর গ্রামটিতে এখনও পৌঁছতে পারেননি উদ্ধারকারীরা।

    আফগানিস্তানের বাদশাখান প্রভিন্সে ,মারা গেছেন ১৮ জন। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন ৩ মহিলা ও ২ জন শিশু। শুধুমাত্র মধ্য ও উত্তর আফগানিস্তানে তুষারধসে ৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। ধ্বংস হয়েছে ১৬৮টি বাড়ি । কয়েকশো পশুরও মৃত্যু হয়েছে। ভারী তুষারপাতের ফলে বহু মানুষ আটকে রয়েছেন দেশের বহু জায়গায় । রাস্তা সারিয়ে দুর্গম অঞ্চলগুলি থেকে মানুষজনকে উদ্ধার করার চেষ্টা চলছে।

    প্রসঙ্গত, আফগানিস্তানে তুষার ধস লেগেই থাকে, কিন্তু সঠিক পরিকাঠামোর অভাবে উদ্ধারকার্য অনেক সময়ই সম্ভব হয়ে ওঠেনা বলে সূত্রের দাবি। এবারেও উপযুক্ত উদ্ধারকারী যন্ত্রের অভাবে বাঁধাপ্রাপ্ত হচ্ছে উদ্ধারের কাজ।

    English summary
    More than a 100 people have been killed in a series of avalanches triggered by days of heavy snowfall around Afghanistan, including 50 in one village, officials said today, warning the death toll could rise still further.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more