• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনা ভাইরাস: কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে ১১২ জনের মৃত্যু

  • By BBC News বাংলা

করোনাভাইরাস নমুনা সংগ্রহ
Getty Images
করোনাভাইরাস নমুনা সংগ্রহ

বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে মোট মারা গেছেন ১১২ জন।

এর আগের তিনদিন ধরেই প্রতিদিন ১০০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মোট ১০ হাজার ৪৯৭ জনের মৃত্যু হলো।

বাংলাদেশে গত তিনদিনের মৃত্যুহার বিবেচনা করলে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে প্রতি ১৫ মিনিটে একজনের মৃত্যু হচ্ছে। এপ্রিল মাসের মৃত্যু হার বিবেচনা করলে, কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে এই মাসে প্রতি ১৮ মিনিটে একজনের মৃত্যু হচ্ছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড শনাক্ত হয়েছেন ৪,২৭১ জন আর বাংলাদেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা ৭ লাখ ২৩ হাজার ২২১ জন।

২৪,১৫২টি নমুনা পরীক্ষা করে এসব তথ্য জানা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৬,৩৬৪ জন আর মোট সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ২১ হাজার ৩০০ জন।

প্রতি ১০০টি নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৭.৬৮ শতাংশ।

শনিবারই বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটি।

''মহামারি সর্বোচ্চ মাত্রার সংক্রমণের দিকে এগোচ্ছে'' বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান সতর্কবাণী উচ্চারণের পরদিনই বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর এই পরিসংখ্যান জানা গেল।

শুক্রবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ড. টেড্রস অ্যাডহানম গেব্রেইয়েসুস বলেন, ''নতুন শনাক্ত আর মৃত্যুর সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েই চলেছে। বিশ্বজুড়ে প্রতি সপ্তাহে নতুন শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা গত দুইমাসে দ্বিগুণ হয়ে গেছে।''

Banner image reading more about coronavirus
BBC
Banner image reading more about coronavirus

কাদের মাস্ক ব্যবহার করতে হবে আর কাদের জন্য জরুরি নয়

করোনাভাইরাস: বাজার থেকে কেনা খাবার কতটা নিরাপদ?

করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি মারা গেলে লাশ দাফনে ঝুঁকি আছে?

টাকার মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে কি?

কোথায় কতোক্ষণ বেঁচে থাকে কোভিড-১৯ এর জীবাণু, নির্মূলের উপায়

বাংলাদেশে ফুসফুসের অসুখের যেসব মূল কারণ, যেভাবে সুস্থ রাখবেন

Banner
BBC
Banner

বাংলাদেশে বেশ কিছুদিন যাবত করোনাভাইরাসে মৃত্যু এবং শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে চলছে।

গত বছরের মার্চের ৮ তারিখে দেশটিতে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে কাউকে শনাক্ত করার তথ্য দিয়েছিল স্বাস্থ্য বিভাগ।

এরপরের দুই মাস দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা তিন অংকের মধ্যে থাকলেও সেটা বাড়তে বাড়তে জুলাই মাসে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায়।

এরপর বেশ কিছুদিন দৈনিক শনাক্তের সংখ্যা কমতে কমতে এক পর্যায়ে তিনশ'র ঘরে নেমে এসেছিল।

তবে এ বছর মার্চের শুরু থেকেই শনাক্তের ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। একই সাথে বাড়তে থাকে মৃত্যুর সংখ্যাও।

যদিও গত কয়েকদিনে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা কমে এসেছে।

চিকিৎসক এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, হাসপাতালগুলোর ওপর যে হারে চাপ বাড়ছে, তাতে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা সেবা ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছে।

বিবিসি বাংলার অন্যান্য খবর:

লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত, শিগগিরই আসছে প্রজ্ঞাপন

মহীসোপানে বাংলাদেশের যে দাবিতে ভারতের আপত্তি

ডাক্তার ও পুলিশের বিতণ্ডার ভাইরাল ভিডিও নিয়ে যা জানা যাচ্ছে

হেফাজত নেতা মামুনুল হক সাত দিনের রিমাণ্ডে

BBC

English summary
Corona virus: 112 people died in Bangladesh due to Covid-19 infection
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X