• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মার্কিন নাগরিকদের ট্রাম্পের পক্ষে ভোট না দেওয়ার আবেদন জানাল কানাডার সংবাদপত্র

  • By SHUBHAM GHOSH
  • |

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আর মাত্র পাঁচ দিন বাকি। অন্তিম লগ্নে এবারের নির্বাচনের দুই প্রতিপক্ষ - ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং হিলারি ক্লিন্টনের মধ্যে রেষারেষি চরমে পৌঁছেছে। হিলারির ইমেল সংক্রান্ত বিতর্ক নিয়ে এফবিআই প্রধানের পুনর্বিবেচনার মন্তব্য শেষ মুহূর্তে ট্রাম্পকে লড়াইতে ফিরিয়ে এনেছে। আর ব্যবধান যত কমেছে, ততই মারমূখী অবস্থান নিয়েছে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী।

তবে নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক না কেন, ট্রাম্প যদি বারাক ওবামার উত্তরসূরী হিসেবে হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করেন, তাহলে তা বিশ্বের সবচেয়ে শ্রদ্ধেয় গণতন্ত্রের পক্ষে খুব একটা সুখকর অভিজ্ঞতা হবে না বলে জানিয়েছে কানাডার 'দ্য গ্লোব অ্যান্ড মেল' নামক সংবাদপত্র।

ট্রাম্পকে ভোট দেবেন না, মার্কিনিদের আবেদন কানাডা সংবাদপত্রের

গত বুধবার (নভেম্বর ২) টরন্টোতে অবস্থিত সংবাদপত্রটিতে "ডিয়ার আমেরিকা: প্লিজ ডোন্ট ভোট ফর ডোনাল্ড ট্রাম্প" শীর্ষক একটি সম্পাদকীয় প্রকাশিত হয় যাতে বলা হয়েছে যে ক্লিন্টন এবং ট্রাম্পের মধ্যে যোগ্যতর প্রার্থীকে নির্বাচিত করার কাজটি অনেকে কঠিন বললেও তাঁরা তা মনে করেন না।

আমেরিকার জনগণের কাছে আবেদন জানিয়ে সম্পাদকীয়টি বলে যদি তাঁরা রাশিয়া বা চিনের নেতৃত্বকে খুশি করতে চান, তাহলে তাঁরা ট্রাম্পকেই জেতান। কিন্তু তাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক মিত্রদের মনের ভয় বিন্দুমাত্র কমবে না।

কানাডিয়ান সংবাদপত্রটিতে বলা হয়: "গত সত্তর বছর ধরে আমরা আমেরিকাকে দেখে এসেছি নেতৃত্ব এবং স্থিতিশীলতার প্রতীক হিসেবে। আমেরিকা যে সবসময় ঠিক করেছে এমন নয় কিন্তু বিশ্বের ইতিহাসে আমেরিকার ইতিবাচক ভূমিকার কথা অস্বীকার করা যায় না।

"দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের পর আমেরিকাই গণতন্ত্রকে বাঁচিয়েছিল, ইউরোপ এবং জাপানকে পুনর্প্রতিষ্ঠা দিতে সাহায্য করেছিল। স্বাধীনতা, গণতন্ত্র, আইন, বাণিজ্য - ইত্যাদি নানা বিষয়ের উপরে ভর করে একটি আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা তৈরি করাতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে এই আমেরিকাই। তাই, আমেরিকা তুমি সবসময়ই মহান। নতুন করে তোমাকে আর মহান হওয়ার নেই (ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারের মূলমন্ত্র: আমেরিকাকে ফের মহান করতে হবে)। তুমি আজও আন্তর্জাতিক ব্যবস্থায় অপরিহার্য একটি দেশ। তোমার বিকল্প কেউ নেই।"

"ইউরোপ তোমার বিকল্প হতে পারবে না আর রাশিয়া বা চিন হতে চাইলেও স্বাধীনতা এবং গণতন্ত্রে বিশ্বাসী যেই পৃথিবী, তা তাদের সমর্থন করবে না। অতএব তোমার বিকল্প স্বয়ং তুমিই," বলে সম্পাদকীয়টি।

আর এখানেই ট্রাম্পের সম্ভাব্য রাষ্ট্রপতিত্ব নিয়ে আপত্তি তুলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশী দেশ কানাডার এই সংবাদপত্রটি। তাতে বলা হয়েছে যে পৃথিবীর অন্যান্য ছোটোখাটো দেশের নেতৃত্ব উৎকট আচরণ করলে বিশেষ মাথাব্যথা থাকে না কারও কিন্তু আমেরিকার শীর্ষে যদি এরকম কেউ বসে, তবে তা সারা দুনিয়ার কাছেই উদ্বেগের বিষয়, বিশেষ করে ওয়াশিংটনের মিত্রদের কাছে।

পত্রিকাতে এও বলা হয় যে হিলারি ক্লিন্টন সম্পর্কে যদিও বেশ কিছু গুরুতর অভিযোগ উঠেছে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেওয়ার কিন্তু তা তাঁকে ভোট না দেওয়ার কোনও কারণ হতে পারে না। "বরং, ক্লিন্টনের সংস্থা ক্লিন্টন ফাউন্ডেশন-এর কাছে সরকারি মদতে পৌঁছনোর যে প্রবণতা, তা অনেক বেশি চিন্তার কারণ," বলে সম্পাদকীয়টি।

দ্য 'গ্লোব অ্যান্ড মেল'-এর লেখাটিতে বলা হয় যে হিলারি শিক্ষা, অভিজ্ঞতা এবং মানসিক গঠনের নিরিখে তাঁর প্রতিপক্ষের থেকে রাষ্ট্রপতি হওয়ার জন্য অনেক বেশি যোগ্য। তাতে অবশ্য এও বলা হয় যে রাজনীতিবিদ হিলারিকে অনেক মার্কিনিই পছন্দ করেন না এবং তার সুবিধা ট্রাম্প পেয়েছেন তাঁর অযোগ্যতা সত্ত্বেও।

English summary
Please don't vote for Trump, Canadian newspaper editorial urges US citizens
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X