• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

পাকিস্তানের কাজে সন্তুষ্ট নয় পেন্টাগন, বাইডেনের আমলে কেমন হবে মার্কিন বিদেশ নীতি?

মার্কিন 'ডিফেন্স সেক্রেটারি' পদে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক হিসেবে আসীন হবেন লয়েড অস্টিন। আগামীতে আমেরিকা ও ভারত যে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সন্ত্রাসদমনে অগ্রণী ভূমিকা নেবে, তেমনই ইঙ্গিত মিলেছে অস্টিনের বক্তব্যে। বাইডেনের শপথের আগে অস্টিন এদিন বলেন যে মার্কিন প্রস্তাব অনুযায়ী জঙ্গি সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে পাকিস্তান যে সব পদক্ষেপ নিয়েছে, তা এখনও অসম্পূর্ণ। এখনও দক্ষিণ এশিয়ায় ভারত বিরোধী সংগঠনগুলিকে খতম করতে আরও কাজ করতে হবে ইসলামাবাদকে।

বিদেশে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কৌশল

বিদেশে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কৌশল

বাইডেন মার্কিন সেনাদের বিমানে বোঝাই করে পাঠানোর পরিবর্তে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ বাহিনীকে ব্যবহার করে এবং বিমান হামলার সাহায্যে বিদেশে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কৌশলকে সমর্থন করেন। তিনি দেখতে চান যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গুয়ান্তানামো উপসাগরে আটক করার শিবির বন্ধ করে দিয়েছে। তিনি ২০০৩ সালে ইরাকের আক্রমণ সহ কয়েকটি মার্কিন সামরিক হস্তক্ষেপকে সমর্থন করেছিলেন। কিন্তু তিনি এখন বলছেন যে ওটা ভুল হয়েছিল। বরং তিনি এবার জোট ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানগুলির মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে চাইছেন।

বাইডেন ন্যাটোর সমর্থক

বাইডেন ন্যাটোর সমর্থক

তিনি ন্যাটোর সমর্থক। তিনি সতর্ক করে দিয়েছিলেন যে মস্কো পশ্চিমী গণতন্ত্রের ভিত্তিতে তৈরি ন্যাটোকে দুর্বল করার, ইউরোপীয় ইউনিয়নকে বিভক্ত করার এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী ব্যবস্থাকে দুর্বল করার চেষ্টা করে চলেছে। তিনি আরও অভিযোগ করেছেন যে রাশিয়া পশ্চিমী আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে কয়েক বিলিয়ন ডলার দিয়ে রাজনীতিবিদদের প্রভাবিত করতে ব্যবহার করছে।

প্রশান্ত মহাসাগরে নৌবাহিনীর উপস্থিতি বৃদ্ধি

প্রশান্ত মহাসাগরে নৌবাহিনীর উপস্থিতি বৃদ্ধি

বাইডেন এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরে নৌবাহিনীর উপস্থিতি বৃদ্ধি এবং জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া এবং ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে জোট জোরদার করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি মধ্য প্রাচ্য ও আফগানিস্তানে যুদ্ধ শেষ করতে ট্রাম্পের সঙ্গে সহমত পোষণ করেন। কিন্তু তিনি মনে করেন যে সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচিত একটি ছোট বাহিনী ওই অঞ্চলগুলিতে রাখা উচিত।

ইরান পারমাণবিক চুক্তি নিয়ে কোন পদক্ষেপ?

ইরান পারমাণবিক চুক্তি নিয়ে কোন পদক্ষেপ?

তিনি বলেছেন, ইরান পারমাণবিক চুক্তি এবং প্যারিস জলবায়ু চুক্তির মতো দ্বিপাক্ষিক ও আন্তর্জাতিক চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত ট্রাম্প নেওয়ায়, অন্য দেশ ওয়াশিংটনের কথার উপর সন্দেহ করতে শুরু করেছে। কীভাবে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে, কর্তৃত্ববাদকে ব্যর্থ করতে এবং মানবাধিকারকে সমর্থন করতে হবে, সে বিষয়ে আলোচনা করার জন্য সব গণতান্ত্রিক দেশকে একটি সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানাতে চান বাইডেন।

কিম জং উনের সঙ্গে কেমন সম্পর্ক রাখবেন বাইডেন?

কিম জং উনের সঙ্গে কেমন সম্পর্ক রাখবেন বাইডেন?

ইজরায়েলের কাছে আয়রন ক্ল্যাড সমর্থনের দাবিদার বাইডেন। তিনি সংযুক্তি রোধ করতে চান এবং ইজরায়েল ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যে দীর্ঘ দ্বন্দ্বের ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সমাধানকে সমর্থন করেছেন। তিনি বলেছেন যে ট্রাম্প তেল আভিভ থেকে মার্কিন দূতাবাস যে জেরুজালেমে সরিয়েছিলেন, তিনিও সেটা সেখানেই রাখবেন। বাইডেন কিম জং উনের সঙ্গে ট্রাম্পের কূটনীতির সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, ট্রাম্পের এই একার কূটনীতি উত্তর কোরিয়ার নেতাকে বৈধতা দিয়েছে। আর ট্রাম্প কিমকে পারমাণবিক অস্ত্র ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে রাজি করাতে পারেননি।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ২৩ তারিখ দেখা করবেন শুভেন্দু, শোভন, বৈশাখী, নবাগতদের সাথে বৈঠক

English summary
Biden's Defense Secretary speaks about Pakistan, How is US foreign Policy going to be under Joe Biden
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X