• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লাদাখ সংঘাতের মাঝে চিনকে মাত দিতে মায়ানমারকে ফোকাসে রাখছে ভারত! তৈলশোধনাগার নিয়ে নয়া কূটনীতি

মায়ানমার সফরে পৌঁছেছেন ভারতের সেনা প্রধান মুকুন্দ নরভানে ও বিদেশ সচিব হর্ষ শ্রিঙ্গলা। এই দুই ব্যক্তিত্বের কাঁধে কার্যত মায়ানমার বিজয়ের দায়িত্ব রয়েছে মোদী সরকারের! চিনের সঙ্গে লাদাখ সংঘাতের আবহে মায়ানমারকে নিজের পক্ষে রাখা ভারতের জন্য জরুরি ছিল। কারণ, চিন ক্রমাগত বাংলাদেশ সহ ভারকের একাধিক সীমান্তবর্তী প্রতিবেশী দেশকে নিজের গ্রাসে নেওয়ার চেষ্টা করছে। সেই দিক থেকে ক্রমাগত কূটনৈতিক চালে ভারত চিনকে মাত দিতে সচেষ্ট।

 মায়ানমার, ভারত ও তৈল পরিশোধনাগার

মায়ানমার, ভারত ও তৈল পরিশোধনাগার

মায়ানমারকে ইতিমধ্যেই শক্তিউৎপাদন ক্ষেত্র ও শিল্পের নিরিখে পাখির চোখ করে রেখেছে চিন। মায়ানমারের জ্বালানি সম্পদ সম্পর্কিত প্রকল্পে চিনের বিনিয়োগ কার্যত তাক লাগানোর মতো। আর সেই জায়গা থেকে এবার ভারতও পাল্টা চিনকে মাত দিতে শুরু করেছে নতুন বিনিয়োগ ঘিরে। মায়ানমারে তৈল পরিশোধনাগারের প্রকল্পে ভারত এবার ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে।

 মায়ানমারে ড্রাগন গ্রাস!

মায়ানমারে ড্রাগন গ্রাস!

মায়ানমারের জ্বালানি শক্তি ক্ষেত্রে চিনের প্রায় সবমিলিয়ে মোট ৭০ শতাংশ বিনিয়োগ রয়েছে। এইভাবে বিভিন্ন দেশে চিন বিনিয়োগ করে ব্যবসা যেমন বাড়িয়েছে, তেমনই অন্যদেশের ভূখণ্ডে দাপুট কর্তৃত্বের জায়গা ধরে রেখেছে। চিনের এই চালকে মাত দিতেই ভারত ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রস্তাব দিয়েছে মায়ানমারকে।

কোথায় তৈল পরিশোধনাগারের কথা হচ্ছে?

কোথায় তৈল পরিশোধনাগারের কথা হচ্ছে?

জানা গিয়েছে, মায়নমারের ইয়াঙ্গনের থানলিনে এই তৈল পরিশোধনাগার তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে ভারত। উল্লেখ্য, লাদাখ সংঘাতের আবহে এই প্রস্তাব গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। যেখানে মায়ানমারে খুব কম পরিমাণ তৈল শোধনাগার রয়েছে ,সেখানে এই প্রস্তাব তাৎপর্য পাচ্ছে।

 নিরাপত্তা ও ভারত-মায়ানমার সম্পর্ক

নিরাপত্তা ও ভারত-মায়ানমার সম্পর্ক

চিনের তরফে লাদাখের আবহে রীতিমতো আগ্রাসী মনোভাব দেখা যাচ্ছে। যার পাল্টা হিসাবে ভারতের মায়ানমার কূটনীতি তাৎপর্য পাচ্ছে। উত্তরপূর্বে উলফা থেকে শুরু করে নাগা উগ্রপন্থীদের একাধিক গোষ্ঠী ভারতের সেনার দাপটের চোটে মায়ানমারের দিকে আশ্রয় নিয়েছিল। এদিকে মায়ানমার সেনাও সেখানে প্রবল সংহারের জেরে উগ্রপন্থাকে ঠাঁই দিচ্ছে না। এদিকে, অভিযোগ রয়েছে এই উগ্রপন্থা গোষ্ঠীগুলিকে সায় দিচ্ছে চিন। এমন এক পরিস্থিতিতে এদিন দুই দেশের সেনা পর্যায়ের একটি বৈঠক নিরাপত্তাকে ফোকাসে রেখে এদিন দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা হয়েছে।

ডেমোক্রেসি নয় মমতাক্রেসি, মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে টুইট অধীর চৌধুরীর

শুভেন্দুর নিষ্ক্রিয়তার জন্য দায়ী প্রশান্ত কিশোর! তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়ালেন কর্মীরাই

English summary
Amid Ladakh stand off, India offers Mayanmar 6 billion dollar oil refinery to counter China
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X