• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

৭৬ দিন পর লকডাউন উঠল, উহান শহর ছাড়ছে ৬৫ হাজার জন

করোনা ভাইরাসের আঁতুড়ঘর চিন প্রথম এই মহামারি রোগের ভয়াবহতা বুঝতে পেরেছিল এবং এই দেশেই প্রথম লকডাউন হয়। কিন্তু সংক্রমণ আরও বাড়তে পারে জেনেও দেশের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা খুব তাড়াতাড়ি উঠিয়ে নেওয়া হয়। ২৩ জানুয়ারি চিনের উহান শহর পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এখান থেকেই মারণ ভাইরাস চিন সহ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছিল। ৭৬ দিন পর বুধবার উহান শহর থেকে লকডাউন উঠিয়ে নেওয়া হল।

স্বাভাবিকের পথে উহান

স্বাভাবিকের পথে উহান

এখনও পুরোপুরি স্বাভাবিক নয় এই শহর, নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ১০০০ জন। কিন্তু তাও মূল স্রোতে ফেরার চেষ্টা করছে এই উহান। বুধবার দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে দেখা গেল যাত্রী নিয়ে ছুটছে ট্রেন এবং গুরুত্বপূর্ণ হাইওয়েগুলিও খুলে দেওয়া হয়েছে। উহানে প্রায় ১১ মিলিয়ন বাসিন্দার বসবাস। এই শহরে ভাইরাসের মারাত্মক বাড়বাড়ন্ত দেখে কর্তৃপক্ষের নির্দেশে উহানবাসী ঘরের মধ্যে থাকতে বাধ্য হন। না ছিল কোনও পরিবহন না ছিল কোনও মানুষ, পুলিশ ও জরুরি পরিষেবার কর্মীরা ছাড়া রাস্তাঘাট ছিল জনশূণ্য।

তবুও সাবধান থাকতে হবে উহানকে

তবুও সাবধান থাকতে হবে উহানকে

কিন্তু এই শহরে নতুন করে আক্রান্তের খবর না থাকায় চিন সরকার এই উহান থেকে লকডাউন উঠিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। করোনা ভাইরাস মহামারি শুরু হওয়ার পর এই প্রথমবার মঙ্গলবার জানিয়েছে যে কোভিড-১৯-এ কোনও মৃত্যু নেই। উহানেও গত ১৪দিনে দুজন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। তবে চিনা কর্তৃপক্ষকে এবার আরও সচেতন হতে হবে। কারণ নাগরিকদের চলাচলের স্বাধীনতা ও দ্বিতীয়বার সংক্রমণ হওয়ার তরঙ্গের মধ্যে শুধু সুক্ষ্ম একটি সুতো রয়েছে। চিনের এখন প্রধান উদ্বেগের বিষয় হল যারা সংক্রমণহীন কিন্তু তাও তা অন্যদের মধ্যে ছড়াতে পারে। স্বাস্থ্য আধিকারিকরা এখনও উহানের লোকজনকে একেবারে প্রয়োজন না হলে তাদের আশপাশের শহর এবং প্রদেশ ত্যাগ করতে নিষেধ করছেন। একমাত্র স্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরি প্রয়োজনেই উহানের বাইরে যাওয়ার অনুমতি পাওয়া যাবে।

শহর ছাড়তে শুরু করেছে অনেকে

শহর ছাড়তে শুরু করেছে অনেকে

লিউ শাওমিন বুধবার উহান শহর ছাড়ার আগে জানিয়েছেন যে তিনি ও তাঁর পরিবার এই শহরে ঘুরতে এসেছিলেন নতুন বছর উপলক্ষ্যে এবং পরে তাঁরা এখানেই আটকে পড়েন। তিনি জিয়ানগিয়াং শহরের বাসিন্দা, এতদিন পর বাড়ি ফিরতে পেরে তিনি খুশি। তবে লিউ বলেন, ‘‌আমার মুড ভালো আছে কিন্তু আমি ফিরে যাওয়ার পরও বাড়ির বাইরে বেশি যেতে পারবন না।'‌ প্রসঙ্গত শহরটির ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে প্রায় ৬৫ হাজার মানুষ শহর ছাড়তে শুরু করেছে। চিনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বুধবার থেকে উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে রাস্তা, স্টেশন ও বিমান ব্যবস্থা।

English summary
China sealed off the city of Wuhan on January 23, when it became apparent the deadly Covid-19 virus had started there.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X