• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লাদাখ উত্তেজনার ১০০ দিন! দখলদারির দায় নিজেদের কাঁধ থেকে ঝেড়ে ফেলার চেষ্টা চিনের

  • |

ভারত-চিন সংঘাত ইস্যুতে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ক্রমেই কোণঠাসা হচ্ছে বেজিং। ইতিমধ্যেই লাদাখে চিনা আগ্রাসনের বিরোধীতায় মার্কিন সেনেট একটি প্রস্তাবও পেশ হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। একইসাথে বর্তমানে চিনকে অর্থনৈতিক ভাবে বয়কটের রাস্তাতেও হাঁটছে ভারত। যার জেরে অনেকটাই কোমড় ভেঙেছে শি জিনপিং প্রশাসনের।

চিনা অনুপ্রবেশের ১০০ দিন পার

চিনা অনুপ্রবেশের ১০০ দিন পার

এমতাস্থায় গালওয়ান সেনা সংঘর্ষ নিয়ে ফের সাফাই দেওয়ার চেষ্টা করলেন চিনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং। এদিকে এখন থেকে ঠিক ১০০ দিন আগে মে মাসের শুরু দিকে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় প্রথম নিজেদের মধ্যে বাদানুবাদে জড়ায় পিপলস লিবারেশন আর্মি ও ভারতীয় সেনা। সেই সময়েই লাদাখে এলএসি পেরিয়ে প্রথম চিনা অনুপ্রবেশ তা রক্তক্ষয়ী চেহারা নেয়া ১৫ই জুন। সেদিন দুই ভারতৃচিন সেনা সংঘর্ষে ভারতের তরফে ২০ জন সেনার মৃত্যুর খবর মেলে। মৃতের তালিকায় ছিলেন এক কর্ণেলও।

ভারতের উষ্কানিতেই হয়েছে সেনা সংঘর্ষ, দাবি সান ওয়েডং-র

ভারতের উষ্কানিতেই হয়েছে সেনা সংঘর্ষ, দাবি সান ওয়েডং-র

এদিকে বর্তমানে চিনা দূতাবাসের ম্যাগাজিনে এই প্রসঙ্গে ফের পিঠ বাঁচানোর চেষ্টা করেন সান ওয়েডং। তাকে বলতে শোনা যায়, "ভারতের ও চিনের মধ্যে হওয়া সীমান্ত চুক্তি ভঙ্গ করে ১৫ই জুন প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে ভারতীয় সেনা। ইচ্ছা করে চিনা সেনাদের উস্কানিও দিতে থাকে। কেউ যদি গোটা ঘটনা খুব কাছ থেকে বোজার চেষ্টা করেন তাহলে দেখবেন ভারত কীভাবে আন্তর্জাতিক সম্পর্কের একাধিক মৌলিক নিয়মকে মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন করেছে।"

 ভারতকে হুঁশিয়ারি চিনা রাষ্ট্রদূতের

ভারতকে হুঁশিয়ারি চিনা রাষ্ট্রদূতের

সাফাই পাশাপাশি এই বিষয়ে ভারতের বিরুদ্ধে সুর চড়াতেও দেখা যায় সানকে। একিইসাথে এই ঘটনায় ভারতে যথাযথ তদন্ত করারও দাবি জানা তিনি। সীমান্ত চুক্তি লঙ্ঘনকারীদের জবাবদিহির পক্ষেও জোরালো সওয়াল করতে দেখা যায় তাকে। পাশাপাশি এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি রুখতে আগামীতে যে কোনও ধরণের উষ্কানিমূলক কাজ বন্ধ করতেও ভারতে ‘হুঁশিয়ারি' দেন তিনি।

ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে চিনা কমিউনিস্ট পার্টি

ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে চিনা কমিউনিস্ট পার্টি

এদিকে এখনও প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে অনুপ্রবেশ করে বসে রয়েছে লালফৌজ। সেনা প্রত্যাহার নিয়ে দু-দেশের মধ্যে একাধিক সামরিক পর্যায়ের পর্যায়ের বৈঠকের পরেও কোনও রফাসূত্র মেলেনি। লাদাখে চিনা সেনা অনুপ্রবেশের ১০০ দিনের মাথায় সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে চিনা কমিউনিস্ট পার্টির শীর্ষ পর্যায়ের প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠক করন বেজিংয়ে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিশ্রি। সূত্রের খবর, পূর্ব লাদাখে সীমান্ত পরিস্থিতি কী অবস্থায় রয়েছে তা নিয়ে বিস্তারিত জানানো হয়েছে সে দেশের শাসক দলের প্রতিনিধিকে।

দুর্নীতি রুখতে এবার মুখ্যমন্ত্রীর নজরে প্রশাসনিক আধিকারিকরা

লাদাখ ইস্যুতে কড়া বার্তা আমেরিকার! ভারতের বিরুদ্ধে চিনা আগ্রাসন বিরোধী প্রস্তাব পেশ মার্কিন সেনেটে

English summary
100 days afte ladakh tension indian army instigated army clashes in galwan claims chinese ambassador
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X