আকোলায় কৃষকদের দাবি না মেটা পর্যন্ত অবস্থানের সিদ্ধান্ত যশবন্তের, আন্দোলনের পাশে মমতাও

  • Posted By: Dibyendu
Subscribe to Oneindia News

কৃষকদের জন্য তাঁর সবকটি দাবি না মেটা পর্যন্ত অবস্থান চালিয়ে যাবেন যশবন্ত সিনহা। মহারাষ্ট্রের আকোলায় এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। আন্দোলনের পাশে দাঁড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আকোলায় কৃষকদের দাবিতে অবস্থানে অনড় যশবন্ত

জেলা প্রশাসন সাতটি দাবির মধ্যে একটি দাবি নিয়ে তাদের অসহায়তার কথা জানিয়ে দিয়েছে। কড়া অবস্থানের কথা জানিয়ে আকোলার জেলাশাসক আস্তিক পান্ডিয়া জানিয়েছেন, সাতটির মধ্যে ছটি দাবি তাঁরা মেনে নিয়েছেন। একইসঙ্গে ধর্নাকারীদের ধর্না তুলে নিতে অনুরোধও জানানো হয়েছে। জেলাশাসকের হুঁশিয়ারি, যদি ধর্নাকারীরা সপ্তম দাবিটি মেনে নেওয়ার দাবি জানাতে থাকেন, তাহলে প্রথম ছটি মেনে নেওয়া দাবি নিয়েও তাঁরা নতুন করে ভাববেন।

কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়ে ষশবন্ত সিনহার দাবিগুলির মধ্যে রয়েছে, কীটের আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্ত তুলো চাষীদের সাহায্য, ভুয়ো বিটি বীজ প্রস্তুতকারকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা, ঋণ মকুবের জন্য ব্যাঙ্ক এবং প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের গ্রামপঞ্চায়েত এলাকায় পরিদর্শন, মুগ, সয়াবিন চাষে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ১০০ শতাংশ সাহায্য, কৃষিকাজে ব্যবহৃত পাম্পে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহ, সোনা বন্ধক রেখে কৃষিঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে আরও সুবিধা প্রদান, নাফেডকে দিয়ে সর্বনিম্ন সমর্থনমূল্যের মাধ্যমে খামারজাত পণ্যের ক্রয়।

আকোলায় কৃষকদের দাবিতে অবস্থানে অনড় যশবন্ত

আকোলা জেলাপ্রসাশন জানিয়েছে, প্রথম ছটি দাবি তাঁরা মেনে নিলেও, শেষ দাবিটির ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কেন্দ্রকে। বিষয়টি নিয়ে যশবন্ত সিনহাকেও জানানো হয়েছে। অবস্থান তুলে নিয়ে জেলাপ্রশাসনের তরফে তাঁকে অনুরোধও করা হয়েছে।

অবস্থান বিক্ষোভে বসা ষশবন্ত সিনহা পাল্টা জানিয়েছেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত সবকটি দাবি মেনে নেওয়া হবে, ততক্ষণ অবস্থান চালিয়ে যাবেন তিনি। একই ব্যবস্থা বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ এবং গুজরাতে চালু থাকলেও, নাফেডের মাধ্যমে খামারজাত পণ্য কেনার দাবি মহারাষ্ট্র সরকার কেন মানতে পারছে না তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন যশবন্ত।

মহারাষ্ট্রের মুখ্য দেবেন্দ্র ফরনবিশ বিষয়টি আলোচনার জন্য উদ্যোগ নিলেও যশবন্ত সিনহার তরফে তাতে সাড়া মেলেনি বলেও সূত্রের খবর।

প্রবীণ বিজেপি নেতা যশবন্ত সিনহার সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন ভাণ্ডারা গোন্ডিয়ার বিজেপি সাংসদ নানা পাটোলে। তাঁর হুমকি যদি পরিস্থিতি খারাপ হয়, তাহলে আন্দোলনে যোগ দেবেন, অরুণ শৌরি, শত্রুঘ্ন সিনহা এবং বরুণ গান্ধীর মতো বিজেপি নেতারাও।

এদিকে, মহারাষ্ট্রে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধেই বিজেপির নেতা ষশবন্ত সিনহার আন্দোলনে সহানুভূতি এবং সমর্থন জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীকে সেখানে পাঠানোর কথা জানিয়েছেন মমতা।

English summary
Yashwant Sinha will continue stir in Akola until all demands are met.
Please Wait while comments are loading...

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.