• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের পক্ষে ও বিপক্ষে কোন দলগুলি রয়েছে?

সোমবার সংসদে পেশ করা হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেটে অনুমোদন পাওয়ার পর আজ লোকসভায় বিলটির পেশ করবেন কেন্দ্রীয় স্বররাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। লোকসভায় বিলটি পাশ করা নিয়ে চিন্তায় পড়তে হবে না শাসক দলকে। তবে এই বিল পাশ করাতে রাজ্যসভায় পর্যাপ্ত সংখ্যা কি রয়েছে বিজেপির? বিজেপি লোকসভায় একার দমে বিলটি পাশ করাতে পারলেও রাজ্যসভায় তাদের অন্য দলের সমর্থন লাগবে।

বিজেপির দাবি রাজ্যসভাতেও পাশ হবে বিল

বিজেপির দাবি রাজ্যসভাতেও পাশ হবে বিল

এরই মাঝে বুধবার শীতকালীন অধিবেশন চলাকালীন নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে অবস্থান বদল করল একাধিক বিরোধী দল। বিজেপি সূত্রের খবর , ইতিমধ্যেই রাজ্যসভার ১২২ সদস্য এই বিলকে সমর্থন করেছেন। তবে এই সমর্থন আরও বাড়বে বলেই তাঁদের আশা। রাজ্যসভায় উচ্চকক্ষে এই মুহুর্তে রয়েছেন ২৩৮ জন। যদিও এর আগে সংখ্যা গরিষ্ঠতা না থাকায় রাজ্যসভায় বিলটি পাশ করাতে পারেনি বিজেপি।

কংগ্রেস

কংগ্রেস

নাগরিকত্ব বিল নিয়ে প্রথম থেকে বিরোধিতা করে এসেছে কংগ্রেস। নাগরিকত্ব বিল পেশ প্রসঙ্গে দলের কর্মপদ্ধতি নিয়ে গত কয়েক দিন দফায় দফায় বৈঠক বসেছে কার্যকরী সমীতির ও দলের শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের। কংগ্রেসের বক্তব্য, এই বিল সংবিধান বিরোধী।

বামপন্থী দলগুলি

বামপন্থী দলগুলি

এদিকে বিলের বিরোধিতায় সরব ছিল বাম দলগুলিও। তাদেরও একই বক্তব্য, এভাবে ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়া সংবিধান বিরোধী। সিএবি থেকে 'অমুসলিম' বিষয়টি সরানোর সুপারিশ দিয়েছে সিপিআই(এম)। এই বিষয়ে সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, 'আমরা এই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের কঠোর ভাবে বিরোধিতা করছি। মাত্র তিনটি দেশের শরণার্থীরা ধর্মের ভিত্তিতে এই দেশের নাগরিকত্ব পাবে! তা মেনে নেওয়া যায় না।'

 উত্তর-পূর্বে বিজেপির শরিক দলগুলি

উত্তর-পূর্বে বিজেপির শরিক দলগুলি

এদিকে ত্রিপুরায় বিজেপির শরিক দল ইন্ডিজেনাশ পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা এই বিলের বিরোধিতা করে আজ রাজ্য জুড়ে ১২ ঘণ্টার বনধের ডাকক দিয়েছে। অসমেও অসম গণ পরিষদ এই বিলের বিরোধিতায় রাস্তায় নেমেছে

তৃণমূল কংগ্রেস

তৃণমূল কংগ্রেস

নাগরিকত্ব বিল নিয়ে বিরোধিতা করবে তৃণমূল। বাংলায় এনআরসি করার তীব্র বিরোধীতা করে বিধানসভা উপনির্বাচনে বাংলার মানুষের সমর্থন পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মত নতুন বিল আসলে ফের আপত্তির ঝড় তুলতে পারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।

নীতিশ কুমারের জেডিইউ

নীতিশ কুমারের জেডিইউ

একদা নাগরিকত্ব বিল পাশ নিয়ে সংসদ থেকে বেরিয়ে আসা নীতিশ কুমারের জনতা দল ইউনাইটেড (জেডিইউ) অবশ্য সমর্থন করবে সিএবিকে। রাজ্যসভায় তাঁদের এই বিলকে সমর্থন নিয়ে শুরু হয়েছে নয়া রাজনৈতিক তরজা। জেডিইউ-এর এক বর্ষীয়ান নেতা এই নিয়ে বলেন যে উত্তর-পূর্বের কিছু সমমনস্ক দলের সঙ্গে আলোচনার পরই দলের অবস্থানে বদল হয়েছে এবং এই বিলকে সমর্থন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 সংশোধনীর পক্ষে যে দলগুলি

সংশোধনীর পক্ষে যে দলগুলি

তবে পদ্ম শিবিরের সঙ্গেই রয়েছে শিরোমনি অকালি দল এবং এলজেপি। আপ, এআইএডিএমকে এবং টিআরএস, যারা গত অধিবেশনেও এই গুরুত্বপূর্ণ বিলে সরকারকে সমর্থন করেছিল, নাগরিকত্ব বিল তৈরির ক্ষেত্রে এখনও তাঁদের অবস্থান ঘোষণা করেনি। অন্যদিকে, মহারাষ্ট্রের সরকার গঠনের ক্ষেত্রে বিজেপির সঙ্গত্যাগ করলেও নাগরিকত্ব বিল নিয়ে মোদী সরকারকেই সমর্থন জানাচ্ছেন তাঁরা। তবে শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউতের দাবি যে নাগরিকত্ব দেওয়া হলেও এই বিলের মাধ্যমে হওয়া নাগরিকদের ২৫ বছর পর্যন্ত যাতে ভোটাধিকার না দেওয়া হয়।

কর্ণাটক উপনির্বাচন ২০১৯ : বিজেপির দাপুটে গেরুয়া নিশান উড়ল কন্নড়ভূমে! ফ্রন্ট সিটে ইয়েদুরপ্পা শিবির

English summary
which parties are supporting or opposing citizenship amendment bill 2019
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X