• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

দেশের লজ্জা, কৃষকদের 'দিল্লি দখল' ইস্যুতে কী বললেন বিরোধী দলের নেতারা?

যা ঘটেছে, তার জন্য দায়ী কে? এই প্রশ্নের জবাবে এবার সরাসরি কেন্দ্রকে কাঠগড়ায় তোলেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত। তিনি এই ঘটনাটিকে দেশের লজ্জা বলে আখ্যা দেন। এদিকে রাজধানীতে তাণ্ডব প্রসঙ্গে বিবৃতি দিয়ে আম আদমি পার্টির তরফে এদিন বলা হয়, 'আজ যা ঘটেছে, তা নিন্দনীয়। আন্দোলন বিগত দুই মাস ধরে শান্তিপূর্ণ ছিল। কেন্দ্রই আজ পরিস্থিতি এতটা খারাপ হতে দিয়েছে। কৃষক নেতারা জানিয়েছেন, যাঁরা আজ হিংসায় ইন্ধন দিয়েছেন, তাঁরা এই আন্দোলনের অংশ নন। তাঁরা বহিরাগত। তাঁরা যে-ই হোন, হিংসা নিঃসন্দেহে এতদিন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ পথে চলা আন্দোলনকে দুর্বল করে দিল।'

অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ রাহুলের

অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ রাহুলের

এদিকে দিল্লিতে কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিলকে ঘিরে তৈরি হওয়া অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন কংগ্রেস নেতা তথা সাংসদ রাহুল গান্ধী৷ আজ তিনি একটি টুইট করে জানান, হিংসা কোনও সমস্য়ার সমাধান নয়৷ বরং এতে দু'তরফেই ক্ষতির হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়৷ কৃষকদের আন্দোলন থামাতে আজও রাহুল গান্ধী কৃষি আইন প্রত্য়াহারের দাবি জানিয়েছেন৷

মিছিলে নামে ৩২টি কৃষক সংগঠন

মিছিলে নামে ৩২টি কৃষক সংগঠন

সাধারণতন্ত্র দিবসে রাজধানী দিল্লির রাজপথে ট্রাক্টর নিয়ে মিছিলে নামে ৩২টি কৃষক সংগঠন৷ যে মিছিলকে কেন্দ্র করে দিল্লি রীতিমত রণক্ষেত্র চেহারা নিয়েছে৷ এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আজ টুইটারে রাহুল গান্ধী লেখেন, 'হিংসা কোনও সমস্য়ার সমাধানের পথ নয়৷ চোট যে কারও লাগতে পারে৷ কিন্তু, ক্ষতি সব সময় দেশের হয়৷ তাই দেশের কল্য়াণের স্বার্থে কৃষি বিরোধী আইন প্রত্য়াহার করা হোক৷'

ব্যারিকেড তৈরি করেছিল পুলিশ প্রশাসন

ব্যারিকেড তৈরি করেছিল পুলিশ প্রশাসন

আজ কৃষকদের এই মিছিল ঠেকাতে, দিল্লির জায়গায় জায়গায় ব্যারিকেড তৈরি করেছিল পুলিশ প্রশাসন৷ তবে, সেই ব্য়ারিকেড ভেঙে কৃষকরা এগিয়ে যেতে শুরু করে৷ ফলে তাঁদের ঠেকাতে লাঠিচার্জ করতে হয় পুলিশকে৷ তবে, তা সত্ত্বেও শেষ রক্ষা করা যায়নি৷ রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র লালকেল্লার দখল নিয়েছে কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী কৃষকরা৷ সেখানে কৃষক সংগঠনগুলির পতাকা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

হিংসা ছেড়ে সমাধানের পথ বেছে নেওয়ার আবেদন

হিংসা ছেড়ে সমাধানের পথ বেছে নেওয়ার আবেদন

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই আজ হিংসা ছেড়ে সমাধানের পথ বেছে নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন রাহুল গান্ধী৷ তবে, এটাই প্রথম নয়৷ কৃষি আইন প্রত্য়াহারের দাবি এর আগেও একাধিকবার রাহুল গান্ধী সোশ্য়াল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন৷ দুই দিন আগেই কেন্দ্র সরকারকে অযোগ্য় এবং অহংকারী তকমা দিয়ে তিনি টুইটারে লেখেন, 'সরকারের কাজ ছিল চিনকে সীমান্তে আটকানো৷ তা না করে আন্দোলনকারী অন্নদাতাদের দিল্লির সীমানায় আটকানো হয়েছে৷ মোদি সরকার- অযোগ্য় এবং অহংকারী৷'

চা-চক্রে মমতার সঙ্গে রাজ্যপাল

English summary
What did Sanjay Raut, AAP, Rahul Gandhi say about hoisting Nishan at Delhi's Red Fort
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X