• search

বিজেপি শাসিত এই রাজ্যটিতে ধর্মীয় স্থানে লাউডস্পিকার বাজানো নিয়ে জারি নয়া নির্দেশ

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    রাজ্যের ধর্মীয় বা জনবহুল স্থানে অবৈধভাবে লাউড স্পিকারের ব্যবহার নিয়ে, এবার নিষেধাজ্ঞা জারি করল উত্তর প্রদেশ সরকার। এজন্য ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত সময়সীমা ধার্য করে দিয়েছে যোগীসরকার। ১৫ জানুয়ারির মধ্যে সমস্ত ধর্মীয় ও জনবহুল স্থান থেকে অবৈধভাবে লাউডস্পিকার সরিয়ে নিতে হবে, না হলে তা ২০ জানুয়ারি খুলে নিতে শুরু করবে খোদ প্রশাসনই।

    বিজেপি শাসিত এই রাজ্যটিতে ধর্মীয় স্থানে লাউডস্পিকার বাজানো নিয়ে জারি নয়া নির্দেশ

    [আরও পড়ুন:মুখ্যমন্ত্রীকে 'তিন তালাক' দিন! মমতার সেই 'মহাপ্রস্থান'-এ নামাবলি উপহার দেবে বিজেপি]

    এর আগে, মন্দির, মসজিদ, চার্চে কোনও রকমের লাউডস্পিকার বাজানো নিয়ে সরকারি অনুমতি নেওয়া হয় কী না , তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে এলাহাবাদ হাইকোর্ট জবাব চায় যোগী প্রশাসনের কাছে। ২০ ডিসেম্বর এই আদালত এ নিয়ে প্রশ্ন করে যোগী প্রশাসনকে। তারপরই এই উদ্য়োগ নেয় উত্তরপ্রদেশের সরকার। এজন্য সমস্ত সরকারী দফতরকে,তথা জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে।

    যোগী সরকারের এই নির্দেশ অনুযায়ী , যে সমস্ত ধর্মীয় সভায় লাউড স্পিকার ব্য়বহার করা হবে , তা যেন ১০ ডেসিবেলের বেশি শব্দমাত্রা না ছাড়ায়। এছা়ডাও বিয়ের আসরেও মাত্রাতিরিক্ত শব্দ ছাড়ানো যাবে না , বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যোগী সরকারের তরফে। যে সমস্ত আধাকারিকরা শব্দদূষণের ক্ষেত্রে কড়া পদক্ষেপ নিতে পারবেন না, তাঁদের বিরুদ্ধেও পদক্ষেপ নেওার কথা বলেছে আদালত।

    [আরও পড়ুন:ফের শিরোনামে গোরখপুর বিআরডি হাসপাতাল, প্রিন্সিপালের অফিস এবং রেকর্ড রুমে 'রহস্য' আগুন]

    English summary
    The Uttar Pradesh government has banned the unauthorised use of loudspeakers and public address systems at religious and public places across the state. Setting January 15 as the deadline for obtaining permission, the government has warned that all such loudspeakers will be removed by January 20.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more