• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কুসংস্কার-ব্ল্যাক ম্যাজিকে আচ্ছন্ন রাজনীতি, অস্বস্তি বাড়ছে উত্তরপ্রদেশ-তামিলনাড়ুতে

  • By Oneindia Bengali Digital Desk
  • |

চেন্নাই/লখনউ, ২৭ অক্টোবর : রাজনীতি আর গণতন্ত্রের ধার ধারে না। দুর্নীতির, ক্ষমতার লোভ ক্রমেই রাজনীতির পরিপূরক হয়ে উঠছে। রাজনীতি অনেকটা ম্যাজিকের মতো। যেখানে নিজের কেরামতি দেখানোর জন্য মানুষের বিশ্বাস নিয়ে কারচুপি করা হয়। দুই দিকের সমতা বজায় থাকলেই তৈরি হবে বিভ্রান্তি, তৈরি করা যাবে নতুন বিশ্বাস-অবিশ্বাসের খেলা। আর ক্ষমতার হাসিলের লড়াই বাদ পড়ে না কোনও পথই।

ঠিক যেমনটা হয়েছে উত্তরপ্রদেশ ও তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে। ক্ষমতা পাওয়ার চেষ্টায় ঝাকফুঁক, কালাজাদুর মারও বাদ যাচ্ছে না।

তন্ত্রমন্ত্র- অতিলৌকিক কাণ্ডকারখানা আরও কত কি!

তন্ত্রমন্ত্র- অতিলৌকিক কাণ্ডকারখানা আরও কত কি!

কিছুদিন আগেই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবকে রামগোপাল যাদব সতর্ক করে বলেছিলেন তাঁর বাবা তথা সমাজবাদী পার্টি দলের প্রধান মুলায়ম সিং যাদব নাকি কালা জাদুর সাহায্য নিয়ে তাঁকে ধ্বংস করে দিতে চাইছেন।

অন্যদিকে তামিলনাড়ুতে আবার, দক্ষিণ ভারতের নামি জ্যোতিষ গুরুর অভিযোগ কালা জাদুর কারণেই নাকি সেপ্টেম্বর মাস থেকে হাসপাতালে শয্যাশায়ী জয়ললিতা।

সামনেই উত্তরপ্রদেশের নির্বাচন। আর তার আগেই আলোচনার কেন্দ্রে কাকা-ভাইপোর বিবাদ। অখিলেশ সমর্থকদের দাবি মুলায়মের ভাই শিবপাল যাদব ব্ল্যাক ম্যাজিকের সাহায্য নিচ্ছেন নিজের পথের কাঁটা দুর করার জন্য। এই দাবিতে সমর্থন করে মুলায়মের তুতো ভাই রামগোপালও অভিযোগ তুলেছেন।

কয়েকদিন আগে মুলায়মকে চিঠিতে রামগোপাল জানিয়েছেন, "দুবছর ধরে তন্ত্র মন্ত্র চলছে সাইফাইয়ে শিবপালের বাড়িতে। অখিলেশের ক্ষতি করা আর নেতাজিকে বশ করার জন্যই এই তন্ত্রমন্ত্র কালাজাদু চলছে।"

শুধু তাই নয়, চিঠিতে এও লেখা হয়েছে, অখিলেশের সৎ মা অখিলেশের বিরুদ্ধে কালাজাদুর ব্যবহার করছেন।

গ্রামের দিকে এখনও কালাজাদুর প্রচলন চলে। গ্রামের দিকে মনে করা হয়, যাঁদের সন্তান হচ্ছে না বা ভয়াবহ কোনও রোগে আক্রান্ত কিংবা বৃষ্টির আহ্বাণের জন্য এই ধরণের তন্ত্র-মন্ত্রের সাহায্য নেওয়া হয়। কিন্তু ক্ষমতা দখলের লড়াইতেও প্রচণ্ডভাবে ঢুকে পড়েছে এই জাদু-টোটকা, তন্ত্রমন্ত্রের প্রভাব।

মুলায়মের ভাই শিবপাল এবং তুতো ভাই রামগোপাল বহুদিনের বিরোধী গোষ্ঠী। নিজের শক্তি বাড়াতে অখিলেশকে নিজের দলে টানতে সমর্থ হয়েছেন রামগোপাল। রাজনৈতিক পণ্ডিতদের কথা বিশ্বাস করলে, ২০১২ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে পর্যন্ত ছবিতেই ছিলেন না অখিলেশ। অথচ একেবারে সবাইকে চমকে দিয়ে মুলায়ম ব্যাটন তুলে দেন ছেলে অখিলেশের হাতে। শিবপাল তাতে যথেষ্ট রুষ্ট হন। কারণ তাঁর ধারণা ছিল মুলায়ম রাজত্বর পর দাদা তাঁকেই গদিতে বসাবেন।

মুলায়মের না রাখা প্রতিশ্রুতি

মুলায়মের না রাখা প্রতিশ্রুতি

মুলায়ম ঘনিষ্ঠদের কথায়, মুলায়ম আসলে ৩+২-এর নীতি নিয়েছিলেন। অর্থাৎ তিন বছর মুলায়ম মুখ্যমন্ত্রী থাকার পর তাকে সরিয়ে শিবপালকে মুখ্যমন্ত্রী করা হবে। তিনবছর চুপচাপ থাকার পর শিবপাল মুলায়মকে তাঁর প্রতিশ্রুতি মনে করিয়ে দিলে মুলায়ম এই বিষয়ে আলোচনা এড়িয়ে যেতে শুরু করেন।

যাবদ পরিবারের পড়শিদের ধারণা, "এটাই সম্ভবত কারণ হতে পারে যার জন্য সাইফাইয়ের বাড়ি গত দুবছরে পুজো ও যজ্ঞের সংখ্যা আচমকাই বেড়ে গিয়েছে। হরিদ্বারের নামকরা সাধু স্বামী কৈলাসানন্দ ইটাওয়াহ-য় নিয়মিত যজ্ঞ করেন।"

স্থানীয় লোকজনের অনেকেই জানিয়েছেন, গত নভেম্বর মাসে সাইফাইতে বিশাল আড়ম্বরের সঙ্গে মুলায়মের জন্মদিন পালন হয়েছিল। কিন্তু মুলায়ম মঞ্চে পৌঁছনোর আগেই প্রায় ২৩-২৪ জন সাধু মঞ্চের উপর বিশাল হোমযজ্ঞ করেছিল। এই গোটা পুজোপাঠ পক্রিয়া শিবপালের তত্ত্বাবধানেই নাকি হয়েছিল।

এখানেই প্রথমবার যাদব পরিবারের কোনও অনুষ্ঠানে কামব্যাক করেন অমর সিং।

তন্ত্রমন্ত্রের বল

তন্ত্রমন্ত্রের বল

অমর সিংয়ের নক্ষত্র ঊর্ধ্বসীমায় চড়তে শুরু করায় রাজ্যসভায় ফের ঢুকে পড়লেন অমর সিং। এদিকের অমর সিংয়ের কামব্যাকেই আজম খান কিছুটা একধারে হতে শুরু করেন। গত সপ্তাহে রামগোপালকে দল থেকেই বহিষ্কার করা হয়। জোর রটনা মুলায়মের দ্বিতীয় স্ত্রী সাধনা গুপ্ত বারণসীর সুথসায়রে যান এবং সেখানে বলেন, তাঁর ছেলে প্রতীক যাদবের (অখিলেশের সৎভাই) স্ত্রী অপর্ণা যাদবকে দলের সভাপতি করা হলেই তবে সমাজবাদী পার্টি টিকে থাকতে পারবে।

'ব্ল্যাক ম্যাজিকের কবলে আম্মাও'

'ব্ল্যাক ম্যাজিকের কবলে আম্মাও'

চেন্নাইয়ের প্রথম সারির জ্যোতিষ গুরুর আবার দাবি, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা কালাজাদুর শিকার হয়েছেন। কালাজাদুর কারণেই গত সেপ্টেম্বর মাস থেকে হাসপাতালে শয্যাশায়ী আম্মা। নিরাপত্তার কারণে নিজের পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক এই জ্যোতিষী জানিয়েছেন, আম্মার প্রচুর শত্রু রয়েছে। শুধু বিরোধী দল ডিএমকে নয়, নিজের দল এআইএডিএমকে-ক মধ্যেও অনেকে রয়েছেন যারা আম্মার বিরুদ্ধে কাজ করছেন। যারা চাইছেন আম্মাকে দুরবস্থায় দেখতে।

শুধু আম্মা নন, তাঁর প্রধান বিরোধী এম করুণানিধিও সম্ভবত ডায়নি বিদ্যার শিকার বলেই মনে করছেন ওই জ্যোতিষ। তাঁর কথায়, "রাজনীতিতে বিরোধিতা, প্রতিদ্বন্দ্বিতা আম বিষয়। ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে শুধু যে কিছু ব্যক্তি বা কোনও একটা দল কালাজাদু, তন্ত্রবিদ্যার সাহায্য নেন, তা বললে ভুল বলা হবে। এর কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই যে... তাই গোপনে অনেকেই অনেককিছুই করছেন।"

More uttar pradesh NewsView All

English summary
UP , Tamil Nadu politics' affair with black magic?
For Daily Alerts

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more