'তিন তালাক বিল মহিলাদের বিপক্ষে', এপ্রসঙ্গে আরও যা জানাল 'মুসলিম ল বোর্ড'

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    কেন্দ্রের তিন তালাক বিল নিয়ে নয়াদিল্লিতে জরুরীকালীন বৈঠকে বসে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। বৈঠক শেষে বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, তিন তালাক বিলের আইন যদি লাগু করা হয় তাহলে তা ভেঙে দেবে বহু পরিবার। এই বিল মহিলাদের বিপক্ষে ,বলে দাবি করেছে মুসলিম ল বোর্ড।

    'তিন তালাক বিল মহিলাদের বিপক্ষে', এপ্রসঙ্গে আরও যা জানাল 'মুসলিম ল বোর্ড'

    বোর্ডের তরফের সচিব মৌলানা খালিদ সইফুল্লা রহমানি জানিয়েছেন, বোর্ডও এই প্রথার বিরোধী, এর জন্য কঠিন আইনের প্রয়োজন বলে মনে করে মুসলিম ল বোর্ডও। তবে কেন্দ্রের আনা বিলের বর্তমান কাঠামো নিয়ে এক্কেবারেই সন্তুষ্ট নয় বোর্ড। বিশেষ করে ৩ বছরের জেলের সাজার বিষয়টি নিয়ে সহমত নয় মুসলিম ল বোর্ড।

    মৌলানা খালিদ সইফুল্লা রহমানি জানিয়েছেন, তালাক হলে স্ত্রীদের ভরণ পোষণ ও তাঁদের সন্তানের ভরণ পোষণের দায়িত্ব নিতে পারেন স্বামীরা। কিন্তু নয়া আইন অনুযায়ী যদি স্বামীর জেল হেফজতই হয়, তাহলে কী করে স্ত্রীর ভরণ পোষণ মেটাবেন একজন তালাকদানকারী স্বামী? তাই এই নয়া বিলের আইন মহিলাদের বিরোধী বলে দাবি কার হয়েছে। প্রসঙ্গত, আগামী সপ্তাহেই এই 'তিল তালাক বিল' সংসদে পেশ করতে চলেছে কেন্দ্র। যে বিল-এ তিল তালাক প্রদানকারীদের ৩ বছরের জেল সমেত বেশ কিছু শাস্তি প্রদানের কথা লেখা রয়েছে।

    English summary
    All India Muslim Personal Law Board (AIMPLB) today in an emergency meeting said that the proposed instant triple talaq bill by the union government is against women and, if implemented, will destroy many families."No procedure was followed in drafting this bill, neither any stakeholder was consulted. President of AIMPLB will convey this stand to PM and request him to withhold and withdraw the bill", Sajjad Nomani of the AIMPLB said.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more