• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

রাত পোহালেই ফের কৃষক-কেন্দ্র বৈঠক! আশাবাদী কৃষিমন্ত্রী

  • |

রাত পোহালেই কৃষকদের সঙ্গে নবম বৈঠকে বসতে চলেছে কেন্দ্র। এর আগে কেন্দ্র ও কৃষকদের দ্বন্দ্বের মধ্যেই শীর্ষ আদালত জানিয়েছে , আপাতত কৃষি আইন স্থগিত রাখতে হবে মোদী সরকারকে। এদিকে, তার সঙ্গেই একটি কমিটি গঠন করার নির্দেশও দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

 বৈঠকের আগে কমিটি থেকে সরলেন ভূপিন্দর

বৈঠকের আগে কমিটি থেকে সরলেন ভূপিন্দর

এদিকে, এই কমিটি থেকে নিজের সরিয়ে নিয়েছেন ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট ভূপিন্দর সিং মান। তিনি বলেন, এই কমিটিতে থাকলে কৃষকদের স্বার্খথ ক্ষুণ্ণ হতে পারে, কোনও সমঝোতায় আসলে। ফলে তিনি সেই জায়গা থেকে সরে কৃষকদের পাশে থাকতে চান। অন্যদিকে, এমন পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী হাল ছাড়ছেন না। কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার জানিয়েছেন, আগামীকাল অর্থাৎ শুক্রবারের বৈঠক নিয়ে তিবনি আশাবাদী। তিনি জানিয়েছেন সরকার খোলা মনে কৃষকদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চায়। আর তাঁদের মন থেকে যাবতীয় বিভ্রান্তি কাটিয়ে দিতে চায়।

বৈঠক শুক্রবার

বৈঠক শুক্রবার

আগামীকাল দুপুর ১২ টা থেকে দিল্লিতে ফের মুখো মুখী হবেন কন্দ্রীয় মন্ত্রী ও কৃষক সংগঠনের নেতারা। এর আগে অষ্টম বৈঠকেই কেন্দ্র স্পষ্ট করেছিল যে কোনও মতেই কৃষি আইন তাঁরা তুলে নেওয়া হবে না। তবে কৃষকরাও নিজেদের দাবি থেকে সরতে রাজি হননি। এরপর সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ আসার পর বৈঠক কোনদিকে যায় সেদিকে নজর সব মহলের।

 আদালতের রায়

আদালতের রায়

এদিকে, শীর্ষ আদালতের এই রায়কে নিজেদের জয় বলেই মনে করছেন কৃষকরা। কিন্তু এখনও তাঁরা বিক্ষোভ চালিয়ে যাবেন কিনা তা নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে আন্দোলনের সময় বৃদ্ধ , মহিলা ও শিশুদের না নিয়ে আসার অনুরোধ জানিয়েছে শীর্ষ আদালত। কারণ এতে প্রাণহানির আশঙ্কা থাকে।

কৃষক আন্দোলন পরিস্থিতি

কৃষক আন্দোলন পরিস্থিতি

এদিকে গত ৪০ দিন ধরে দিল্লি সীমান্তে অবস্থান বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন পাঞ্জাব ও হরিয়ানার কৃষকরা। মোদী সরকারের সঙ্গে ৮ দফায় বৈঠক হয়েছে তাঁদের। কিন্তু কোনও বৈঠকেই সমাধান সূত্র বেরোয়নি। এদিকে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, শীর্ষ আদালত জানিয়েছে ৩ কৃষি আইনই আপাতত স্থহিত রাখা হল। তবে অনির্দিষ্টকালের জন্য কৃষি আইন স্থগিত রাখা সম্ভব নয়। সেটা সংসদীয় গণতন্ত্রের পরিপন্থী। সেকারণে কৃষকদের সঙ্গে দ্রুত সমস্যা সমাধানে একটি চার সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণে কাজ করবে এই কমিটি। কৃষকদেরও এই কমিটির সঙ্গে সহযোগিতার অনুরোধ জানানো হয়েছে। সেই কমিটিতে থাকছেন কৃষকদের প্রতিনিধিও।

English summary
Tomar hopeful of positive discussion on Govt-farmers ninth round of talks on Friday
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X