• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মন্দিরে হনুমান চালিসা পাঠ করে আজান ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের

Google Oneindia Bengali News

আজান এবং লাউডস্পিকার নিয়ে দেশের বিভিন্ন পকেটে সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। তালিকায় এবার কর্ণাটক। সেখানে প্রতিবাদ অন্যরকম। হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের প্রতিবাদ কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে। তারা বলছেন কেন্দ্র সকালের আজানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না । এই লাউডস্পিকার শব্দদূষণ করে। তাই এর প্রতিবাদে তারা হনুমান চালিসা পাঠ করলেন।

মন্দিরে হনুমান চালিসা পাঠ করে আজান ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের

হিন্দু গোষ্ঠী শ্রী রাম সেনে সোমবার কর্ণাটকের অনেক অংশে মন্দিরে হনুমান চালিসা পাঠ করল। ক্ষমতাসীন-বিজেপি সরকারের 'মসজিদে স্থাপিত লাউডস্পিকারগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থতার' বিরুদ্ধে প্রতিবাদী প্রচার হিসাবে তাঁরা এই প্রতিবাদ জানাল। মসজিদে লাউড স্পীকারে বাজানো আজানকে মোকাবেলা করার জন্য ভোর ৫টায় মন্দিরে ভজন পাঠ করা হয়।

রাজ্য পুলিশ এই ঘটনা নিয়ে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে এবং এ পর্যন্ত বেশ কয়েকজন হিন্দু কর্মীকে আটক করা হয়েছে। কর্মকর্তারা বিক্ষোভের জন্য সেনের আহ্বানকে সমর্থন না করার জন্য মানুষকে আহ্বান জানান। শ্রী রাম সেনের প্রধান প্রমোদ মুথালিক, যিনি মাইসুরুর অঞ্জনেয়া মন্দিরে সকালের প্রার্থনায় অংশ নিয়েছিলেন, বলেছেন তাদের প্রচার কেন্দ্রীয় সরকার এবং মুসলিম সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে।

তিনি বলেন, "গত এক বছর ধরে আমরা ক্রমাগত লাউডস্পিকারের কারণে সৃষ্ট সমস্যা, সমাজ, ছাত্র এবং রোগীদের সমস্যা সম্পর্কে সতর্ক করে আসছি। আমরা মুসলমানদেরও বলেছিলাম, কিন্তু নোটিশ জারি করা ছাড়া কিছুই বদলায়নি, কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এটি একটা নাটক ছিল। আজও মসজিদে সকাল ৫ টায় লাউডস্পিকার বাজানো বন্ধ হয়নি," ।

দিনের অন্য চার সময়ে আজানের ধ্বনি অনুমোদিত সীমা অনুযায়ী কমানো হচ্ছে না জানিয়ে তিনি বলেন, "আমাদের লড়াই আজ থেকে শুরু হয়েছে। এরপরও কোনো ব্যবস্থা না নিলে আমরা হাইকোর্টে অবমাননার আবেদন করব। এটা সুপ্রিম কোর্টের আদেশ লঙ্ঘন করে...এটা তালেবান শাসন, পাকিস্তান বা আফগানিস্তান নয়। এটা ভারত, এখানে সংবিধান ও আইনের শাসন আছে।"

তিনি আরও যোগ করেছেন যে তিনি এই বিষয়ে মহারাষ্ট্রে এমএনএস প্রধান রাজ ঠাকরের সাথে কথা বলেছেন। শ্রী রাম সেনে এর আগে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন যে যদি সরকার মসজিদে স্থাপিত লাউডস্পিকারগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয় তাহলে ৯ মে সকাল ৫টা থেকে হনুমান চালিসা বা সুপ্রভাত বা ওমকারা এবং ভক্তিমূলক গানের সাথে সকালের আজানের প্রতিবাদ করা হবে।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরাগা জ্ঞানেন্দ্র বলেছেন, শব্দ দূষণ সৃষ্টিকারী যে কোনও কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। "প্রত্যেকেরই আদালতের আদেশ মেনে চলা উচিত," তিনি এক বিবৃতিতে বলেছেন যে সরকার আইন হাতে তুলে নেওয়ার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে দ্বিধা করবে না।

English summary
to counter azan Hindu group Sri Rama Sene on Monday launched chanting of Hanuman Chalisa at temples in many parts of Karnataka
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X