• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সঙ্গে রক্তের ‌বিভাগের নিবিড় সম্পর্ক, দাবি গবেষকদের

করোনা ভাইরাস নিয়ে রোজই নিত্য নতুন গবেষণা প্রকাশ্যে আসছে। মানুষের শারীরিক গঠন ও তাদের ভেতরকার কলকব্জা অনুযায়ী কাদের এই রোগের ঝুঁকি বেশি রয়েছে তা নিয়ে গবেষণা চলছে দেশ–বিদেশ জুড়ে। সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে কোভিড ১৯ রোগীদের একটি জন্মগত বিশ্লেষণ থেকে বোঝা গিয়েছে যে রক্তের ধরনের ওপর নির্ভর করে করোনায় সংক্রমিত হওয়ার বিষয়টি।

এ রক্তের ধরনের মানুষ বেশি রোগে আক্রান্ত হয়

এ রক্তের ধরনের মানুষ বেশি রোগে আক্রান্ত হয়

বিজ্ঞানীরা ইউরোপের হাজারের বেশী রোগীর জিনের তুলনা করে দেখেছেন যে যাঁরা ‘‌এ'‌ গ্রুপের রক্তের অধিকারি তাঁদের মধ্যে বিভিন্ন রোগ বাসা বাঁধে অন্যদিকে ‘‌ও'‌ বিভাগের রক্ত রয়েছে যাঁদের তাঁরা কম অসুস্থ হন। বুধবার নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অফ মেডিসিনের পক্ষ থেকে রোগের সঙ্গে রক্তের ধরনের যোগ প্রমাণ করতে না পারলেও তারা নিশ্চিত করে জানিয়েছে যে চিনে এ ধরনের এক যোগ পাওয়া গিয়েছিল। উইশকনসিন মেডিক্যাল কলেজের রক্ত বিশেষজ্ঞ ডাঃ পরমেশ্বর হরি এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‌আমাদের বেশিরভাগই এটি ছাড় দিয়েছিল কারণ এটি ছিল খুব অশোধিত অধ্যয়ন'‌। তবে নতুন এক সমীক্ষা সামনে আসার পর তিনি বলেন, ‘‌এখন আমি বিশ্বাস করছি, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।'‌ যদিও অন্যান্য বিজ্ঞানীরা সতর্ক করছেন এ বিষয়ে।

অনেক গবেষকই এই সমীক্ষার সঙ্গে একমত নয়

অনেক গবেষকই এই সমীক্ষার সঙ্গে একমত নয়

সান দিয়েগোর আর এক বৈজ্ঞানিক ডাঃ এরিক টপল এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‌রক্তের ধরণের ভূমিকার প্রমাণ হল অস্থায়ী, এটি নিশ্চিত হওয়ার পক্ষে যথেষ্ট সংকেত নয়।'‌ ইতালি, স্পেন, ডেনমার্ক, জার্মানি ও অন্য দেশের বিজ্ঞানীরা এই গবেষণার সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন। তাঁরা গুরুতর কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত প্রায় দু'‌হাজার রোগীর সঙ্গে তুলনামূলকভাবে অন্যান্য কয়েক হাজার মানুষের তুলনা করেছেন, যারা সুস্থ ছিলেন বা যাদের কেবল হালকা বা কোনও উপসর্গই ছিল না। গবেষকরা মারাত্মক রোগের সম্ভাবনার সঙ্গে ছয়টি জিনের তারতম্যগুলি একত্রিত করেছিলেন, এর মধ্যে কয়েকটি এমনও রয়েছে যা ভাইরাসের প্রতি সংবেদনশীল লোকেরা কীভাবে ঝুঁকিতে পড়তে পারে ও ভূমিকা নিতে পারে। তারা রক্তের গ্রুপগুলিও সম্ভাব্য ঝুঁকির সঙ্গে বেঁধেছিল।

 অনেকেই দ্রুত এই সংক্রমণে আক্রান্ত হচ্ছেন

অনেকেই দ্রুত এই সংক্রমণে আক্রান্ত হচ্ছেন

টপল বলেছিলেন যে, ‘‌অধিকাংশ জেনেটিক গবেষণা বেশ লম্বা, তাই এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ দেখার যদি অন্য বিজ্ঞানীরা অন্য গ্রুপের রোগীদের মধ্যে একই সূত্র খুঁজে পায় কিনা।'‌ কিছু মানুষ করোনা ভাইরাসে সহজেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন আবার কিছু কম মানু্য এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন না, এর পেছনে কি কারণ থাকতে পারে তার কারণ খোঁজার চেষ্টা করছেন গবেষকরা। গবেষকরা জানিয়েছেন যে জিনের কারণে বৃদ্ধ বা পুরুষের মধ্যে এই রোগের ঝুঁকি রয়েছে, অন্য সম্ভাব্য কারণ হিসাবে বলা হচ্ছে হোস্ট ফ্যাক্টর যা রোগের তীব্রতার ওপর প্রভাব ফেলে। চারটে প্রধান রক্তের বিভাগ হল এ, বি, এবি এবং ও এবং এটি আপনার লাল রক্তের পৃষ্ঠের প্রোটিন দ্বারা নির্ধারিত হয়, জানিয়েছেন ডাঃ মারি হরোউইটজ।

রক্তের বিভাগ ও হলে করোনার ঝুঁকি কম

রক্তের বিভাগ ও হলে করোনার ঝুঁকি কম

গবেষকরা জানিয়েছেন, যে সব মানুষ শরীরে ‘ও' পজিটিভ এবং নেগেটিভ রক্ত বহন করছে, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি তাদের সবচেয়ে কম। হরি এ বিষয়ে বিশ্লেষণ করে বলেছেন, ‘‌যারা ও রক্ত বিভাগের অন্তর্গত তাঁরা নির্দিষ্ট প্রোটিনকে বিদেশি হিসাবে স্বীকৃতি দিতে সক্ষম এবং এটি ভাইরাস পৃষ্ঠের প্রোটিনে প্রসারিত হতে পারে।'‌ করোনা ভাইরাস বাদে কলেরা, ই কলি থেকে রিকারেন্ট ইউরিনারি ট্র‌্যাক্ট ইনফেকশন এবং এইচ পাইলোরির কারণে আলসার ও পেটে ক্যান্সার হতে পারে, এই রোগগুলিও রক্তের ধরনের ওপরই নির্ভরশীল। তবে রক্তের ধরনের ওপর যে করোনা ভাইরাস নির্ভর সে বিষয়ে চিন সমীক্ষা চালালেও অন্যান্য দেশের গবেষকদের এর ওপর পরীক্ষা করা বাকি রয়েছে।

মোদীর সর্বদল বৈঠক জরুরী ছিল, রাজনীতি নয় একসাথে লড়তে হবে মন্তব্য রাহুলের

রেস্তোরাঁ সহ অন্যান্য জায়গায় বয়কট করা হোক চাইনিজ খাবার, দাবি রামদাস আটওয়ালের

English summary
‌A new study has found that those with O blood type have a lower risk of corona disease,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X