• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

দেশে শাওমির দোকানগুলিতে লোগো ঢেকে দেওয়া হচ্ছে, কারণটা কি জানেন

লাদাখে ভারত–চিন মুখোমুখি সংঘর্ষের পর দেশের সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে চিন–বিরোধী মনোভাবের সৃষ্টি হওয়ায় ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থা শাওমিকে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়ার মুখে পড়তে হয়। যে কারণে ভারতের সবথেকে বড় স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানি শাওমি নিজের দোকানের লোগো এবং সাইন বোর্ডের উপর সাদা রঙ দিয়ে 'মেড ইন ইন্ডিয়া’ লেখা ব্যানার দিয়ে সেটিকে ঢেকে দেওয়া শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার অল ইন্ডিয়া মোবাইল রিটেলার অ্যাসোসিয়েশনের (‌এআইএমআরএ)‌ পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

লোগো ঢাকতে শুরু করেছে শাওমি

লোগো ঢাকতে শুরু করেছে শাওমি

কোম্পানি জানিয়েছে যে দেশে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় চলতে থাকা চিন বিরোধী প্রচারের ফলে মোবাইলে দোকান এবং বিক্রেতাদের ক্ষতি হবার সম্ভাবনা রয়েছে। এই কারণেই শাওমি তাদের লোগো ঢেকে দিতে শুরু করেছে যাতে তাদের কোন ক্ষতি না হয়। মোবাইল ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে জড়িত মানুষজন অল ইন্ডিয়া মোবাইল রিটেইলার অ্যাসোসিয়েশন চিনের স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলোর উদ্দেশ্যে একটি আবেদনপত্র পেশ করেছে। তারা জানিয়েছে যে চিনের স্মার্টফোন তাদের দোকানে বিক্রি করা এখন ঝুঁকি হতে পারে। এই কারণে তাদের চিনের স্মার্টফোনের ব্র্যান্ডিং লুকিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন হচ্ছে।

ব্র‌্যান্ডের নাম মুছে ফেলার অনুরোধ

ব্র‌্যান্ডের নাম মুছে ফেলার অনুরোধ

ভারতে চিন-বিরোধী মনোভাব চাড়া দিয়ে ওঠে গত ১৫ জুন লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় হওয়া চিন-ভারত মুখোমুখি সংঘর্ষের কারণে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার পর থেকে। এআইএমআরএ-এর ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট অরবিন্দ খুরানা বলেন, ‘‌মি (‌শাওমি)‌ শুরু করে দিয়েছে সাদা রঙ দিয়ে মেড ইন ইন্ডিয়া ব্যানার বোর্ডের ওপর লাগানো।' যদিও শাওমির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। এআইএমআরএ তাদের চিঠিতে চিনের মোবাইল ফোন ব্র‌্যান্ডগুলিকে অনুরোধ করেছে যে তাদের খুচরো ব্যবসার দোকানগুলির সামনের অংশ থেকে কয়েক মাসের জন্য ব্রান্ডের নাম মুছে ফেলুক অথবা তা কাপড়/‌ফ্লেক্স দিয়ে ঢেকে রাখুক। জানা গিয়েছে, সম্প্রতি চিন-বিরোধী আন্দোলনকারিরা মুম্বই, আগ্রা, জব্বলপুর ও পাটনায় বিভিন্ন চিনা ব্র‌্যান্ডের দোকানে গিয়ে ভাঙচুর চালায়।

চিন–বিরোধী সংগঠনের প্রচার

চিন–বিরোধী সংগঠনের প্রচার

যে কোন কোম্পানির ব্র্যান্ড লোগো এবং সাইনবোর্ড তাদের রিটেইলার ইন্সেন্টিভ এর সঙ্গে জড়িত থাকে।। ফলে এই সময় যে কোনো রকমের লোকসান হলে তার প্রভাব সরাসরি খুচরো বিক্রেতার উপর পড়বে। অরবিন্দ খুরানা এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‌আমরা আমাদের সদস্য ও তাদের দোকানের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে চিঠি পাঠিয়েছি। আমরা বাজারে একটু হলেও বিক্ষোভ দেখেছি।'‌ জানা গিয়েছে কিছু চিন-বিরোধী সংগঠন খুচরো ব্যবসায়াদের একসপ্তাহের মধ্যে দোকানের সাইনবোর্ড সরিয়ে দেওয়ার জন্য বলেছে।

অন্যান্য চিনা ব্র‌্যান্ডকেও লোগো সরানোর জন্য বলা হয়েছে

অন্যান্য চিনা ব্র‌্যান্ডকেও লোগো সরানোর জন্য বলা হয়েছে

শাওমি ছাড়াও চিনের অন্যান্য জনপ্রিয় মোবাইল ব্র্যান্ড ওপো,ভিভো, রিয়েলমি ওয়ানপ্লাস, লেনোভো, মোটোরোলা এবং হুয়াওয়ের কাছেও এই চিঠি পাঠানো হয়েছে। তাদেরকেও জানানো হয়েছে যাতে তারা নিজেদের ব্র্যান্ডিং যুক্ত সাইনবোর্ড সরিয়ে ফেলে সমস্ত দোকান থেকে। যতক্ষণ না পর্যন্ত চিন বিরোধী সমস্ত প্রচারন বন্ধ না হয়ে যায়, ততক্ষণ পর্যন্ত লোগো সম্পূর্ণরূপে লুকিয়ে রাখা ভালো হবে বলে মনে করছে ইলেকট্রনিক্স মহল।

মুখ্যমন্ত্রীর প্রস্তাব ফেরালেন সূর্যকান্ত, করোনা বিশেষজ্ঞ কমিটিতে থাকার প্রস্তাব প্রত্যাখান

১ কোটি আক্রান্তের দোরগড়ায় দাঁড়িয়ে অক্সিজেন সঙ্কটের মুখোমুখি গোটা বিশ্ব, বলছে হু

English summary
the logo is being covered in xiaomis shops across the country know the reason
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X