India
  • search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

Josh-Mash এর যোগ প্রচারের উদ্যোগে সামিল স্বামী অবদেশানন্দজীও

Google Oneindia Bengali News

দেশের মাটি ছাড়িয়ে ভারতীয় যোগ বিদেশেও জনপ্রিয় হয়েছে গোটা বিশ্বে। এই ব্যাপ্তি এবং জনপ্রিয়তাকে কয়েক বছর আগেই স্বীকৃতি দিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। ২১ জুন দিবসটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। যোগকে সকলের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে সামিল হয়েছে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় শর্ট ভিডিও অ্যাপ জোশ। পুরস্কার প্রাপ্ত সামাজিক সংস্থা MASH Project Foundation এর সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে এগিয়েছে জোশ।

Josh-Mash এর যোগ প্রচারের উদ্যোগে সামিল স্বামী অবদেশানন্দজীও

এমনকি যোগ সংক্রান্ত সচেনতার বার্তাকে ছড়িয়ে দিতে এই উদ্যোগে সামিল হয়েছেন স্বামী অবদেশানন্দজী। তিনি তাঁর আধ্যাত্মিক জ্ঞান পৌঁছে দিচ্ছেন মানুষের কাছে। YogaForHumanity নামে এক বিশেষ প্রচারের মাধ্যমে যোগের গুরুত্ব তুলে ধরা হচ্ছে। সেই উদ্যোগে অংশ নিয়েছেন আইআইটি-র প্রাক্তণী অভিনব ট্যান্ডনও। মূলত দেশের যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে যোগ ও আধ্যাত্মিকতার বার্তা ছড়িয়ে দিতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

২০১৫ সালের ২১ জুন থেকে এই দিনটিকেই আন্তজাতিক যোগ দিবস ঘোষণা করা হত। রাষ্ট্রপুঞ্জ তরফে ২০১৪ সালে এই সংক্রান্ত বড় ঘোষণা করা হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীই ২০১৪ সালে রাষ্ট্রপুঞ্জে বক্তব্য রাখার সময় যোগের কথা তুলে ধরেন বিশ্বের সামনে। একই সঙ্গে যোগ দিবসের প্রয়োজনীয়তা নিয়েও বক্তব্য তুলে ধরেন। ২১ জুন আন্তজাতিক যোগ দিবস ঘোষণা করার দাবি রাখেন প্রধানমন্ত্রী। তবে যোগ দিবস পালন করা হলেও নতুন প্রজন্ম এখনও এই বিষয়ে মুখ ফিরিয়ে। আর তাঁদের মধ্যেই যোগকে আরও জনপ্রিয় করে তুলতে এবং আরও বৃহৎ উদ্দেশ্যে Swami Avdheshanand-জি #YogaForHumanity চ্যালেঞ্জ নিয়ে এসেছেন। যা শুরু হয়েছে গত ৭ জুন থেকে। চলবে আগামী ২৮ জুন ২০২২ পর্যন্ত। শর্ট ভিডিও অ্যাপ জোশের মাধ্যমে এই চ্যালেঞ্জে অংশ নেওয়া যাবে। ভারতের অন্যতম এই অ্যাপের মাসিক অ্যাকটিভ ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৫৩ মিলিয়ন।

কিন্তু কীভাবে অংশ নেওয়া যাবে?

চালেঞ্জে অংশ হিসাবে ব্যবহারকারীরা তাঁদের পছন্দের যোগাসন ভিডিওয়ের মাধ্যমে তুলে ধরতে হবে। এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে তাঁর আরও তিনবন্ধুকে মনোনীত করতে হবে। এবং তাঁদেরকে একই ভাবে ভিডিও পোস্ট করতে হবে। আর এভাবেই যোগে'র প্রসার ঘটবে বলে মনে করছেন উদ্যোগক্তারা। আর সেখানে 'জোশ' অসাধারণ একটি প্লার্টফর্ম হিসাবেই মনে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে এই চ্যালেঞ্জ ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছে। গত ২১ শে জুন পর্যন্ত ৬৫০ মিলিয়নেরও বেশি ভিউ এসেছে বলেও একটি তথ্য জানানো হয়েছে।

এই চ্যালেঞ্জের উদ্দেশ্যই হল ভারতীয়দের মধ্যে আন্তর্জাতিক যোগদিবসকে আরও বেশি করে জনপ্রিয় করে তোলা। এবং যোগের মাধ্যমে কর্মদক্ষতাকে আরও বাড়িয়ে তোলা। শুধু তাই নয়, যোগের মাধ্যমে সুস্থ এবং স্বাস্থ্য সচেতন একটা কমিউনিটি গড়ে তোলাও অন্যতম টার্গেট এই চ্যালেঞ্জের।

স্বামী অবদেশানন্দজী গিরি জলবায়ু পরিবর্তন, যোগব্যায়াম সহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সভাপতিত্ব করেছেন। শুধু তাই নয়, নিয়মিত ভাবে একাধিক আন্তর্জাতিক ফোরামেও স্বামীজি সভাপতিত্ব করেছেন। ভারতের সাধু সংগঠনের অন্যতম পুরানো আকড়া জুন আচার্য মহামন্ডলেশ্বর। World Council of Religious Leaders বোর্ডের সদস্যও স্বামী অবদেশানন্দজী। ২০১৯ন সালে 'Responsible Leadership Summit'-এও বক্তব্য রাখেন স্বামীজি। এই বছর যোগা দিবসে ভারতের আধ্যাত্মিক নেতারা নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কোয়ারে আয়োজিত একটি জমকালো অনুষ্ঠানে যোগ দেন। রানধীর জয়সওয়াল, যিনি কিনা নিউ ইয়র্কের ভারতীয় দূতাবাসের Consul General। তাঁর আমন্ত্রণেই ওই অনুষ্ঠান হয়।

Mr Tandon (Founder, WIOM, World Is One Metaverse) বলেন, বেদের উপর স্বামীজির অসম্ভব দক্ষতাই গোটা বিশ্বের কাছে পরিচিতি এনে দিয়েছে। শুধু তাই নয়, একজন বড় প্রবক্তাও বটে। আমরা সত্যিই ভাগ্যবান যে তাঁর আশির্বাদ পেয়েছি। #YogaforHumanity-এর অংশ হতে পেরেও গর্বিত বলে জানিয়েছেন মিস্টার টন্ডোন। তবে এই প্রচারে অংশ নেওয়া virality partner Josh, Mash Project এবং প্রাইজ পার্টনার Agatsa, (বিশ্বের সবথেকে ছোট ECG device বিক্রেতা), Rapz (অন্যতম স্মার্টওয়াচ বিক্রতা) এবং যারা সবথেকে বড় ট্রেন্ডিংকে কার্যত উৎসবে পরিণত করে দিয়েছেন এমন ভারতীয় সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন টন্ডোন।

Sunder Venketraman, (Head - Creator and Content Ecosystem, Josh)- সুস্থ থাকাটা আমাদের খুবই প্রয়োজন। প্রত্যেকদিনে যোগাভ্যাস ফিট এবং সুস্থ করে তুলবে। আর সেই লক্ষ্যেই Mash Foundation এবং Swami Avdheshanandji-এর সঙ্গে হাত মেলানো। আর #YogaForHumanity ক্যাম্পেন শুরু করা। আর এই ক্যাম্পেন যেভাবে জনপ্রিয় হয়েছে তাতে আমি আনন্দিত। যেভাবে স্বামীজি এই ক্যাম্পেনকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন এবং সাফল্যের মুখ দেখিয়েছেন তাতে ধন্যবাদ জানালেও কম নয়। স্বামীজির উদ্দেশ্যে হল যোগের মাহাত্ব, ভারত সহ বিশ্বের যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া। স্বাস্থ্যবান লাইফস্টাইলকে সবসময় উৎসাহ দেয় জোশ।

MASH Project Foundation কি করে?

MASH Project Foundation - একটি পুরস্কৃত সমাজসেবী সংস্থা। সমাজ গঠনে দায়বন্ধ তাঁরা। SDG - 17 ফোকাশ রয়েছে এই সংস্থা।

Josh আসলে কি?

ভারতীয় সংস্থার তৈরি জোশ অ্যাপ। অগস্ট ২০২০ সালে আত্মপ্রকাশ করে এটি। অবশ্যই শর্ট ভিডিও অ্যাপ। VerSe Innovation এই অ্যাপ তৈরি করেছে। ভারতের সেরা ১০০০ বেস্ট ক্রিয়েটর, 20000 ক্রিয়েটার্সদের একটি কপমিউনিটি যুক্ত রয়েছে। ১০ সবথেকে বড় সঙ্গীতের তথ্য, 15+ মিলিয়ন UGC ক্রিয়েটার্স, অসাধারণ কনটেন্ট ক্রিয়েটার্স টুলস রয়েছে। জোশ ইতিমধ্যে দেশের তরুণ প্রজিন্মের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছে। অবশ্যই short-video অ্যাপ হিসাবে। ইতিমধ্যে প্লে-স্টোর থেকে ১০০ মিলিয়নেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে। মাসিক অ্যাক্টিভ ব্যবহারকারী ১৫৩ মিলিয়ন। ডেলি অ্যাক্টিভ ব্যবহারকারী'র সংখ্যা ৭৪ মিলিয়ন। ব্যবহারকারীরা এই অ্যাপে গড় ২৩ মিনিট করে সময় কাটান। যা ডিজিটাল জগতে বিপ্লব ঘটিয়ে দেওয়ার জন্যে যথেষ্ট বলেই দাবি।

English summary
Swami Avdheshanandji join hands with Josh-Mash Yoga campaign
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X