• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

তীব্র তাপপ্রবাহে ১২২ বছরের মধ্যে তৃতীয় উষ্ণতম এপ্রিল! হিমালয় সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গে আবহাওয়ায় ভাঙল আগেকার সব রেকর্ড

Google Oneindia Bengali News

৩ মে। সারা ভারতেই আপাতত কোথাও তাপপ্রবাহের (heatwave) পরিস্থিতি নেই। তবে গত হওয়া এপ্রিল ছিল ১২২ বছরের মধ্যে তৃতীয় উষ্ণতম। এমনটাই বলছে আবহাওয়া (weather) দফতর। মার্চের পরে এবার দীর্ঘ সময় ধরে উষ্ণ ছিল এপ্রিল। এই মাসে ভারতের বিভিন্ন জায়গায় তাপমাত্রা পেরিয়ে গিয়েছে ৪৫ ডিগ্রি। অন্যদিকে হিমালয় সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ ও সিকিম বৃষ্টিতে ১২২ বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে গিয়েছে।

Weather Update : ঈদের সকালে ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি, বঙ্গে আসছে নিম্নচাপ
দীর্ঘ সময় ধরে তাপপ্রবাহ

দীর্ঘ সময় ধরে তাপপ্রবাহ

এবারের এপ্রিলে দেশের বিভিন্ন অংশে দীর্ঘ সময় ধরে অর্থাৎ টানা তাপপ্রবাহ দেখা গিয়েছে। যার জেরে পশ্চিম রাজস্থান, পূর্ব উত্তর প্রদেশ, পশ্চিম মধ্যপ্রদেশ এবং মহারাষ্ট্রের বিদর্ভে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি।

বেড়েছে গড় তাপমাত্রা

বেড়েছে গড় তাপমাত্রা

এপ্রিল জুড়ে তাপপ্রবাহ থাকায় এই মাসের গড় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫.৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যেখানে গড় সাধারণ তাপমাত্রা ৩৩.৯৪। ১৯০১ থেকে গরমের রেকর্ড তুলনা করলে দেখা যাবে, সাম্প্রতিক অতীতে দুবার এপ্রিলের গরমের তীব্রতা ছিল খুব বেশি। ২০১০ সালে এপ্রিলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার গড় ছিল ৩৫.৪২ ডিগ্রি এবং ২০১৬-তে তা ছিল ৩৫.৩২ ডিগ্রি।

 তুলনামূলক রাতের গরমও ছিল বেশি

তুলনামূলক রাতের গরমও ছিল বেশি

এতক্ষণ দিনের তাপমাত্রার কথা আলোচনা হচ্ছিল। এবার রাতের তাপমাত্রার দিকে নজর রাখলে দেখা যাবে, তাও ছিল বেশ। এবছরের এপ্রিলের গড় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.৫১ সেলসিয়াস। এই তাপমাত্রা ছিল স্বাভাবিকের থেকে ১.৩৬ ডিগ্রি বেশি। ১৯০১ থেকে দ্বিতীয়বারের জন্য এই পরিস্থিতি তৈরি হল বলেই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

১১ টি আবহাওয়া কেন্দ্রে ছাড়িয়েছে তাপমাত্রা

১১ টি আবহাওয়া কেন্দ্রে ছাড়িয়েছে তাপমাত্রা

হিমাচল প্রদেশ, ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড, উত্তর প্রদেশ, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, পঞ্জাব, কর্নাটক, লাক্ষাদ্বীপের আবহাওয়া কেন্দ্রগুলিতে এপ্রিলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার যে রেকর্ড ছিল তাকে ছাড়িয়ে গিয়েছে। অন্য তিনটি কেন্দ্রে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছে।
আবহাওয়া দফতর বলেছে, দীর্ঘ সময় ধরে এই পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার কারণ অনুকূল কোনও সিস্টেম যেমন পশ্চিমী ঝঞ্ঝা রিংবা দেশের বড় অংশ জুড়ে বজ্রবিদ্যুতের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। এপ্রিলে বৃষ্টির রেকর্ড বিশ্লেষণে দেখা গিয়েছে সারা দেশে ৩৮.৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এই পরিমাণ স্বাভাবিকের থেকে ২ শতাংশ কম।

উত্তর-পশ্চিম ভারত তৃতীয় শুষ্কতম

উত্তর-পশ্চিম ভারত তৃতীয় শুষ্কতম

উত্তর-পশ্চিম ভারতে এপ্রিলে বৃষ্টি হয়েছে ৫.৬ মিলিমিটার। ১৯০১ সাল থেকে যা ছিল তৃতীয় শুষ্কতম বছর। এর আগে পরিস্থিতি খারাপ ছিল স্বাধীনতার বছরে (১.৮ মিমি) এবং ১৯৫৪ সালে (৪.৪ মিমি) ।

বিপরীত চিত্র দক্ষিণ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে

বিপরীত চিত্র দক্ষিণ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে

তবে এর বিপরীত চিত্র দেখা গিয়েছে দক্ষিণ ও উত্তর-পূর্ব ভারতে। এপ্রিলে এই দুই জায়গায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হয়েছে। আবহাওয়া দফতরের তথ্য বিশ্লেষণ করলে দেখা যাবে, হিমালয় সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিমে সব থেকে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে। শুধু তাই নয় ১২২ বছরের মধ্যে সব থেকে বেশি ২৩৬.৮ মিমি বৃষ্টি হয়েছে হিমালয় সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিমে। এছাড়াও এপ্রিলের বৃষ্টিপাতের নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে মৌসিনরামে ৪০১.৮ মিমি এবং ইটানগরে ১৬৬.৬ মিমি।

ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস বঙ্গে, জারি হলুদ সতর্কতা, তাপপ্রবাহ থেকে মুক্তির খবর শোনাল IMDভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস বঙ্গে, জারি হলুদ সতর্কতা, তাপপ্রবাহ থেকে মুক্তির খবর শোনাল IMD

English summary
Sub Himalayan and Sikkim West Bengal breaks 122 years highest April rainfall record
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X