• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ইংল্যান্ডের থেকে বেশি ইংরাজিভাষী থাকে ভারতে! জনবিস্ফোরণ নিয়ে এই তথ্যগুলি বিস্ময়কর

দ্রুত হারে বেড়ে চলেছে ভারতের জনসংখ্যা। কোনভাবেই লাগাম পরানো যাচ্ছে না। একসময় প্রতিবেশী দেশ চিন এই জনবিস্ফোরণে ভারতের সঙ্গী ছিল। কিন্তু সেই দেশও এখন জনসংখ্যার দ্রুত বৃদ্ধিতে আগল তুলতে পেরেছে। পরিসংখ্যানবিদরা বলছেন, এই হারে জনসংখ্যা বাড়তে থাকলে আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই ভারতের জনসংখ্যা ১৭০ কোটিতে পৌঁছে যাবে। ২০২৪ সালের মধ্যেই জনসংখ্যায় চিনকে ছাপিয়ে ভারতই হবে বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশ।

জনসংখ্যায় ২০২৪-এ প্রথম হবে ভারত

নিছক ভারতের জনসংখ্যা ১৩০ কোটি বললে এই বিপুল জনসংখ্যার চাপটা ঠিক করে বোঝা যায় না। ২০০১ সালের জনগণনায় ভারতের জনসংখ্যা ছিল ১০২ কোটি ৮০ লক্ষের মতো। ১৯৯১ সালে জনসংখ্যা ছিল ২৩ কোটি ৮০ লক্ষ। অর্থাত ১০০ বছরে ভারতের জনসংখ্যার বৃদ্ধি হয়েছে ৩৩২%। পাশাপাশি বিশ্বের অন্যান্য কয়েকটি দেশের জনসংখ্যা ও এ সংক্রান্ত কিছু বিস্ময়কর তথ্য ধরে বিচার করলে বিষয়টা স্পষ্ট হয়।

থাইল্যান্ডে গুহায় আটকে পড়া ১৩ জনকে উদ্ধার করা নিয়ে গত সপ্তাহদুয়েক ধরে বিশ্ব জুড়ে চাঞ্চল্য ছিল। ভারতে এরকম কত কত শিশু-কিশোর নিখোঁজ হয়ে যায় প্রত্যেক বছর। কিন্তু তার হিসেব রাখা সম্ভব নয়। কারণ ভারতের বস্তিবাসীর সংখ্যাটাই থাইল্যান্ডের মোট জনসংখ্যার সমান, প্রায় সাড়ে ৬ কোটি।

পৃথিবীর অন্যতম বড় দেশ ব্রাজিল। আকারে ভারতের চেয়ে আকারে অনেকটাই বড়। কিন্তু এই দেশের একটা বিরাট অংশ জুড়ে আছে দুর্ভেদ্য আমাজন অরণ্য। ব্রাজিলের যা জনসংখ্যা সেই, ২২.৪৬ কোটি মানুষ বাস করেন ভারতের একটি রাজ্য উত্তর প্রদেশেই। আরও দুটি বড় দেশ অস্ট্রেলিয়া ও কানাডার মিলিত জনসংখ্যা ভারতের ওড়িশা এবং ছত্তিশগঢ়-রাজ্যের মোট সংখ্যার থেকে কম।

মুম্বই লোকালের ভিড় সম্পর্কে সারা বিশ্বই অবহিত। রোজ অন্তত ৭৫ লক্ষ ৮০ হাজার মানুষ শহরতলী থেকে মুম্বইতে আসেন লোকাল ট্রেনের মাধ্যমে। বিশ্বের দুটি দেশ নিউজিল্যান্ড, বুলগেরিয়ার জনসংখ্যা এর থেকে অনেক কম। আবার এই বিপুল সংখ্য় যাত্রীকে যে ভারতীয় রেল পরিষেবা দেয়, তাদের কর্মীর সংখ্যাই ১৪ লক্ষ। অর্থাত ত্রিনিদাদ ও টোবাগো, এস্তোনিয়া, মরিশাস, বাহারিন, সাইপ্রাস, লুক্সেমবার্গ, আইসল্যান্ড, লিস্টেনস্টিন, মোনাকো ও ভ্যাটিক্যান সিটির মিলিত মোট জনসংখ্যার সমান সংখ্যক ভারতীয় কাজ করেন শুধুমাত্র রেল সেক্টরে।

জনসংখ্যায় ২০২৪-এ প্রথম হবে ভারত

ইংরেজি, ইংল্যান্ডের বাসিন্দাদের মাতৃভাষা হিসেবেই পৃথিবীতে ছড়িয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ইংরেজি বলতে পারা লোকের দেশের নাম কিন্তু ইংল্যান্ড নয। এই পালকটিও রয়েছে ভারতের মুকুটেই। ভারতে প্রায় ১২৫ মিলিয়ন বা ১২ কোটি ৫০ লক্ষ মানুষ ইংরেজিতে কথা বলেন। সেই সঙ্গে বড় দেশ হিসেবে নাম থাকা রাশিয়ার মোট জনসংখ্য়ার প্রায় দ্বিগুন সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীই রয়েছে ভারতে। ২০১১ সালের জনগণনায় এই সংখ্যাটা ছিল ৩১৫ মিলিয়ন বা ৩১ কোটি ৫০ লক্ষ।

মুসলিম জনসংখ্যার নিরিখেই অনেক দেশের থেকেই এগিয়ে আছে ভারত। ভারতে কিন্তু মুসলিমরা সংখ্যালঘু। অথচ মুসলিম জনসংখ্যায় বেশইরভাগ মুসলিম দেশের থেকেই এগিয়ে ভারত। যেমন পাকিস্তান ও ভারতের মুসলিমদের সংখ্যা সমান। কিন্তু শতাংশের হিসাবে ভারতে মুসলিম রয়েছেন ১৪%, এই একই সংখ্যক মুসলিম কিন্তু মোট পাক জনতার ৯৭%।

English summary
Some comparative data to understand the increasing pressure of India's population growth.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X