• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মধ্যপ্রদেশে পদ্ম শিবিরের মধ্যেই এখন কংগ্রেস বনাম বিজেপি দ্বন্দ্ব! শিবরাজের মাথায় হাত

দেশজুড়ে করোনা লকডাউন জারি করার আগেই আমূল পরিবর্তন হয়েছিল মধ্যপ্রদেশের রাজনীতিতে। কংগ্রেসের দীর্ঘদিনের সৈনিক ও সাংসদ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া হাত শিবির ছেড়ে যোগ দিয়েছিলেন পদ্ম শিবিরে। তাঁর সঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তাঁর অনুগামী হিসাবে পরিচিত ২২ জন বিধায়ক। এর জেরে মধ্যপ্রদেশে কমলনাথকে সরিয়ে মসনদে বসেছিলেন শিবরাজ সিং চৌহান।

যেভাবে মসনদে শিবরাজ সিং চৌহান

যেভাবে মসনদে শিবরাজ সিং চৌহান

কংগ্রেসের ২২ জন বিধায়কের ইস্তফার পর বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে শিবরাজের প্রয়োজন ছিল মাত্র ১০৪ বিধায়কের সমর্থন। সেই সংখ্যা বিজেপির কাছেই ছিল। তবে যেভাবে কংগ্রেসকে সমর্থন করা সপা ও বিএসপি বিজেপিকে সমর্থন করতে এগিয়ে আসে তা উল্লেখযোগ্য় বলে মনে করা হচ্ছে।

শিবরাজের মাথাব্যথার কারণ

শিবরাজের মাথাব্যথার কারণ

এবার শিবরাজের মাথাব্যথার কারণ, এই সব বিজেপিকে সমর্থনকারী ও কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া বিধায়কদের মন্ত্রিত্ব দেওয়া। এই অবস্থায় মন্ত্রিসভা সমপ্র্সারণ করতে গেলে তাঁকে সেই সব বিজেপি নেতাদের মন ক্ষুন্ন করতে হবে যারা এদের বিরুদ্ধে হেরেছিলেন।

এই বিজেপি নেতাদের ভবিষ্যৎ কী?

এই বিজেপি নেতাদের ভবিষ্যৎ কী?

তাছাড়াও আরও একটি প্রশ্ন উঠে আসছে, এই হেরে যাওয়া বিজেপি বিধায়কদের তবে দলের মধ্যে ভবিষ্যৎ কী? পরবর্তী নির্বাচনে কি তাদের আদৌ টিকিট দেওয়া হবে বিজেপির তরফে। এই সব প্রশ্নে জেরবার শিবরাজ এখন উভয় সংকটে পড়েছেন।

সব দিকেই রাস্তা খোলা

সব দিকেই রাস্তা খোলা

ইতিমধ্যেই বিজেপির সেই হেরে যাওয়া নেতারা সংমাদ মাধ্যমের সামনে মুখ খুলতে শুরু করেছেন। তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন মধ্যপ্রদেশের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী কৈলাস যোশীর ছেলে দীপক যোশী। তিনি স্পষঅট বলেন, 'দলকে ভাবতে হবে যে আমার রৈজনিতিক কেরিয়ার নিয়ে তারা কী ভাবছে। নয়ত আমার সব দিকেই রাস্তা খোলা।' প্রসঙ্গত গত লোকসভা নির্বাচনে জিতে শিবরাজের ক্যাবিনেটে মন্ত্রী ছিলেন দীপক।

কংগ্রেসের চাল

কংগ্রেসের চাল

এদিকে কংগ্রেস এই ক্ষুব্ধ বিজেপি নেতাদের নিজেদের দলে টানার চেষ্টা করছে। এই ২২টি আসন ছাড়াও আরও কয়েকটি আসনে উপনির্বাচন হবে মধ্যপ্রদেশে। অবশ্যই কোভিডের প্রকোপ থামলে সেটি হবে। তবে কংগ্রেস ঘুঁটি সাজাতে শুরু করেছে। অনেক বিজেপি নেতাকেই তারা টিকিট দিতে চেয়েছে। যদিও কংগ্রেসের টিকিটে লড়াই করার বিষয়ে এখনও মুখ খোলেনি কেউ। তবে এই সব খবরে এখন অস্বস্তি বেড়েছে শিবরাজের।

বাংলার মানুষদের ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে টুইট করে দায়িত্ব সেরেছেন, পার্থকে তোপ দিলীপের

English summary
Shivraj singh chauhan undecided as bjp workers unhappy with congress rebels in the party in madhya pradesh
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X