• search

অর্ণব গোস্বামীর 'মিথ্যে' ফাঁস করলেন রাজদীপ সরদেশাই, টুইটারে সরগরম সাংবাদিক তরজা

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    টুইটারে প্রাক্তন সহকর্মীর বিরুদ্ধে বিষ উগরে দিলেন ভারতীয় সংবাদমাধ্যম অন্যতম প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিক রাজদীপ সরদেশাই। আর 'মিথ্যে' তিনি ফাঁস করলেন, তিনি হলেন আরেক স্বনামধন্য় সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামী। টুইটারে রাজদীপের দাবি, গুজরাট দাঙ্গা নিয়ে মিথ্যে কথা বলেছেন অর্ণব, কারণ তিনি গুজরাট দাঙ্গা কভার করতে যাননি।

    এখানেই থেমে থাকেননি রাজদীপ সরদশাই। পরের টুইটে অর্ণবকে আক্রমণ করে তিনি বলেছেন, 'ফেকুগিরির' একটা সীমা থাকে, এই সব থেকে সাংবাদিকতা পেশার প্রতি করুণা হচ্ছে।

    গুজরাট দাঙ্গা নিয়ে কী বলেছিলেন রিপাব্লিক টিভির এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামী।
    একটি ভিডিওতে তিনি বলছেন, ২০০২ সালে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাড়ির মাত্র ৫০ মিটার দুরেই আমাদের গাড়ি থামিয়ে দেওয়া হয়। হাতে ত্রিশুল নিয়ে আমাদের ঘিরে ধরে বেশ কয়েকজন। গাড়ি কাচ ভেঙে দেওয়া হয়। আমাদের ধর্ম জানতে চায় তারা। আমরা জানাই, আমরা সকলেই সাংবাদিক। কিন্তু তাতেও তাদের থামানো যায়নি। সেসময় আমাদের গাড়িতে কেউ সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছিল না। আমরা প্রেসকার্ড দেখাই। কিন্তু আমাদের গাড়িচালকের কাছে পরিচয়পত্র ছিল না। আমি গাড়ির সামনে সিটে বসে তার ফ্যাকাসে হওয়া মুখটা লক্ষ্য করছিলাম। কিন্তু তার হাতে হিন্দু ধর্মের কোনও দেবদেবীর ছবি দেওয়া ট্যাটু ছিল। সেটা দেখাতেই তারা চলে যায়। এই ভিডিওটি পরে ইউটিউব থেকে মুছে ফেলা হয়। 

    রাজদীপ সরদেশাইয়ের দাবি, এই ঘটনা একেবারেই সত্যি, কিন্তু ঘটনাটি অর্ণবের সঙ্গে হয়নি বরং খোদ রাজদীপের সঙ্গেই হয়েছে। টুইটারে তা জানিয়েছেন, সেইসময় গাড়িতে উপস্থিত থাকা সাংবাদিক নলিন মেহতা। আরও এক সাংবাদিক সঞ্জীব সিংও টুইটারে রাজদীপকে সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, অর্ণব ২০০২ সালে গুজরাটে ছিলেনই না।

    রাজদীপের এই অভিযোগের কোনও জবাব অর্ণবের পক্ষ থেকে পাওয়া যায়নি। উল্লেখ্য, রাজদীপ সরদেশাই ও অর্ণব গোস্বামী এনডিটিভিতে থাকাকালীন সহকর্মী ছিলেন।

    English summary
    Rajdeep Sardesai spits venom about Arnab Goswami after the latter claims of attack on his car during Gujrat riots, Arnab never covered Gujrat riots, claims Sardesai.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more