• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

নেতাজির মৃত্যু নিয়ে রাহুলের বিতর্কিত টুইট! ক্ষোভে ফেটে পড়ছে বসু পরিবার থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায়

নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২২ তম জন্মদিনে এক বেনজির বিতর্ক ঘিরে সোচ্চার সোশ্যাল মিডিয়া। কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী তথা কংগ্রেস পার্টির তরফে একটি টুইট ঘিরে রীতিমত ক্ষোভ উগড়ে আসছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছে বসু পরিবারও।

রাহুলের টুইট

এদিন , নেতাজির ১২২ তম জন্ম উপলক্ষ্যে সারা দেশ যখন উদযাপনে ব্যস্ত, সেই সময়ে কংগ্রেসে প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধীর টুইট ঘিরে শুরু হয় বিতর্ক। টুইটে রাহুল দেশ বরেণ্য নেতাজির জন্ম তারিখ উল্লেখের সঙ্গে সঙ্গে তাঁর মৃত্যুর তারিখও উল্লেখ করেছেন। আর সেই মৃত্যুর তারিখ উল্লেখ ঘিরেই জমাট বেঁধেছে ক্ষোভ।

 টুইটে উল্লেখিত মৃত্যুর দিন

টুইটে উল্লেখিত মৃত্যুর দিন

নেতাজিকে নিয়ে কংগ্রেস পার্টি ও রাহুলের টুইটে উল্লেখিত রয়েছে ১৮ অগাস্ট ১৯৪৫ সালে মৃত্যু হয়েছে নেতাজির। যেখানে গোটা বিষয়টিই এখনও রয়েছে রহস্যের জালে। নেতাজির মৃত্যু নিয়ে বহু তদন্ত কমিশন গঠন হলেও রহস্যে ভেদ করে উঠে আসেনি কোনও নির্দিষ্ট উত্তর।

ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছে বসু পরিবার

ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছে বসু পরিবার

রাহুল ও কংগ্রেস পার্টির তরফে এই টুইট নিয়ে ক্ষুব্ধ নেতাজির পরিবার। বসু পরিবারের দাবি বিষয়টি নিয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চান কংগ্রে প্রেসিডেন্ট। এই বিষয়ে এক সর্বভারতীয় প্রথম সারির সংবাদপত্রকে চন্দ্র বসু জানান, রাহুল যেন তাঁর টুইট তুলে নেন।

রাজ্য কংগ্রেসের দাবি

রাজ্য কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়েছে গোটা টুইটটি ভুলবশত করা হয়েছে। উল্লেখ্য, রাহুল গান্ধীর টুইটে নেতাজির মৃত্যু নিয়ে যে দিনটির উল্লেখ হয়েছে, সেই দিনটিকে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে নেতাজির মৃত্যু দিন হিসাবে উল্লেখ করেন জওহরলাল নেহরু।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ

নেতাজির মৃত্যু নিয়ে রাহুল গান্ধীর টুইট ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রেমই জমাট বাঁধছে ক্ষোভ। একাধিক পোস্ট-এ এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকেই।

English summary
Rahul Gandhi tweet on Netaji subhash chandra bose sparkes controversy.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X