• search

দুধ আর মার্সিডিজ গাড়ি সমান দরে মেলে না, জিএসটির 'জটিলতা' নিয়ে আর যা যা বললেন মোদী

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    জিএসটি ব্যবস্থায় বিভিন্ন পন্যকে আলাদা আলাদা কর স্ল্যাবে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। তাই চালুর এক বছর পরেও বিরোধীদের অভিযোগ এই কর ব্যবস্থা 'খুবই জটিল'। সব পন্যকে একই স্য়াবে আনতে হবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানালেন তা সম্ভব নয়। তাঁর পাল্টা প্রশ্ন, 'দুধ আর মার্সিডিজ গাড়ি কি আমরা সমান দরে পাই?'

    দুধ আর মার্সিডিজ গাড়ি সমান দরে মেলে না

    জিএসটি-র বর্ষপূর্তিতে এক সাক্ষাতকারে প্রধানমনত্রী বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে দাবি করেছেন, এই কর ব্যবস্থা জটিল তো নয়ই, বরং শুল্ক কর, পরিষেবা করের মতো কেন্দ্রীয় সরকারের লেভি ও ভ্যাট-এর মতো রাজ্য সরকারি করগুলিকে এক জায়গায় এনে দেশের কর ব্যবস্থাকে সরলতর করেছে। তাঁর দাবি এর ফলে দেশ 'ইনস্পেক্টররাজ'-এর খপ্পর মুক্ত হয়েছে।

    গত ১ বছরে ৪৮ লক্ষ নতুন এন্টারপ্রাইজ নথিভুক্ত হয়েছে এবং ১১ কোটি রিটার্ণ ফাইল হয়েছে। নয়া কর ব্যবস্থা জটিল হলে এই ছবি দেখা যেত না বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। তবে তাঁর মতে সবচেয়ে উপকৃত হয়েছে লজিস্টিকস বা সরবরাহ শিল্প। তিনি জানান, এখন আর কোনও রাজ্যের সীমানা পেরোতে গেলে সরবরাহের ট্রাকগুলিকে চেকপয়েন্টে দাঁড়াতে হয় না। এতে যেমন সময় বাঁচে, তেমন অনেক অর্থও বাঁচে। যার ফলে দেশের উৎপাদন বেড়েছে বলে দাবি করেন নরেন্দ্র মোদী।

    তবে জিএসটি লাগু করায় কিছু কিছু সমস্যা যে হয়েছে সেকথাও মেনে নিয়েছেন তিনি। তবে সেই সঙ্গে এও জানিয়েছেন যে সেসব সমস্যা এড়ানো যেত না। ভারতের মতো বিরাট দেশের মোট ১৭টি কর ও ২৩টি সেসকে ১টি একক করে রূপান্তরিত করা হয়েছে। কাজেই কিছু সমস্যা থাকবেই। তবে তিনি জানান জিএসটি একটি বিবর্তনশীল ব্যবস্থা। রাজ্যা সরকার ও জনগণের মতামতের ভিত্তিতে কর্মান্বয়ে এতে বদল এনে এই কর ব্যবস্থাকে নিখুঁত করে তোলা হচ্ছে, কাজেই এখনও যে সমস্যাগুলি রয়ে গিয়েছে, তাও আগামী দিনে মিটে যাবে বলে জানিয়ে দেন নরেন্দ্র মোদী।

    English summary
    The Prime Minister Narendra Modi dismissed opposition's allegations that the GST policy is too complex, rather he thought it made the indirect taxation simple.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more