• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

পেট্রোলের দাম বাড়ছে, বিকল্প জ্বালানি-যানবাহনে ২৬ হাজার কোটির বিনিয়োগ কেন্দ্রের

Google Oneindia Bengali News

দেশে সেঞ্চুরি পার করেছে পেট্রোল। সেঞ্চুরির দোর গোড়ায় ডিজেল৷ বিজেপি বিরোধিরা লাগাতার এই ইস্যুতে মোদী সরকারকে বিঁধছে৷ এবার পেট্রোল ডিজেলের বিকল্প জ্বালানি-যানবাহনে বড় অঙ্কের বিনিয়োগ করছে ভারত সরকার৷ দেশে বৈদ্যুতিক যানবাহন এবং হাইড্রোজেন জ্বালানি সেল যানবাহনকে এগিয়ে নিয়ে আসার জন্য, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা বুধবার অটোমোবাইল সেক্টরের জন্য ২৬ হাজার কোটি টাকার প্রোডাকশন লিঙ্কড ইনিসিয়েটিভ (পিএলআই) প্রকল্প অনুমোদন করেছে। যদিও আগে এই PLI স্কিমের জন্য ব্যয় ৫৭,০৪৩ কোটি টাকা ছিল৷ সেখান থেকে বরাদ্দ কমানোই হয়েছে। উন্নত স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তির উপর জোর দেওয়ার জন্যই এই প্রজোক্টটিকে সংশোধন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। স্বাভাবিকভাবেই পেট্রোল, ডিজেল এবং সিএনজি গাড়ির নির্মাতারা এই প্রকল্পের আওতায় পড়বেন না।

পেট্রোলের দাম বাড়ছে, বিকল্প জ্বালানি-যানবাহনে ২৬ হাজার কোটির বিনিয়োগ কেন্দ্রের

সদ্য ঘোষিত পিএলআই প্রোজেক্টটি ২০২৩ থেকে থেকে পাঁচ বছরের জন্য কার্যকর হবে। এবং ২০১৯-২০ কে ভিত্তি বছর ধরে এই প্রোজেক্টের অর্থ বিনিয়োগ করা হবে সংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলিতে। মোট ১০ টি গাড়ি নির্মাতা, ৫০ টি যন্ত্রাংশ প্রস্তুতকারী এবং পাঁচটি নতুন নন-অটোমোটিভ বিনিয়োগকারী এই প্রকল্প থেকে উপকৃত হবেন।

বিকল্প শক্তি পরিচালিত যানবাহন সেক্টরে সম্প্রতি কেন্দ্রের এই বড় অঙ্কের অর্থ অনুমোদন ও পিএলআই প্রকল্প সম্পর্কে, ডেলোইট ইন্ডিয়ার পার্টনার সৌরভ কাঞ্চন বলেন, 'নতুন পণ্য যেমন বৈদ্যুতিক যানবাহন এবং বিকল্প জ্বালানির পাশাপাশি ADAS, ABS এবং AT এর মতো উন্নত প্রযুক্তিকে উৎসাহিত করার জন্য কেন্দ্রের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানাই। সরকারের এই প্রকল্প কোম্পানিগুলিকে স্থানীয়করণ এবং বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। এর ফলে ক্রেতাদের নিরাপত্তা এবং ব্যবহারের অভিজ্ঞতা বাড়বে। সরকারের এই প্রকল্পের দৃষ্টিভঙ্গি ভারসাম্যপূর্ণ বলেই মনে হচ্ছে। যদিও PLI প্রকল্পের ঘোষণার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে প্রত্যাশিত ব্যয়ই শিল্পের অভিমুখ নির্ধারণ করবে।'

বিকল্প-শক্তি পরিচালিত গাড়ির যন্ত্রাংশ তৈরিতে পিএলআই স্কিমের আওতায় মোট ২২ টি উপাদান থাকবে - ফ্লেক্স ফুয়েল কিট, হাইড্রোজেন ফুয়েল সেল, হাইব্রিড এনার্জি স্টোরেজ সিস্টেম এবং চার্জিং পোর্ট, ড্রাইভ ট্রেন, ইলেকট্রিক ভ্যাকুয়াম পাম্প এবং ইলেকট্রিক কম্প্রেসার সহ বৈদ্যুতিক যানবাহনের যন্ত্রাংশ। পাশাপাশি সানরুফ এবং ইলেকট্রনিক স্থায়িত্ব নিয়ন্ত্রণের বিষয়গুলিও এরই মধ্যে থাকবে। রিপোর্ট অনুযায়ী, মূল যন্ত্রপাতি নির্মাতা (OEM) এবং অটো কম্পোনেন্ট নির্মাতাদের পাশাপাশি নতুন নন-অটোমোটিভ বিনিয়োগকারীদের জন্য নির্ধারিত বিক্রয় মূল্যের সীমা ৮ থেকে ১০ শতাংশের মধ্যে থাকবে।

প্রিয়াঙ্কার বিরুদ্ধে বিধি ভঙ্গের অভিযোগ, শোকজ করল নির্বাচন কমিশন

English summary
Petrol has crossed hundred in the country. Diesel going to touch that, Opponents of the BJP are constantly harassing the Modi government on this issue. This time the Indian government is investing heavily in alternative fuel-vehicles
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X