• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সরকারের বিরুদ্ধতা মানেই দেশদ্রোহিতা নয়, ফারুখ মামলায় ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিম কোর্টের

  • |

এদিকে যখন টুলকিট কাণ্ডে দিশা রবির বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছে দিল্লি পুলিশ তথন অন্যদিকে ফারুখ আবদুল্লার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে খারিজ করে বাক স্বাধীনতার পক্ষে জোরালো সওয়াল করল সুপ্রিম কোর্ট। একইসঙ্গে সরকারের মতের সঙ্গে মতের পার্থক্য থাকলেই তাকে 'দেশদ্রোহ’ বলা যায় না বলেও সাফ জানালো শীর্ষ আদালত।

 সরকারি সিদ্ধান্তের বিরোধীতা মানেই দেশদ্রোহিতা নয়, রায় সুপ্রিম কোর্টের

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, খানিক সাম্প্রতিক ইতিহাসের পাতায় চোখ রাখলেই আমরা দেখতে পাই মোদী জমানায় একাধিক শিক্ষক, ছাত্র, সমাজকর্মীর বিরুদ্ধে লাগাতার দেশদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছে সরকার। এমনকী উপযুক্ত প্রমাণ ছাড়াই এই ধরণের গুরুতর অভিযোগ আমায় প্রশ্ন উঠেছে সরকারের ভূমিকা নিয়েও। এমনকী এই ইস্যুতে একাধিকবার সরবও হয়েছে বিরোধীরা। কিন্তু তারপরেও যে চিত্র বিশেষ বদলেছে এমনটা নয়। এমতাবস্থায় সুপ্রিম কোর্টের রায়ে কেন্দ্রের উপর যে চাপ খানিক বাড়বে তা বলাই বাহুল্য।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল করার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিবৃতি দিয়েছিলেন উপত্যকার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা, মেহবুবা মুফতিরা। তখনই ফারুখের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দায়ের করেন দুই ব্যক্তি। সেই মামলারই শুনানিতেই আজ এই বর্ষীয়ান ন্যাশনাল কনফারেন্স (এনসি) নেতার পক্ষে এই রায় দেয় শীর্ষ আদালত।

সূত্রের খবর, সুপ্রিম কোর্টে ফারুকের বিরুদ্ধে আবেদন করেছিলেন রজত শর্মা এবং নেহ শ্রীবাস্তব নামে জুই ব্যক্তি। তাঁদের দাবি, সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা খারিজ করা প্রসঙ্গে ভারত সরকারের বিরুদ্ধে গিয়ে চিন এবং পাকিস্তানের সাহায্য নিয়েছেন ফারুক। আবেদনকারীদের বক্তব্য,'ফারুক আবদুল্লাহ দেশদ্রোহী। তিনি সাংসদ হিসেবে থাকলে তা দেশদ্রোহী কাজকর্মে উৎসাহ দেওয়ার সামিল হবে। কিন্তু এই দাবি এদিন কার্যত খারিজ করে দেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা।

এদিকে ৮৩ বছরের আবদুল্লাহ আবার বর্তমানে ন্যাশনাল কনফারেন্সের সাংসদ হিসাবেও কাজ করছেন। এদিকে পিটিশনটি খারিজ করার পাশাপাশি দুই অভিযোগকারীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। শীর্ষ আদালতের সাফ বক্তব্য, 'সরকারের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ কখনওই দেশদ্রোহ হিসেবে চিহ্নিত হতে পারে না।' আদালত জানিয়েছে, ফারুকের বিরুদ্ধে নিজেদের দাবি প্রতিষ্ঠা করতে ব্যর্থ হয়েছেন আবেদনকারীরা, তাই এই আবেদন সর্বত ভাবে খারিজ করা হল।

English summary
Opposition to the government does not mean seditious Supreme Court verdict on Farooq Abdullah case
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X