• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কপালে সিঁদুর, হাতে চুড়া পরে নুসরত বলছেন এখনও তিনি মুসলমান, ফতোয়ার মুখে জবাব

সিন্দুর আর মঙ্গলসূত্র পরে সংসদে শপথ গ্রহণ করেছেন নববিবাহিতা সাংসদ নুসরত জাহান। বিতর্কের সূত্রপাত তখন থেকেই। সমালোচনার শিকার তো হয়েছনই, ফতোয়াও জারি করা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। প্রশ্ন উঠেছে, কেন জৈন ছেলেকে বিয়ে করেছেন তিনি। এবার সেই সমালোচনার কঠোর জবাব দিলেন নুসরত জাহান।

ফতোয়ার মুখে জবাব নুসরতের- তিনি মুসলমান

নুসরত টুইটারে লিখেছেন, 'আমি ঐক্যবদ্ধ ভারতের প্রতিনিধি। সেখানে কোন জাতি বা ধর্মের বাধা নেই। আমি সব ধর্মকেই সম্মান করি। এদিন মুসলিম ধর্মগুরুরা প্রশ্ন তোলেন, সিন্দুর পরে নুসরত নিজেকে হিন্দু প্রমাণ করার চেষ্টা করছেন। তার জবাবে নুসরত জানান, 'আমি এখনও একজন মুসলিম। তবে সব ধর্মকেই সম্মান করি।

নুসরতের কথায়, আমি কি পরব, তা নিয়ে কারও মন্তব্য করা উচিত নয়। বিশ্বাস তো পরিধানের ঊর্ধ্বে। নুসরত সাংসদ হওয়ার পরই বিয়ে র পিঁড়িতে বসেন। তার ফলে শপথও নিতে পারেননি প্রথম দিনে। পরে তিনি সংসদে যোগ দিয়ে শপথ নেন। সেদিন বেগুনি পাড় শাড়িতে লোকসভায় যান। কপালে সিন্দুর, হাতে চূড়া, গলায় মঙ্গলসূত্র। হিন্দু বধূর সাজে তিনি ঝরঝরে বাংলায় শপথ নেন সংসদে।

এদিন নিজের নামের শেষে হিন্দু স্বামীর পদবী ব্যবহার করেন। তা নিয়েও নিশানা করা হয় নুসরতকে। রাজনীতিতে আসার পর থেকেই ট্রোল ও বিতর্ক জেরবার হয়ে পড়েন নুসরত জাহান। প্রায় তিন লাখেরও বেশি ভোটে জয়ী হন তিনি। তারপর বিতর্কের শেষ হচ্ছে না। এখন আবার ফতোয়া জারিও হয়ে গেল।

English summary
Nusrat gives reply of fatwa that’s getting after oath as Hindu bride. She got married to Jain groom.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X