• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

অযোধ্যা মন্দির নিয়ে নতুন ট্রাস্টের দরকার নেই, দাবি রাম জন্মভূমি ন্যাসের সভাপতির

অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে নতুন করে কোনও ট্রাস্ট গঠনের দরকার নেই বলে মন্তব্য করলেন রাম জন্মভূমি ন্যাসের সভাপতি মহন্ত নৃত্য গোপাল দাস। এই বিষয়ে তিনি বলেন, "ইতিমধ্যেই রাম জন্মভূমি ন্যাস সংগঠনটি রয়েছে। তবে নতুন করে এই বিষয়ে আর ট্রাস্ট গঠন করার কী দরকার? আমরাই পুরো বিষয়টাকে রূপ দিতে সমর্থ। প্রয়োজন মত আমাদের ট্রাস্টেই নতুন লোককে যোগ করে দেওয়া যেতে পারে।"

ট্রাস্টে যেন থাকেন রাম জন্মভূমি ন্যাসের সদস্য

ট্রাস্টে যেন থাকেন রাম জন্মভূমি ন্যাসের সদস্য

পাশাপাশি তিনি বলেন, "কেন্দ্রীয় সরকারের উপর দায়িত্ব বর্তিয়েছে এই ট্রাস্ট গঠন করার। তবে আমাদের দাবি যে এই ট্রাস্টে রাম জন্মভূমি ন্যাসের সদস্য অবশ্যই থাকা উচিত।" এদিকে নির্মোহী অখাড়াও সরকারের তৈরি করা ট্রাস্টে যাওয়ার বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করতে হবে বলে মত। কারণ তারা নিজেরাও একটি ট্রাস্ট।

ত্রিলোকিনাথ পান্ডের বক্তব্য

ত্রিলোকিনাথ পান্ডের বক্তব্য

এদিকে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ত্রিলোকি নাথ পান্ডে, যিনি আদালতে রামলালার হয়ে মামলাটি করেন, তাঁর বক্তব্য, "এই ট্রাস্টটি সরকারের দ্বারা গঠন করা উচিত। এবং এতে সরকারের লোকেদের থাকা উচিত।" পাশাপাশি মহন্ত নৃত্য গোপালকে সরকারি ট্রাস্টের সভাপতির পদ দেওয়ার পক্ষেও সওয়াল রেন ত্রিলোকিনাথ। এছাড়া ত্রিলোকিনাথের দাবি, "ট্রাস্ট গঠনের পরে মন্দির নির্মাণের জন্য হিন্দুদের থেকে টাকা তুলে কাজ শুরু করা উচিত। সরকারের টাকা দিয়ে যেন এই মন্দির না গড়া হয়।"

অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরি করা নিয়ে তিনমাসের মধ্যে ট্রাস্ট গঠন করা হবে, এ কথা আগেই জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সূত্রএর খবর, এই বিষয়ে কেন্দ্র একটি বিল নিয়ে আসার চিন্তাভাবনা করছে। যেটি ট্রাস্টকে অযোধ্যার ২.‌৭৭ একর জমিতে রাম মন্দির নির্মাণের তদারকি করতে আইনি সহায়তা করবে। গত ৯ নভেম্বরই সুপ্রিম কোর্ট রাম মন্দিরের পক্ষে রায় দিয়েছে।

ট্রাস্টের জন্য শীতকালীন অধিবেশনেই বিল

ট্রাস্টের জন্য শীতকালীন অধিবেশনেই বিল

১৮ নভেম্বর সংসদে শীতকালীন অধিবেশন শুরু হবে। সেখানেই এই আইনটিকে চালু করার কথা জানানো হবে। সরকারি আধিকারিক এ প্রসঙ্গে বলেন, '"এই বিষয় নিয়ে উচ্চপর্যায়ের আলোচনা হয়ে গিয়েছে এবং এটা নিয়ে কারোর কোনও সমস্যা নেই।"‌ প্রস্তাবিত আইনটি ট্রাস্টের কাজ এবং দায়িত্ব বুঝিয়ে দেবে বলে জানান ওই আধিকারিক। কেন্দ্র সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতই রাম মন্দিরের পাশেই ৫ একর জমি সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে মসজিদ তৈরি করার জন্য দেবে। আইনী সমর্থন এই পদক্ষেপকে আরও জোরদার করবে। ১,০৪৫ পাতার রায়ে সাংবিধানিক বেঞ্চের পাঁচ বিচারপতি বলেন, '"রায় ঘোষণার তিনমাসের মধ্যে কেন্দ্রকে রাম মন্দিরের জন্য ট্রাস্ট গঠন করতে হবে।"

দায়িত্ব পাবে সংস্কৃতি মন্ত্রক

দায়িত্ব পাবে সংস্কৃতি মন্ত্রক

যদিও এখনও বিষয়টি আলোচনার স্তরে রয়েছে, তবে জানা গিয়েছে যে সম্ভাবনা রয়েছে সংস্কৃতি মন্ত্রকে এই আইনটি কার্যকর করার এবং পরবর্তীকালে প্রস্তাবিত আইন অনুসারে ট্রাস্ট গঠনের দায়িত্ব অর্পণ করা হবে মন্ত্রককে।‌

অযোধ্যা মন্দির ট্রাস্টের জন্য শীতকালীন অধিবেশনেই বিল নিয়ে আসছে কেন্দ্র

English summary
no need for new trust to build ram mandir in ayodhya claims janmabhoomi nyas chief
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X