• search

পণপ্রথার অভিযোগের সত্যতা যাচাই না করে কোনও গ্রেফতারি নয়, জানাল শীর্ষ আদালত

  • By Sritama Mitra
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    পণপ্রথা ইস্যুতে নয়া নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের। দেশের শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, যতক্ষণ না পর্যন্ত অভিযোগের সত্যতা যাচাই হচ্ছে , ততক্ষণ পর্যন্ত পণ বিরোধী আইনের আওতায় কোনও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা যাবে না।

    দাম্পত্য কলহের জেরে বহু মহিলাই আইপিসি ৪৯৮A কে অন্যায্য পদ্ধতিতে ব্যবহার করে। ফলে দেখা যায়, অনেক সময়ই এই ধারায় অভিযুক্ত হয়ে আটক হতে হয়েছে স্বামী সহ মহিলার শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে। সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি ইউইউ ললিত ও এ কে গোয়েলের বেঞ্চ এবিষয়ে তথ্য প্রমাণের ওপর জোর দিয়েই গ্রেফতারির কথা বলেছে।

    পণপ্রথার অভিযোগের সত্যতা যাচাই না করে কোনও গ্রেফতারি নয়, জানাল শীর্ষ আদালত

    নির্দেশে জানানো হয়েছে, এই ধরনের মামলায় প্রণপ্রথার শিকার মহিলার বয়ানের ওপরেই একমাত্র ভরসা করা উচিত নয়। দেশের সমস্ত রাজ্য়ের সব কটি জেলায় এবিষয়ে পরিবার কল্যাণ কমিটি গড়ার কথা বলা হয়েছে দেশের শীর্ষ আদালতের নির্দেশে। এই কমিটি এলাকার বিভিন্ন পরিবার সংক্রান্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখবে বলে জানানো হয়েছে।

    পণপ্রথার অভিযোগের সত্যতা যাচাই না করে কোনও গ্রেফতারি নয়, জানাল শীর্ষ আদালত

    গোটা বিষয়ে নির্দোষের মানবাধিকার রক্ষা যাতে হয় , সে বিষয়ে সচেষ্ট হতেই এই পদক্ষেপ। আদালত জানিয়েছে, পণপ্রথার সঙ্গে জড়িত সমস্ত বিষয়ে পরিবার কল্যাণ কমিটির কাছে পাঠিয়ে দিতে হবে পুলিশ অথবা ম্যাজিস্ট্রেটকে। কমিটি পরিবারের সঙ্গে কথা বলে যতক্ষণ না তার রিপোর্ট পুলিশের কাছে দিচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত কিছুতেই অভিযুক্ত স্বামী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নিতে পারবে না পুলিশ।

    English summary
    Expressing concern over disgruntled wives misusing the anti-dowry law against their husbands and in-laws, the Supreme Court on Thursday directed that no arrest or coercive action should be taken on such complaints without ascertaining the veracity of allegations.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more