• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামলার ছক কষছেন দাউদ! পাক-যোগের চাঞ্চল্যকর তথ্য এনআইএ-র হাতে

  • |
Google Oneindia Bengali News

ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামলার ছক কষা হচ্ছে ফের। এনআইএ এই সতর্কবার্তা আগেই করেছিল এনআইএ। এবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে উঠে এল আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য। এবার সন্ত্রাসবাদী হামলার ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে নাম জড়াল দাউদ ইব্রাহিমের। তদন্তে প্রকাশ, পাকিস্তানের হাত ঘুরে টাকা আসছে মুম্বই ও সুরাটে।

পাকিস্তান থেকে দুবাই হয়ে আসছে টাকা

পাকিস্তান থেকে দুবাই হয়ে আসছে টাকা

সম্প্রতি একটি চার্জশিট জমা দিয়েছে এনআইএ। সেই চার্জশিটে নাম রয়েছে দাউদ ইব্রাহিম থেকে শুরু করে তাঁর সহযোগী ছোটা শাকিল, মহম্মদ সালিম কুরেশি-সহ আরও দুই সদস্যের। এনআইএ চার্জশিটে দাবি করেছে, সন্ত্রাস ছড়ানোর জন্য মুম্বই, সুরাট-সহ বিভিন্ন শহরে টাকা ছড়ানো হচ্ছে। পাকিস্তান থেকে দুবাই হয়ে ওই টাকা আসছে বলে জানতে পেরেছে এনআইএ।

এপ্রিল মাস থেকে টাকা আসার প্রক্রিয়া শুরু

এপ্রিল মাস থেকে টাকা আসার প্রক্রিয়া শুরু

এনআইএ-র রিপোর্টে প্রকাশ প্রথম দফায় ২৫ লক্ষ টাকা এসেছে মুম্বই ও সুরাটের জঙ্গি গোষ্ঠীর নেটওয়ার্ক অপারেটরদের কাছে। এ বছরের এপ্রিল মাস থেকে টাকা আসার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এনআইএ-র কাছে তথ্য আছে সুরাট ও মুম্বইয়ের দুই জঙ্গ নেটওয়ার্কের অপারেটর সাব্বির শেখ ও আরিফ শেখের কাছে ২৫ লক্ষ টাকা পৌঁছে গিয়েছে হাওয়ালা মারফৎ।

হাওয়ালার মারফৎ ১২-১৩ কোটি টাকা

হাওয়ালার মারফৎ ১২-১৩ কোটি টাকা

এনআইএ-র তদন্তকারীরা বলেছেন, হাওয়ালার মারফৎ ১২-১৩ কোটি টাকা পাঠিয়েছে দাউদ। দাউদের ডি-কোম্পানি সন্ত্রাসমূলক কাজ চালাচ্ছে। কোটি কোটি টাকা অনুদান দিচ্ছে। তদন্তে আরও জানা গিয়েছে, পাকিস্তানের ডি-কোম্পানি থেকে প্রথমে দুবাইয়ের রশিদ মারফানির কাছে টাকা পৌঁছয়। রশিদ তার নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সেই টাকা ভারতে পৌঁছে দেয়।

দাউদ ও তাঁর সঙ্গীদের বিরুদ্ধে নতুন করে মামলা

দাউদ ও তাঁর সঙ্গীদের বিরুদ্ধে নতুন করে মামলা

সম্প্রতি দাউদ ও তাঁর সঙ্গীদের বিরুদ্ধে নতুন করে মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে এনআইএ। তাদের অভিযোগ, পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই এবং নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে দেশের রাজনৈতিক নেতা, ব্যবসায়ীদের নিশানা করছে ডাউদের ডি-কোম্পানি। এনআইএ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দাউদ ও তার সঙ্গীরা আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈবা ও জইশ-ই-মহম্মদ, এমনকী আল কায়েদার সঙ্গে হাত মিলিয়ে কাজ করছে।

ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেডের তালিকায় দাউদ

ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেডের তালিকায় দাউদ

১৯৯৩ সালে মুম্বইয়ে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন দাউদ ইব্রাহিম। তারপর থেকেই ভারতের মোস্ট ওয়ান্টেডের তালিকায় চলে যান তিনি। পরবর্তীকালে তাঁকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী বলেও ঘোষণা করা হয়েছে। এরপর দাউদ পাকিস্তানে আশ্রয় নিয়েছেন বলেও অভিযোগ ওঠে। কিন্তু পাকিস্তান কখনই স্বীকার করেণি যে তারা দাউদকে আশ্রয় দিয়েছে। উল্লেখ্য, ১৯৯৩ সালে দাউদের মাথার দাম লক্ষ টাকা ধার্য করেছিল এনআইএ। আর ২০০৩ লালে দাউদের মাথার দাম, ২৫ মিলিয়ন ডলার ধার্য করেছিল রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ, ভারতীয় টাকায় তার মূল্য ২০০ কোটি টাকা।

English summary
NIA reveals that Dawood Ibrahim and his associates planning to attack India and gets Pakistan link
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X