বাবা-ছেলে বিবাদ, উত্তরপ্রদেশে এবার নতুন দল মুলায়মেরও

  • Posted By: OneindiaStaff
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    সোমবারই সম্ভবত নতুন দল ঘোষণা করতে চলেছেন মুলায়ম সিং যাদব। অধুনা বিলুপ্ত লোকদলের সঙ্গে গাঁটছড়া বেধে এই নতুন দল তৈরি হতে যাচ্ছে। নতুন দলে 'সমাজবাদী' নামটিও থাকতে চলেছে বলে সূত্রের খবর।

    [আরও পড়ুন:তৃণমূলের ত্যাগের সিদ্ধান্ত মুকুল রায়ের]

    বাবা-ছেলে বিবাদ, উত্তরপ্রদেশে এবার নতুন দল মূলায়মেরও

    রবিবার ছিল সমাজবাদী পার্টির রাজ্য কনভেনশন। কিন্তু সেই কনভেনশন থেকে দূরে থেকেছেন মূলায়ম যাদব এবং তাঁর ভাই শিবপাল। বছর ২৫ আগে তাঁদের হাতেই গড়ে উঠেছিল এই সমাজবাদী পার্টি। সেই দলের কনভেনশনে নাকি তাঁদের আমন্ত্রণই জানানো হয়নি। লোকদল প্রেসিডেন্ট সুনীল সিং জানিয়েছেন, সোমবার লোহিয়া ট্রাস্ট অফিসে সাংবাদিক সম্মেলন করবেন মুলায়ম। সেখানেই লোকদলের সঙ্গে নতুন দল ঘোষণা করবেন তিনি। নতুন দলে সমাজবাদী নামটিও থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

    সূত্রের খবর, এবছরে বিধানসভা নির্বাচনের আগে লোকদলের ব্যানারে সেকুলার ফ্রন্ট গঠন করতে চেয়েছিলেন দুই ভাই। দলের মধ্যেকার বিরোধ চরমে ওঠায় তা আর হয়ে ওঠেনি।

    বাবা-ছেলে বিবাদ, উত্তরপ্রদেশে এবার নতুন দল মূলায়মেরও

    এর আগে লোহিয়া ট্রাস্টের সেক্রেটারি পদ থেকে অখিলেশ ঘনিষ্ঠ রামগোপালকে সরিয়ে শিবপাল যাদবকে বসান মুলায়ম। এই শিবপালই জুন মাসে সমাজবাদী সেকুলার ফ্রন্ট তৈরির কথা জানিয়েছিলেন।

    সমাজবাদী পার্টির কনভেনশনে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ঘটনা হল, আজম কানের উপস্থিতি এবং দলে বিশ্বাসঘাতকতা নিয়ে অভিযোগ। একসময় শিবপাল যাদবের ঘনিষ্ঠ ছিলেন এই আজম খান। অপর উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি ছিল এসপি এমপি বেণীপ্রসাদ ভর্মা। দলে এই নেতার অন্তর্ভুক্তি নিয়েই পরিবারে বিবাদ চরমে ওঠে।

    সমাজবাদী প্রেসিডেন্ট অখিলেশ যাদব দলের সমর্থকদের ভুয়ো সমাজবাদীদের থেকে সাবধান থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

    English summary
    Mulayam Yadav may announce new party with lokdal. The hint of an imminent split in the SP came Sunday when Mulayam Yadav and his brother Shivpal stayed away from a state convention of the party-which they had founded 25 years ago-saying they were not invited.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more