• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত অধিকাংশ গুজবের খবর ছড়িয়েছে খোদ ভারত থেকে, দাবি সমীক্ষার

করোনা ভাইরাস বা কোভিড–১৯ মহামারি যবে থেকে বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে, তারপর থেকেই তা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য, গুজব, বিকৃত তথ্য ও করোনা নিয়ে ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব ৮৭ টি দেশে ২৫টি ভাষায় ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছে এক সমীক্ষা। এই সমীক্ষার দাবি, অধিকাংশ গুজব ছড়ানোর মূলে রয়েছে ভারত এবং বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়াচ্ছে আমেরিকা, চিন, স্পেন, ইন্দোনেশিয়া ও ব্রাজিলের মতো দেশ।

করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত অধিকাংশ গুজবের খবর ছড়িয়েছে খোদ ভারত থেকে, দাবি সমীক্ষার

এই সমীক্ষা প্রকাশিত হয়েছে আমেরকান জার্নাল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিন অ্যান্ড হাইজিনে সোমবার। বলা হয়েছে, টেক্সট রেটিং উপলব্ধ এমন ২,২৭৬টি রিপোর্টে মধ্যে ১,৮৬৫টি রিপোর্ট (‌৮২ শতাংশ)‌ ভুয়ো বলে দাবি করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত ২,৩১১টি রিপোর্টের মধ্যে ৮৯ শতাংশ গুজব হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ করা হয়েছে, ৭.‌৮ শতাংশ ষড়যন্ত্র তত্ত্ব এবং ৩.‌৫ শতাংশ বিকৃত তথ্য বলে সমীক্ষায় বলা হয়েছে।

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, '‌অসুস্থতা, সংক্রমণ ও মৃত্যু সংক্রান্ত দাবি (‌২৪%‌)‌, নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা নিয়ে (‌২১%‌)‌ দাবি, সংক্রমণ ও নিরাময় সংক্রান্ত (‌১৯%‌)‌ দাবি, রোগের কারণ সহ কোথা থেকে তা এসছে এই দাবি (‌১৫%‌)‌, হিংসাত্মক ঘটনা (‌১%‌)‌ ও বিবিধ দাবি (‌২০%‌)‌ করা হয়।’‌ সমীক্ষায় বলা হয়েছে যে অধিকাংশ ভুয়ো খবরই এসেছে ভারত থেকে এবং ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব ও বিকৃত তথ্যে এসেছে আমেরিকা থেকে বেশি।

৩১ ডিসেম্বর থেকে ৫ এপ্রিলের মধ্যে এই কাজগুলি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া, থাইল্যান্ড ও জাপানের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সমাজ বিজ্ঞানী, চিকিৎসক এবং মহামারি বিশেষজ্ঞদের একটি দল ইনফোডেমিক্স সংগ্রহ ও পর্যালোচনা করেছে। গবেষকরা কোভিড-সম্পর্কিত দাবি এবং প্রতিবেদনগুলি অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলিতে প্রচার হয়েছে, যেমন ফ্যাক্ট-চেকিং এজেন্সি ওয়েবসাইটগুলি, সোশ্যাল মিডিয়া সাইট ফেসবুক এবং টুইটারের পাশাপাশি অনলাইন সংবাদপত্রগুলি এবং জনস্বাস্থ্যের উপর তাদের প্রভাবগুলি নিয়েও পরীক্ষা করে। গরুর গোবর, মূত্রে নিরাময়ের উপায় সহ গুজবগুলি যাচাই না করেই এবং প্রাসঙ্গিক দাবিগুলিকে উপেক্ষা করে তা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও কোনো ব্যক্তির অসুস্থতা, ভ্রমণের ইতিহাস ইত্যাদি বিষয় নিয়েও মানুষের কাছে বিকৃত তথ্য প্রচার করা হচ্ছে, যার জন্য নেতিবাচক ও বৈষম্যমূলক আচরণ সামনে আসছে। তবে এ সবের মধ্যে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর হল কিছু ভুয়ো গুজব। যেমন '‌করোনা ভাইরাস নিরাময়ে গরুর মূত্র ও গোবর খাওয়া, '‌মোবাইল ফোন থেকে করোনার সংক্রমণ’‌ এ ধরনের বাজে গুজব প্রতিরোধ করতে হবে।

11-08-2020 - কোভিড ১৯ আপডেট - বাড়ছে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা

বিশ্বের প্রথম করোনা টিকা স্পুটনিক-ভি বাজারে আনল রাশিয়া, ভ্যাকসিনের ভালো-মন্দ সম্পর্কে জানুন

English summary
most of the rumors about covid have come from india china and america
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X