দেশে হাইওয়ে নির্মাণ প্রকল্পে প্রায় ৭ 'লাখ কোটি' টাকা বরাদ্দ মোদী সরকারের

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    দেশের হাইওয়ে নির্মাণের ক্ষেত্রে বৃহত্তম বিনিয়োগের ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক। প্রায় ৮৩, ৬৭৭ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণের জন্য ৬.৯২ লক্ষ কোটি টাকা ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। এই প্রকল্প ২০২২ সালে শেষ হবে বলেও ঘোষণায় জানানো হয়েছে। গতকাল এক সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির সঙ্গে উপস্থিত থেকে অর্থসচিব অশোক লাভাসা একথা জানান ।

    দেশে হাইওয়ে নির্মাণ প্রকল্পে প্রায় ৭ 'লাখ কোটি' টাকা বরাদ্দ মোদী সরকারের

    মূলত, দেশে অর্থনৈতিক ও উন্নয়নের স্বার্থে ভারতমালা স্কিমের অন্তর্গত হয়ে এই পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র। এই স্কিমের অন্তর্গত হয়ে প্রায় ৩৪, ,৮০০ কিলোমিটার রাস্তা তৈরি করতে ৫.৩৫ লাখ কোটি টাকা হিসাবে খরচ হবে। গোটা দেশে প্রায় ৯,০০০ কিলোমিটার ইকোনমিক করিডর নির্মাণেরও ঘোষণা করা হয়েছে। এই প্রকল্পে ৬,০০০ কিলোমিটার দীর্ঘ করিডর ও ফিডার রুট রাকার প্রস্তাব রয়েছে। এছাড়াও ২০০০ কিলোমিটার সীমান্ত সড়ক যোগাযোগের জন্য় রাস্তা তৈরি হবে। ৮০০, কিলোমিটার থাকছে গ্রিনফিল্ড এক্সপ্রেসওয়ে। আর ১০, ০০০ কিলোমিটার দীর্ঘ জাতীয় হাইওয়েের উন্নয়ন করা হবে।

    অশোক লাভাসা জানিয়েছেন, উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলিতে সড়ক যোগাযোগ আরও উন্নত করতে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে রাস্তা নির্মাণে। বীশেষ করে সীমান্তবর্তী রাজ্যের সঙ্গে যাতে সড়ক যোগাযোগ আরও মজবুক করা যায়, তার ওপরে নজর রেখেছে সরকার।

    English summary
    The government on Tuesday approved the biggest highway construction plan so far in the country, to develop approximately 83,677 km of roads at an investment of Rs 6.92 lakh crore by 2022. The highway construction programme is aimed at pushing economic activity and generating at least 14.2 crore man-days across the country over the next five years.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more