৪ টি বা তার বেশি সন্তানের জন্ম দিলে 'ইনসেন্টিভ' দিচ্ছে এই জায়গার ধর্মীয় স্থান,অর্থমূল্য ৪ হাজার টাকা

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    উত্তরপূর্বের মিজোরাম খ্রীস্টান অধ্যুষিত এলাকা । সেখানের লুঙ্গলেইবাজারের এক স্থানীয় চার্চের তরফ থেকে এসেছে এক নয়া বার্তা। চার্চ জানিয়েছে, যে সমস্ত দম্পতিদের ৪ টি বা তার বেশি সন্তান রয়েছে তাঁরা নগদ ৪০০০ টাকা ও ৫ টি সন্তান থাকলে ৫০০০ টাকা করে 'ইনসেন্টিভ' বা উৎসাহ ব্যাঞ্জক অর্থ পাবেন।

    ৪ টি বা তার বেশি সন্তানের জন্ম দিলে 'ইনসেন্টিভ' দিচ্ছে এই জায়গার ধর্মীয় স্থান, অর্থমূল্য ৪ হাজার টাক

    [আরও পড়ুন:ন্যাপকিনে ১২ শতাংশ জিএসটি, গোয়ালিয়রের মহিলারা 'মনের কথা' পাঠাচ্ছেন মোদীকে ]

    মিজোরাম জুড়ে শিশুদের জন্মের অনুপাত কমে যাওয়ায় তা মিজে উপজাতির জন্য যেমন সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে, তেমনই তা সমস্য়া হয়েছে চার্চ বা খ্রীস্টার ধর্মীয়দের জন্য়। তাই চার্চ চাইছে আরও বেশি সন্তানে জন্মের উৎসাহ দেওয়া হোক এলাকাবাসীদের মধ্যে। উল্লেখ্য, ২০১১ সালের আদমসুমারি বলছে, প্রতি স্কোয়ার কিলোমিটারে ৫২ জনের বসতি। অরুণাচলপ্রদেশের পর এই মিজোরামে রয়েছে সবচেয়ে কম বসতি।

    এদিকে, জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে বহুদিন ধরেই উত্তরপূর্বের নানান চার্চের তরফে থেকে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। অনেক কটি চার্চই এই বিষয়ে মুখ না খুললেও, বা কোনও ঘোষণা না করলেও ২ বা ততোধিক সন্তানের জন্ম দিতে উৎসাহ দিচ্ছে । ২০১৫ সালের সমীক্ষাবলছে মিজোরাম জুড়ে শিশুদের মৃত্যুর হাত অত্যন্ত বেশি। ২০০৬ সাল থেকে এটি আরও বেড়েছে।

    English summary
    A local church in Christian predominant state of Mizoram has announced cash incentives for couples who have four or more babies. The Lunglei Bazar Veng Baptist Church has recently announced Rs 4,000 for the fourth baby, Rs 5000 for the fifth and so on.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more