• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লাদাখ ইস্যুতে ভারতের পাশেই আমেরিকা, বেজিংকে সাফ বার্তা পাঠাতে দিল্লি সফরে পম্পেও-এসপার

লাদাখে ভারত-চিন সীমান্ত বা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর বেশ কিছু জায়গায় ভারতীয় ও চিনা সেনাবাহিনী প্রচুর সংখ্যক সেনা মোতায়েন করে রেখেছে। গত ছয় মাসে দু'বার মুখোমুখি হওয়ার পর দুই দেশের তরফে উত্তেজনা আরও বাড়াতে ও নিজেদের কঠোর অবস্থান বোঝাতে আরও সেনা মোতায়েন করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে ভারতে আসতে চলেছেন মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট। তাঁর সঙ্গে ভারতে আসবেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপার।

লাদাখে চিনা আগ্রাসন নিয়ে আলোচনা

লাদাখে চিনা আগ্রাসন নিয়ে আলোচনা

লাদাখ ইস্যুতে চিনা আগ্রাসন নিয়ে আলোচনা করতে আগামী সপ্তাহে ভারত-মার্কিন বৈঠকে বসতে চলেছে দিল্লি-ওয়াশিংটন। মন্ত্রী পর্যায়ের এই বৈঠকে ভারতের পক্ষ থেকে উপস্থিত থাকবেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। আমেরিকার পক্ষ থেকে বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপার এবং মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট মাইক পম্পেও। এবং এই বৈঠকেই চিনের বিরুদ্ধে দুই দেশের জোটের চূড়ান্ত রূপরেখা তৈরি হবে।

২৬ এবং ২৭ তারিখ এই বৈঠক হবে নয়াদিল্লিতে

২৬ এবং ২৭ তারিখ এই বৈঠক হবে নয়াদিল্লিতে

চলতি মাসের ২৬ এবং ২৭ তারিখ এই বৈঠক হবে নয়াদিল্লিতে। এই লক্ষ্যে ২৬ তারিখ দিল্লিতে পৌঁছাবেন মার্ক এসপার এবং মাইক পম্পেও। এই বৈঠকে একটি 'বেসিক এক্সচেঞ্জ কো-অপারেশন অ্যাগ্রিমেন্ট'-এ সই করবে দুই দেশের মন্ত্রীরা। এছাড়া লাদাখে এবং দক্ষিণ চিন সাগরে বেজিংয়ের গতিবিধি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আদান প্রদান করার ক্ষেত্রে একটি সমঝোতা আসতে চলেছে দুই দেশ।

চিনের বিরুদ্ধে বিশ্ব জনমত

চিনের বিরুদ্ধে বিশ্ব জনমত

চিনা সেনার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ভারতের মতো বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সহযোগী হওয়ার বার্তা আগের থেকেই দিয়ে রেখেছিলেন মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট মাইক পম্পেও। সেই লক্ষ্যেই কয়েকদিন আগেই কোয়াডের বৈঠক হয়েছিল টোকিওতে। সেই বৈঠকে স্বশরীরে উপস্থিত ছিলেন মার্কিন সেক্রেটারি মাইক পম্পেও এবং ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

আলোচনা হবে কোয়াড নিয়েও

আলোচনা হবে কোয়াড নিয়েও

জানা গিয়েছে দিল্লিতে ভারত-মার্কিন বৈঠকেও জাপান, অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ভারত-মার্কিন 'কোয়াড' জোট নিয়ে আলোচনা হবে। উল্লেখ্য, আসন্ন মালাবার নৌমহড়ায় অস্ট্রেলিয়াকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারত। মূলত চিনের বিরুদ্ধে বিশ্বের শক্তিশালী গণতন্ত্রগুলিকে এক করার লক্ষ্যেই ভারত-আমেরিকা নিজেদের সম্পর্ক আরও পোক্ত করতে চাইছে।

ব্রাজিলে অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভ্যাকসিন স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু, টীকার ভবিষ্যৎ ঘিরে জল্পনা

English summary
Mike Pompeo and Mark Espar to travel to New Delhi for the third India-US 2+2 Dialogue next week
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X