• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

উত্তরপ্রদেশে মায়াবতী ও হাতির মূর্তি মানুষের ইচ্ছেতেই স্থাপন করা হয়! আদালতে আরও যা জানালেন বহেনজি

সারা উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় কয়েক হাজার কোটি টাকায় নির্মিত মায়াবতী ও তাঁর দলীয় প্রতীক হাতির মূর্তি নিয়ে আইনি জটিলতায় রয়েছেন বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী। এই মূর্তি নির্মাণে মায়াবতী যত টাকা খরচ করেছেন,তা জনগণের করের টাকা। এর আগে ৮ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিমকোর্ট এক নির্দেশে মায়াবতীকে ওই মূর্তি নির্মানের টাকা জনতাকে ফেরত দেওয়ার কথা জানায়।

মায়াবতী ও হাতির মূর্তি মানুষের ইচ্ছেতেই স্থাপন করা হয়! আদালতে আরও যা জানালেন বহেনজি

সুপ্রিমকোর্টের সেই নির্দেশের সাপেক্ষে এদিন এক হলফনামায় মায়াবতী জানান, উত্তরপ্রদেশে তাঁর দলীয় প্রতীক হাতি ও বিএসপি নেতাদের যে সমস্ত মূর্তি গড়া হয়েছে তা মানুষের ইচ্ছেতেই গড়া হয়েছে। তিনি হলফনামায় জানান, ওই মূর্তিগুলি মূল্যবোধ ও সামাজিক উন্নয়নের প্রতীক। কোনওভাবেই বিএসপির প্রচারের জন্য করা হয়নি।

[আরও পড়ুন: রমজানে ভোট! যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী জানালেন নিজের সিদ্ধান্তের কথা]

উল্লেখ্য,২০০৭ সাল থেকে ২০১২ সালের মধ্যে উত্তরপ্রদেশে মুখ্যমন্ত্রীর মসনদে মায়াবতী থাকাকালীন প্রায় ২,৬০০ কোটি টাকা খরচ হয়। জনগণের করের টাকায় কিভাবে সরকার ওই মূর্তি বানায় তা নিয়ে পরবর্তীকালে প্রশ্ন তোলে সুপ্রিমরকোর্ট। তার জবাবেই এদিন হলফনামা পেশ করেন মায়াবতী।

[আরও পড়ুন: ২০১৯ নির্বাচনে কংগ্রেসের টিকিটে আদৌ কি লড়তে পারবেন হার্দিক! 'সুপ্রিম' বার্তায় কী উঠে এল]

English summary
Mayawati justifies installation of her statues in UP, says ‘it was the will of people’.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X