• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

সংখ্যালঘু মহিলাদের ছাড়! পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকতে হিন্দু মহিলাদের খোলানো হল মঙ্গলসুত্র

হিন্দু মহিলাদের প্রতি বৈষম্যের অভিযোগ! তেলেঙ্গানার আদিলাবাদের বিদ্যার্থী জুনিয়র অ্যান্ড ডিগ্রি কলেজে পরীক্ষা চলাকালীন চাঞ্চল্যকর ঘটনা। পরীক্ষা চলাকালীন মুসলিম মহিলা এবং মেয়েদের সম্পূর্ণ ভাবে ছাড় দেওয়া হয় বলে দাবি। এমনকি
  • |
Google Oneindia Bengali News

হিন্দু মহিলাদের প্রতি বৈষম্যের অভিযোগ! তেলেঙ্গানার আদিলাবাদের বিদ্যার্থী জুনিয়র অ্যান্ড ডিগ্রি কলেজে পরীক্ষা চলাকালীন চাঞ্চল্যকর ঘটনা। পরীক্ষা চলাকালীন মুসলিম মহিলা এবং মেয়েদের সম্পূর্ণ ভাবে ছাড় দেওয়া হয় বলে দাবি। এমনকি হিজাব পড়ে বই খুলে পরীক্ষা দেওয়ার অধিকার দেওয়া হয়েছিল বলেও দাবি একাংশের।

পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকতে হিন্দু মহিলাদের খোলানো হল মঙ্গলসুত্র

কিন্তু হিন্দু মহিলাদের উপর একাধিক বিধি নিষেধ চাপানো হয়েছিল বলে অভিযোগ। এমনকি হাতে থাকা চুরি, পায়েল, কুন্দনও খুলে দেওয়া হয়েছিল বলে দাবি। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়।

টাইমস নাওয়ের খবর অনুযায়ী, তেলেঙ্গানার আদিলাবাদের বিদ্যার্থী জুনিয়র অ্যান্ড ডিগ্রি কলেজে গত দুদিন আগে একটি পরীক্ষা ছিল। সেখানে সমস্ত পরীক্ষার্থীরা জড়ো হন। আর সেই সময় হিন্দু মহিলাদের সমস্ত কিছু খুলতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ। পোশাক বাদে শরীরে থাকা চুরি সহ নানা রকম জিনিস খুলতে বলা হয় বলে অভিযোগ।

এমনকি মঙ্গলসুত্র পর্যন্ত খুলে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। কিন্তু পরীক্ষা দিতে আসা মুসলিম মহিলাদের সব দিক থেকে ছাড় দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এমনকি তাঁদের কোনও তল্লাশি করা হয়নি বলেও অভিযোগ।

এই ঘটনার ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়। যা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর রাজনৈতিক তরজা। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে যদিও মুসলিম মহিলাদের চেকিংয়ের ছবি ধরা পড়েছে। কিন্তু বই নিয়ে ঢুকলেও কোনও কিছু বলা হচ্ছে না বলে দেখা যাচ্ছে। যদিও ইতিমধ্যে এই ঘটনায় নজর দিয়েছে পুলিশ। গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে ঘটনাটিকে।

তবে পুলিশ জানাচ্ছে প্রথম দিকে বিষয়টি নিয়ে একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। কিন্ত্যু পরবর্তীকালে কোনও সমস্যা হয়নি বলে দাবি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের। এমনকি পরবর্তীকালে অভিযোগের ভিত্তিতে মহিলাদের মঙ্গলসুত্র পড়েই ঢুকতে দেওয়া হয় বলে দাবি পুলিশের। কিন্ত্য পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে কেন এমন বৈষম্য তা অবশ্য স্পষ্ট ভাবে কিছু জানানো হয়নি।

তবে এই ঘটনায় এই অভিযোগগুলি অস্বীকার করেছেন টিআরএস-এর সোশ্যাল মিডিয়া আহ্বায়ক এবং টিএসএমডিসির সভাপতি। একই সঙ্গে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ শানিয়েছেন তিনি। তবে ওই নেতার দাবি, পরীক্ষা কেন্দ্রে পুলিশ কারোর সঙ্গেই এমন কিছু করেনি যাতে বিতর্ক হয়। সবাইকে সমান ভাবে চেকিং করেই পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢোকানো হয় বলে দাবি।

তবে এই ঘটনার পিছনে বিজেপি আছে বলে দাবি টিএসএমডিসির সভাপতি। শান্ত রাজ্যকে অশান্ত করার ছক করা হচ্ছে বলেও দাবি তাঁর। যা নিয়ে যাবতীয় বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

English summary
Mangalsutra removed from hindu women in Telangana, they claims discrimination
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X