১০০ বছর পর নবাবের শহর লখনউতে মেয়রের মসনদে বসছেন কোনও মহিলা , চলছে ভোটগণনা

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    দেশকে প্রথম মহিলা রাজ্যপাল দিয়েছে উত্তর প্রদেশ। প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রীও দেশ পেয়েছে উত্তর প্রদেশ থেকে। সরোজিনী নাইডু ও সুচেতা কৃপালিনী এখনও ভারতীয় রাজনীতির বিখ্যাত চরিত্র হয়ে রয়েছেন। আর যে রাজ্য মহিলাদের রাজনীতিতে এতটা এগিয়ে দিয়েছে, সেই উত্তর প্রদেশের নবাবদের শহর লখনৌ ১০০ বছর পর আবার পেতে চলেছে এক মহিলা মেয়রকে। শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ নগর নিগম নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই লখনউয়ের মেয়রপদের আসন কোন মহিলা প্রার্থী দখল করতে চলেছেন তা স্পষ্ট হয়ে যাবে।

    ১০০ বছর পর নবাবের শহর লখনৌতে মেয়রের মসনদে বসতে চলেছেন কোনও মহিলা , চলছে ভোটগণনা

    উত্তর প্রদেশ নগর নিগম নির্বাচনে আজ শুধুমাত্র লখনৌতে ২৩ লাখ ভোটার ভোট দিয়েছেন। উল্লেখ্য, লখনউ কেন্দ্রটিতে মহিলা প্রার্থীর জন্য সংরক্ষণ রয়েছে। ফলে ১৯১৬ সালের পর আবারও লখনৌর মেয়র পদের মসনদে বসতে চলেছেন কোনও মহিলা। মসনদের দৌড়ে রয়েছেন বিজেপি-র সয়ুক্তা ভাটিয়া, কংগ্রেসের প্রেমা অওয়াস্থি, আপ-এর প্রিয়াঙ্কা মহশ্বরী, সমাজবাদী পার্টির মীরা বর্ধন।

    এদিকে, হাই ভোল্টেজ উত্তর প্রদেশ নগর নিগম নির্বাচন যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশে বিজেপি-র লিটমাস টেস্ট বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে কিছু মাস আগে মসনদ খোওয়ানো সমাজবাদী পার্টির কাছেও এই নগন নিগম নির্বাচন একটি বড়সড় রাজনৈতিক পরীক্ষা বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের।

    English summary
    Uttar Pradesh is credited with giving the country its first woman governor Sarojini Naidu and chief minister Sucheta Kriplani. Now, the City of Nawabs is poised to break the glass ceiling by electing its first woman mayor since the Uttar Pradesh Municipalities Act came was notified way back in 1916.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more