• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

যেকোনও সময় দেশে ফিরিয়ে আনা হতে পারে বিজয় মালিয়াকে! প্রস্তুতি সারল কেন্দ্র

বিজয় মালিয়াকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার যে আবেদন ভারত সরকারের তরফে করা হয়েছিল, তার বিরুদ্ধে লন্ডন হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মালিয়া। সেখানে হারের পর গত মাসের শুরুতে ব্রিটেনের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন কিংফিশার উড়ান সংস্থার এককালীন কর্ণধার। তবে সেখানেও মালিয়ার আবেদন ধোপে টেকেনি।

ঋণের ১০০ শতাংশ সরকারকে ফিরিয়ে দিতে চাইছেন বিজয়

ঋণের ১০০ শতাংশ সরকারকে ফিরিয়ে দিতে চাইছেন বিজয়

এবার ভারতে বিজকে ফিরিয়ে আনার ব্যপারে সব সরকারি কাজকর্মও শেষ হয়েছে। এবার যেকোনও সময় কিংফিশার কর্ণধারকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারবে ভারত। এদিকে ঋণের ১০০ শতাংশই ভারত সরকারকে ফিরিয়ে দিতে চাইছেন বিজয় মালিয়া। পরিবর্তে তাঁর বিরুদ্ধে চলা মামলা বন্ধ করা হোক। কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রের কাছে এই আবেদনই করলেন 'পলাতক' বিজয় মালিয়া।

৯ হাজার কোটি টাকা ঋণখেলাপির অভিযোগ

৯ হাজার কোটি টাকা ঋণখেলাপির অভিযোগ

কিংফিশার এয়ারলাইন্সের নামে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক থেকে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকার ঋণ নিয়েছিলেন তিনি। এরপর তা শোধ করতে না পেরে বিদেশে পালিয়ে যান সংস্থার তৎকালীন কর্ণধার বিজয় মালিয়া।

বিজয় মালিয়াকে প্রত্যর্পণের নির্দেশ

বিজয় মালিয়াকে প্রত্যর্পণের নির্দেশ

প্রত্যর্পণের বিরুদ্ধে লন্ডনের হাইকোর্টে গিয়েছিলেন বিজয় মালিয়া। কিন্তু, তাঁর আবেদন খারিজ করে দিল আদালত। ২০১৮ সালে তাঁকে ভারতে প্রত্যর্পণের নির্দেশ দেয় সেখানকার এক নিম্ন আদালত। তাঁকে দেশে ফিরিয়ে এনে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য সেদেশের সরকারের কাছে প্রত্যর্পণের আবেদন জানায় সিবিআই ও ইডি। সেই শুনানিতে বিজয় মালিয়াকে প্রত্যর্পণের নির্দেশ দেয় নিম্ন আদালত।

ইডি কথা শুনছে না বলে অভিযোগ বিজয়ের

ইডি কথা শুনছে না বলে অভিযোগ বিজয়ের

কয়েকদিন আগে টুইটারে বিজয় মালিয়া লিখেছিলেন, 'ভারতীয় ব্যাঙ্কগুলি টাকা ফেরত পেতে ইচ্ছুক নয়। ইডি-ও কথা শুনছে না। এখন ভরসা অর্থ মন্ত্রক।' এরপর ফের করোনা আবহে আত্মনির্ভর ভারত গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ভাষণের পর টাকা ফেরানোর আবেদন করেন বিজয়।

করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্রকে সাহায্য করতে চান বিজয়

করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্রকে সাহায্য করতে চান বিজয়

তিনি টুইটে লেখেন, 'করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্র যে আর্থিক প্যাকেজ গ্রহণ করেছে, তার জন্য কেন্দ্রকে অভিনন্দন জানাই। সরকার যত খুশি টাকা ছাপাতে পারে। কিন্তু আমি যে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলি থেকে নেওয়া ঋণের ১০০ শতাংশ ফেরত দিতে চেয়েছি, তা কেন বার বার অবহেলা করা হচ্ছে?' টুইটে তিনি আরও লেখেন, 'নিঃশর্তভাবে এই ঋণের টাকা ফেরত নেওয়া হোক এবং এই মামলা বন্ধ করা হোক।'

মোদীতেই ভরসা রাখছেন বাংলা, সমীক্ষায় ইঙ্গিত তেমনি

কাশ্মীরে তৎপরতা তুঙ্গে, জঙ্গিদের নজরে দিল্লি! হাই অ্যালার্ট জারি রাজধানীতে

English summary
legal process and formalities regarding vijay mallya's extradition completed
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X