• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

তেলাঙ্গানায় মোদী, উপেক্ষা করে অন্য বৈঠকে ব্যাস্ত থাকলেন কেসিআর

Google Oneindia Bengali News

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদীর মধ্যে নাকি সবথেকে বেশী সমস্যা রয়েছে। তিনিই সবথেকে বেশি মোদী বিরোধী। হ্যাঁ, অবশ্যই তিনি কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে বিরোধী শিবিরের অন্যতম বড় মুখ। এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই কিন্তু তিনি মোটামুটি রাজ্যের কোনও অনুষ্ঠানের জন্য কোনও কাজে এলে তিনি দেখা করেছেন।

তেলেঙ্গানায় মোদী, উপেক্ষা করে অন্য বৈঠকে ব্যাস্ত থাকলেন কেসিআর

এনআরসি , সিএএ নিয়ে বিপুল সমস্যার মাঝেও তিনি উপস্থিত হয়েছিলেন। ভোটের আগে নেতাজির জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তিনি এবং নরেন্দ্র মোদী এক মঞ্চে হাজির ছিলেন। কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে তিনিও বড় কেসিআরও। তিনি আবার ওইসব সৌজন্য রাখছেন না। মোদী রাজ্যে এলে তিনি তাঁর সঙ্গে দেখাই করছেন না। গত চার মাসে এই নিয়ে দ্বিতিয়বার এমন ঘটনা ঘটল। তাঁর রাজ্যে গেলেন প্রধানমন্ত্রী কিন্তু তাঁকে স্বাগত জানাতে গেলেন না কেসিআর। তিনি চলে গেলেন অন্যত্র।

ইন্ডিয়ান স্কুল অফ বিজনেস -এর ২০তম বার্ষিক উদযাপনে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতে গেলেন না রাও। রাও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এবং জনতা দল (এস) নেতা এইচডির দেবগৌড়ার সাথে দেখা করতে চলে যান বেঙ্গালুরুতে।

কেসিআর, জাতীয় রাজধানী এবং চণ্ডীগড়ের চার দিনের সফরের পরে দিল্লি থেকে সোমবার হায়দরাবাদে ফিরেছেন, বুধবার সন্ধ্যায় তিনি বেঙ্গালুরুতে চলে যান। তিনি যে মোদীর সঙ্গে দেখা করতে যাবেন না তা জানা গিয়েছিল তাঁর পূর্ব ঘোষিত সময়সূচীতেই। সেই মতোই কেসিআর ২৬ মে বেঙ্গালুরুতে পৌঁছান। তিনি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দেবগৌড়া এবং কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচ.ডি. কুমারস্বামীর সঙ্গে দেখা করেন।

আগামিকাল, তিনি রালেগান সিদ্ধির উদ্দেশ্যে রওনা হবেন যেখানে তিনি বিশিষ্ট সমাজকর্মী আন্না হাজারের সাথে দেখা করবেন। সেখান থেকে তিনি সাইবাবার দর্শনের জন্য শিরডি যাবেন এবং তারপর হায়দরাবাদে ফিরবেন।

তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি (টিআরএস) প্রধান দিল্লিতে থাকার সময় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী এবং আম আদমি পার্টি (এএপি) নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এবং সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদবের সাথে দেখা করেছিলেন।

তিনি কেজরিওয়ালের সাথে চণ্ডীগড়ও ভ্রমণ করেছিলেন এবং২২ মে একটি প্রোগ্রামে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান এর সাথে যোগ দিয়েছিলেন, যেখানে কেসিআর তিনটি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনের সময় মারা যাওয়া কৃষকদের পরিবারকে ৩ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তর করেছিলেন। তিনি গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সৈন্যদের সাথে সংঘর্ষের সময় শহিদ হওয়া পাঞ্জাবের চার সেনা সদস্যের পরিবারকে ১০ লাখ টাকার চেক উপহার দিয়েছেন।

এদিন আইএসবি-র 20তম বার্ষিক দিবস উদযাপন এবং বিজনেস স্কুলের ২০২২ সালের স্নাতকোত্তর প্রোগ্রাম ক্লাসের স্নাতক অনুষ্ঠানে অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রী মোদী হায়দরাবাদ সফরে যান। আইএসবি ডিন মদন পিল্লুতলার ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ীই, প্রধানমন্ত্রী হায়দরাবাদ এবং মোহালি উভয় ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন।

আইএসবি সফরের সময়, প্রধানমন্ত্রী মোদী একটি চারা রোপণ করেন, একটি স্মারক ফলক উন্মোচন করেন এবং আইএসবি মাইস্ট্যাম্প এবং বিশেষ কভার প্রকাশ করেন। তিনি সেরা শিক্ষাবিদদের পদক প্রদান দেন। স্বাভাবিকভাবেই আইএসবি এই অনুষ্ঠানের জন্য মুখ্যমন্ত্রী কেসিআরকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। আইএসবি'র ডিন বলেন যে মুখ্যমন্ত্রী তার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এবং আরও জানিয়েছেন যে তিনি অন্য রাজ্যে তার নির্ধারিত সফরের কারণে এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারবেন না।

প্রসঙ্গত কেসিআর ৫ ফেব্রুয়ারি মোদীকে তাঁর রাজ্যে আসার জন্য দেখা করতে করেননি এবং প্রধানমন্ত্রীর দুটি প্রোগ্রামও এড়িয়ে যান। সেবার প্রধানমন্ত্রী সাধক রামানুজাচার্যের মূর্তি উন্মোচন করেন এবং ICRISAT-এর ৫০ তম বার্ষিকী উদযাপনের উদ্বোধন করেন। এ নিয়ে কেসিআর বিজেপির তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন, তারা বলেছিল যে কেসিআর প্রধানমন্ত্রীকে অপমান করেছেন। কেসিআর এর অদ্ভুত উত্তর দিয়েছিলেন। বলেছিলেন তার পরিবারের কয়েকজন সদস্যের কোভিড-এর লক্ষণ দেখা দিয়েছে। তাই তিনি দেখা করেননি।

এবারও মোদী এমন সময়ে হায়দরাবাদ সফর করলেন যখন কেসিআর একটি জাতীয় রাজনীতিতে বিকল্প হয়ে ওঠার জোরদার চেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করছেন। টিআরএস-এর ২০তম প্রতিষ্ঠা দিবস উদযাপনে, কেসিআর জাতীয় রাজনীতিতে মূল ভূমিকা পালনের জন্য একটি জাতীয় দল গঠনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

Recommended Video

Weather Update : সপ্তাহের শেষে রাজ্যে তুমুল ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা

বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব আবারও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক এড়ানোর জন্য কেসিআরকে নিন্দা করেছে। রাজ্য বিজেপি প্রধান বন্দী সঞ্জয় কুমার অভিযোগ করেন যে মোদীকে এড়াতে টিআরএস প্রধান রাজ্য থেকে পালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বলেন যে কেসিআর ইচ্ছাকৃতভাবে অন্যান্য রাজ্যে তার সফরের পরিকল্পনা করেছিলেন কারণ তিনি প্রধানমন্ত্রীর মুখোমুখি হতে ভয় পেয়েছেন।

English summary
KCR avoids meeting PM Modi again , for second time in last four months
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X