• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মানসিক অবসাদে একাধিক করোনা আক্রান্তের মৃত্যু, আত্মহত্যা ঠেকানোই এখন বড় চ্যালেঞ্জ এই রাজ্যে

  • |

করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্তের সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে বেড়ে আক্রান্তের মধ্যে মানসিক অবসাদের পরিমাণ। এখনও পর্যন্ত মানসিক অবসাদের জেরে সবথেকে বেশি করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে কর্ণাটকে। যা রোখাই এখন প্রশাসনের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মনে করা হচ্ছে। কয়েকদিন আগেই মানসিক অবসাদের জেরে নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন ৭২ বছরের করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধ।

বাড়ি বসে করোনা সংক্রান্ত তথ্য জানতে কোভিড অ্যাপ চালু করল রাজ্য সরকার

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অনেক বেশি কাবু যুবসমাজ, নেপথ্য কারণ সম্পর্কে কী বলছেন আইসিএমআর প্রধান করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অনেক বেশি কাবু যুবসমাজ, নেপথ্য কারণ সম্পর্কে কী বলছেন আইসিএমআর প্রধান

একের পর এক আত্মহত্যার ঘটনায় বাড়ছে উদ্বেগ

একের পর এক আত্মহত্যার ঘটনায় বাড়ছে উদ্বেগ

কর্ণাটকের চিক্কামাগালুরুর তারিকেরে তালুকের বেলেনেহাল্লি টান্ড্যরে এই ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। সামাজিক বঞ্চনা ও নাতি-নাতনির সংক্রমণের ভয়েই তিনি এই ঘটনা ঘটান বলে পরিবারের অনুমান। অন্যদিকে রবিবার থেকে এখনও পর্যন্ত এই রাজ্যে আরও তিনটি আত্মহত্যার ঘটনা সামনে এসেছে। মাইসোরের কাছেই তিনটি ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যাচ্ছে। এবং তিন আক্রান্ত ব্যক্তিই বৃদ্ধ।

জাঁকিয়ে বসছে নিঃসঙ্গতার ভয়

জাঁকিয়ে বসছে নিঃসঙ্গতার ভয়

ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা, মূলত পরিবারের অন্যদের সংক্রমণের ভয়েই মানসিক অবসাদের শিকার হচ্ছেন বেশিরভাগ মানুষ। সেই সঙ্গে বার্ধক্যে নিঃসঙ্গতা জাঁকিয়ে বসার ভয়ও তাদের অনেক বেশি ঘিরে ধরছে। এদিকে মানসিক অবসাদের শিকার এমন করোনা আক্রান্তদের মনোবিদের কাছে কাউন্সিলিংয়ের পরিমাণও অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। এমনকী পরিস্থিতি এমন জায়গায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে যে রোগীর ভিড় সামল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন মনোবিদেরা।

কী বলছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা

কী বলছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা

এই প্রসঙ্গে বলতে দিয়ে মাইসোর মেডিকেল কলেজের মনোরোগ বিভাগের প্রধান ডাঃ রবীশ বিএন বলেন, " এই সমস্যা থেকে উত্তরণের একটাই উপায়, রোগীদের তাদের মনের কথা বলতে দিতে হবে। তাদের সমস্যার কথা শুনতে হবে আমাদের। সমাজিক ভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার ভয়ই তাদের সব থেকে বেশি ঘিরে ধরছে। যা কাটাতে না পারলে খুব মুশকিল। এমনকী অনেকে করোনা আক্রান্ত না হয়েও উপসর্গ থাকা মাত্রই ভয়ে কুঁকড়ে যাচ্ছেন।"

এননজরে কর্ণাটকের করোনা মানচিত্র

এননজরে কর্ণাটকের করোনা মানচিত্র

এদিকে এখনও পর্যন্ত কর্ণাটকে করোনার কবলে পড়েছেন ২০ লক্ষের বেশি মানুষ। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ লক্ষ ৮৭ হাজারের বেশি। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৪৮০ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৮৫২। এদিকে রাজ্যর সমস্ত এলাকার মধ্যে করোনার কবলে সর্বাধিক বিপর্যস্ত বেঙ্গালুরুর শহরাঞ্চল। শুধুমাত্র সেখানই এখনো পর্যন্ত করোনার কবলে পড়েছেন ৩ লক্ষ ৬২ হাজারের বেশি মানুষ।

English summary
Karnataka is facing multiple coronavirus paitents suicide due to mental depression
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X