• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

আদৌও প্রতিশ্রুতি রাখবে তো চিন ? লাদাখে সেনা প্রত্যাহার চুক্তির মাঝেও দেখা দিচ্ছে সিঁদুরে মেঘ

  • |

জল গড়িয়ে বহুদূর যাওয়ার পর অবশেষে সীমান্ত নিয়ে সমঝোতার রাস্তা প্রশস্ত হয়েছে চিন-ভারতের মধ্যে। এমনকী লাদাখ থেকে সেনা প্রত্যাহারেও রাজি হয়েছে দুই দেশ। এমনকী এদিন সংসদে সরকারি ভাবে সেনা প্রত্যাহারের কথা জানাতে দেখা যায় ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংকে। অন্যদিকে গতকালই সেনা প্রত্যাহারের কথা জানিয়ে বিবৃতি দেয় চিনা প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

প্যাংগং থেকে সেনা সরাবে ভারত-চিন: রাজ্যসভায় রাজনাথ
আদৌও প্রতিশ্রুতি রাখবে তো চিন ?

আদৌও প্রতিশ্রুতি রাখবে তো চিন ?

যদিও এর আগেও একাধিকবার সেনা প্রত্যাহারের কথা জানিয়ে চিন উল্টোসুরে গান গাইতে শুরু করলে পরিস্থিতি বারংবার হাতের বাইরে চলে যায়। তাই ইন্দো-চিন সামরিক স্তরে নবম পর্যায়ের সামরিক আলোচনার পরে চিনের প্রতিশ্রুতিতেও সিঁদুরে মেঘ দেখছেন অনেকে। যদিও অনেকেরই আবার ধারণা আদপে কূটনৈতিক চালেই চিনকে মাত করল ভারত।

সংসদে বিবৃতি রাজনাথের

সংসদে বিবৃতি রাজনাথের

এমনকী প্রতিশ্রুতি মতো পূর্ব লাদাখের প্যাংগং লেক থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করেছে চিন, এমনটাই খবর সেনা সূত্রে। বুধবার চিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এমন দাবিই করা হয়েছে। ভারতের পক্ষ থেকে এবিষয়ে কিছু না জানানো হলেও অস্বীকারও করা হয়নি। সেনা প্রত্যাহার শুরু করেছে ভারতও। বৃহস্পতিবার এই মর্মে সংসদে বিবৃতিও দেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

কড়া হুঁশিয়ারি বেজিংকে

কড়া হুঁশিয়ারি বেজিংকে

বৃহঃষ্পতিবার সংসদে তিনি জানান, ১৯৬২ সাল থেকে লাদাখে ভারতের জমি দখল করে রেখেছে চিন। গত বছর জুনে গালওয়ানে ভারত চিন সেনা সংঘর্ষের পর নতুন করে পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়। যদিও প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর চিনা আগ্রাসনের উপযুক্ত জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। এমনকী প্রতিরক্ষামন্ত্রী সংসদে জানান বেজিং যাতে একতরফাভাবে সীমান্তের অবস্থান বদলানোর চেষ্টা যেন না করে, সেই হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।

 চুক্তিতে ঠিক কী বলা হয়েছে ?

চুক্তিতে ঠিক কী বলা হয়েছে ?

সূত্রের খবর, নবম পর্যায়ে হওয়া চুক্তি অনুসারে সেনা সরানোর বিষয়ে দু'পক্ষের মধ্যে যে সমঝোতা হয়েছে তাতে প্যাংগং লেকের উত্তর ও দক্ষিণে প্রান্তে স্থিতাবস্থা ফেরানোর ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। পরে ধাপে ধাপে বাকী এলাকাগুলির ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে উপনীত হবে দুই দেশ। রাজনাথ সিংয়ের মতে চুক্তি অনুযায়ী, প্রথমে প্যাংগং হ্রদের ফিঙ্গার ৮ থেকে সেনা প্রত্যাহার করবে চিন। ফিঙ্গার ৩ পর্যন্ত থাকবে ভারতীয় বাহিনী। পরে ধাপে ধাপে লাদাখের অন্যান্য রোওয়ার্ড পোস্ট থেকে জওয়ানদের সরানো হবে। তবে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বে না ভারত। এমনকী গোটা প্রক্রিয়ায় আকাশপথে নজরদারি চালাবে দুই দেশ।

মমতা হলেন মা, তারাপীঠে যজ্ঞ করে স্বামী সৌমিত্রের শুদ্ধিকরণ সুজাতার

English summary
Indo-China peace deal on withdrawal of troops in Ladakh
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X