• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লকডাউন পিরিয়ডে শুধু পর্নসাইট দেখেছেন মানুষ! পরিসংখ্যানে কপালে উঠবে চোখ

তিন সপ্তাহের লকডাউনে গৃহবন্দি প্রায় সকলে। আর এই লকডাউন পিরিয়ডে প্রাপ্ত বয়স্কদের চোখ আবদ্ধ থেকেছে পর্নসাইটগুলিতে। ভারত এই কাজে শীর্ষস্থানে রয়েছে। এ দেশের ৯৫ শতাংশ ট্রাফিক নিবদ্ধ থেকেছে পর্ণসাইটে। মার্চ মাসের শেষের দিকে করোনার জেরে সরকারি বিধিনিষেধ আরোপ হওয়ার পরই পর্ন সাইটে ২০ শতাংশ রেজিস্ট্রেশন বেড়েছে।

লকডাউনে পর্নসাইটে গ্রাহকরা

লকডাউনে পর্নসাইটে গ্রাহকরা

বেশ কয়েকটি ভারতীয় টেলিকম অপারেটর প্রাপ্তবয়স্ক সাইটগুলিকে অবরুদ্ধ করে দিয়েছে। বিশ্বের বৃহত্তম পর্নো সাইট পর্নহাব জানিয়েছে, সারা পৃথিবীতে করোনভাইরাস মহামারী জেরে কোয়ারেন্টাইন এবং লকডাউনে গ্রাহকদের পর্নসাইট দেখার পরিসংখ্যানে চোখ কপালে উঠবে।

হু হু করে বেড়েছে পর্নসাইটের ট্রাফিক

হু হু করে বেড়েছে পর্নসাইটের ট্রাফিক

ভারত, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন, সুইজারল্যান্ড এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হু হু করে বেড়েছে পর্নসাইটের ট্রাফিক। প্রায় এক মাস ধরে ইউরোপের বেশিরভাগ অংশই ভারী লকডাউনের কবলে পড়েছে। পর্নহাবের পরিসংখ্যানে ফ্রান্সে হঠাৎ ৪০ শতাংশ বেড়েছে পর্নসাইটের ট্রাফিক। জার্মানিতে পর্নসাইটগুলিতে ট্র্যাফিক বেড়েছে ২৫ শতাংশ।

ইতালিতেও পর্নসাইটে ভিড়

ইতালিতেও পর্নসাইটে ভিড়

মার্চের গোড়ার দিকে চিনের বাইরে ছড়াতে শুরু করে করোনা সংক্রমণ। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ দেশ হয়ে ওঠে ইতালি। ইতালির সঙ্গে পাল্টা দিয়ে করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকে আমেরিকায়। এখন আমেরিকায় আক্রান্ত থেকে শুরু করে মৃতের সংখ্যা অন্য দেশের তুলনায় অনেক বেশি। এই ইতালিতে লকডাউনের সময়কালে পর্নসাইট দেখার মাত্রা ৫৫ শতাংশ বৃদ্ধি পায়।

রাশিয়া পরিসংখ্যান নজরকাড়া

রাশিয়া পরিসংখ্যান নজরকাড়া

রাশিয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে লকডাউন সময়কাল ৩০ মার্চ থেকে শুরু হয়েছিল। মস্কোর মেয়র ৬৫ বছরের বেশি বয়সী সমস্ত বাসিন্দাকে বাড়িতে স্ব-বিচ্ছিন্ন অর্থাৎ কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছিলেন। পরের দিন সমস্ত রেস্তোঁরা, ক্যাফে এবং জনবহুল স্থান বন্ধ করে দেন তিনি। রাশিয়া সমস্ত সিনেমা ও নাইট ক্লাব বন্ধ করে দিয়েছে। এই সময়ে প্রাপ্তবয়স্কদের সাইটগুলিতে ওয়েব ট্র্যাফিক ৫৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

অতিথি শিক্ষকদের ভাতা বন্ধ নয়, শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশ
অন্য দেশেও ট্রাফিক পর্নসাইটে

অন্য দেশেও ট্রাফিক পর্নসাইটে

দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন, সুইজারল্যান্ড এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েব ট্র্যাফিক স্পাইক বেড়েছে একলাফে অনেকটাই। পর্নসাইটগুলিতে দক্ষিণ কোরিয়ার ট্র্যাফিক পুরো মার্চ এবং এপ্রিলের শুরুতেও ভিড় ছিল। ১৪ মার্চ স্পেনে লকডাউন শুরুর পর ৬০ শতাংশের ওপরে উঠে গেছে পর্নসাইটের ট্রাফিক। ১৯ মার্চ দেশব্যাপী লকডাউন শুরু হওয়ার পরে সুইজারল্যান্ডের পর্ন সাইটগুলিতে ওয়েব ট্র্যাফিক ২৫ শতাংশ বেড়েছে। পর্নোগ্রাফিতে আমেরিকান ট্র্যাফিক একাধিক স্পাইক দেখা যায়।

English summary
Indians seem to be leading the world in porn consumption during the three-week lockdown. 95 per cent traffic spike was in adult sites in India
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X