• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ভ্যাকসিনের দুটি ডোজের সময়ের ব্যবধানকে নিয়ে বিভ্রান্তি ভারত-ব্রিটেনের মধ্যে

যুক্তরাজ্যভিত্তিক এক গবেষণার ভিত্তিতে ভারত এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের দুটি ডোজের মধ্যে ব্যবধানকে ১২ থেকে ১৬ সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যুক্তরাজ্য তা আট সপ্তাহে সংক্ষিপ্ত করে বেছে নিয়েছিল। এই বিকল্প নিয়ে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে। ভ্যাকসিন ডোজ নেওয়ার সময়ের ব্যবধান নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে দেশে।

Covid 19 Update : কলকাতা : করোনা আক্রান্ত ৩৯৫১ জন, বাড়ছে চিন্তা

ভ্যাকসিনের দুটি ডোজের সময়ের ব্যবধানকে নিয়ে বিভ্রান্তি

ভারতে কোভিড-১৯ কার্যনির্বাহী দল যখন বলেছিল যেস এর সুপারিশগুলি মূলত বৈজ্ঞানিক প্রমাণের ভিত্তিতে ছিল, তখন কেউ কেউ এই সিদ্ধান্তকে ক্রমহ্রাসমান ভ্যাকসিন সরবরাহের কৌশল হিসাবে দেখেছিল। ব্রিটেনের তার ভ্যাকসিন নীতি চালু করার ফলে আরও বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিশেষত যেহেতু ব্রিটেন প্রথম ডিসেম্বরে ফাইজার ভ্যাকসিনের ডোজের সময়ের ব্যবধান আরও দীর্ঘায়িত করেছিল, প্রথম ডোজ দেওয়ার সময়ও বেশি পাওয়া গিয়েছিল। এই পদক্ষেপটি সেই সময় চিকিৎসকের পরামর্শের বিরুদ্ধে গিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করেছিল। পাঁচ মাস পর ব্রিটেন আবার তা নিয়ে গবেষণার ফলের উপর নির্ভর করছে।

ব্রিটিশ গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, ফাইজার-বায়োএনটেক ভ্যাকসিন এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন উভয়ই ডোজগুলির মধ্যে কমপক্ষে ১২ সপ্তাহের ব্যবধান বাস্তবিকভাবে কার্যকর হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে। যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দ্বারাও সমর্থনযুক্ত। ভারতীয় কোভিড থিঙ্ক ট্যাঙ্ক এই গবেষণাগুলির উপর নির্ভর করে সেই সুপারিশ মেনে নিয়েছে।

ভারতের সংস্থা সিরাম-কর্তা আদার পুনাওয়ালা এই পদক্ষেপের প্রশংসা করে বলেছেন, এটি আরও সুরক্ষা প্রদান করবে এবং ভারতকে তার ভ্যাকসিনের স্টক আরও দক্ষতার সাথে বাড়াতে সহায়তা করবে। কিছু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ বলেছেন যে, ভাইরাসের দ্রুত পরিবর্তনের ফলে অনিশ্চয়তার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যবধানটি খুব দীর্ঘ হতে পারে।

English summary
India earlier this week decided to widen the gap between the two doses of the Covishield vaccine.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X