• search

অফিসের পাওনা ছুটি পাচ্ছেন না! তাহলে এই তথ্যটি আপনাকে জানতেই হবে

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    অনলাইন পর্যটন সংস্থা এক্সপেডিয়ার সমীক্ষা তাই বলছে। বিশ্বের কোন কোন দেশের নাগরিকদের ছুটি নেওয়ার অভ্যাস কেমন, বা কত ছুটি তাঁরা নেন, সেই নিরিখে একটি সমীক্ষা আয়োজন করে এক্সপেডিয়া। আর সেই তালিকায় ভারত পঞ্চম স্থানে রয়েছে। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে ৬৭ শতাংশ ভারতীয় কাজের চাপে হয় ছুটি বাতিল করেন বা ছুটি নিতে চাননা। আর ৭৪ শতাংশ ভারতীয় অফিস থেকে দূরে 'অনন্ত'কাল ছুটি নেওয়ার সমর্থক।

    অফিসের পাওনা ছুটি পাচ্ছেন না! তাহলে এই তথ্যটি আপনাকে জানতেই হবে

    সমীক্ষায় আরও ধরা পড়েছে যে ৫৫ শতাংশ ভারতীয়রা অল্প কিছুদিনের ছুটি নিতে চান। যেখানে ২৮ শতাংশ ভারতীয়রা ছুটি নিতেই পারেন না কর্মস্থলের কাজের চাপে। এক্সপেডিয়ার তরফে সংস্থার মার্কেটিং হেড জানিয়েছেন, কাজের জায়গায় একটি সুস্থ পরিবেশ থাকাটা জরুরি। প্রযুক্তি যেখানে নির্দিষ্ট সময়ে কাজে করে অফিস থেকে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য সমস্ত সুযোগি দিচ্ছে সেখানে কাজে ফাঁকি দেওয়ার কোনও জায়গা নেই।

    উল্লেখ্য, সমীক্ষার বিচারে ছুটি না মেলার তালিকায় ভারতের আগে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, হংকং, ফ্রান্স। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ছুটিতে গিয়েও ৩৭ শতাংশ ভারতীয় নিজের মেল বহুবার দেখে থাকেন। অন্য়দিকে , ২১ শতাংশ ভারতীয় ছুটি তে গিয়েও দিনে একবার অন্তত নিজের মেল খুলে দেখেন। যা নিঃসন্দেহে একটি অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক বিষয়।

    English summary
    India has become the fifth most vacation deprived country globally, just after South Korea, Malaysia, Hong Kong and France, says an annual survey conducted by online travel agency Expedia. Expedia released the results of the 2017 Vacation Deprivation study, an annual survey of vacation habits across multiple countries and continents and the survey ranks India as the fifth most vacation deprived country globally.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more