• search

'মাওবাদী হয়ে যান, গুলি করব', কেন এই ডাক্তারদের একথা বললেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী, শুনলে তাজ্জব হবেন

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    মহারাষ্ট্রের চন্দ্রপুরে এক সরকারি হাসপাতালের আনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন না কয়েকজন চিকিৎসক। আর এই অনুপস্থিতি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিতর্কিত মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী হংশরাজ আহির।

    'মাওবাদী হয়ে যান, গুলি করব', কেন এই ডাক্তারদের একথা বললেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী, শুনলে তাজ্জব হবেন

    চন্দ্রপুরের সরকারি হাসপাতালে জেনেরিক মেডিসিন কাউন্টারের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে আয়োজন করা হয় ,এই অনুষ্ঠানের। সেখানে অনুপস্থিত ছিলেন, জেলার সিভিল সার্জেন ড: উদয় নাওাড়ে, মেডিক্যাল কলেজের ডিন ড: এসএস মোরে। আর তাঁদের অনুপস্থিতি নিয়ে ক্ষুব্ধ হন চন্দ্রপুর এলাকার সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হংশরাজ আহির। তিনি তাঁর বক্তব্য়ে বলেন, 'মাওবাদীরা কী চায়? তারা গণতন্ত্র চায় না। আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সামলাই তাই আমি এটা জানি। এই লোকেরাও (সিনিয়র ডাক্তারদের উদ্দেশ্য করে) গণতন্ত্র চায় না। তাহলে তাঁরা মাওবাদীদের সঙ্গে যোগি দিক। এখানে কেন আছে? সেখানে যান, তাহলে গুলি করে মেরে ফেলতে পারব। কেন এখানে ট্যাবলেট দিচ্ছেন ? যখন আমি হাসপাতালে আসছি তখন সেখানে অনুপস্থিত থাকাটা কী যুক্তিযুক্ত।'

    এদিকে, সিভিল সার্জেন ড: উদয় নাওাড়ে জানিয়েছেন তিনি ব্যাক্তিগত কারণে ছুটিতে রয়েছেন। এর বেশি তাঁর পক্ষে কিছু বলা সম্ভব নয়। তবে নাগপুর ডিভিশনের স্বাস্থ্য বিষয়ক ডেপুটি ডিরেক্টর জানিয়েছেন, চিনি ড: নওয়াড়ের ছুটি সম্পর্কে কোনও তথ্য পাননি। এদিকে, শুধউ দুই চিকিৎসকই নয়, এলাকার কালেক্টর অশুতোষ সলিলও এই অনুষ্ঠানের কোনও আমন্ত্রণ পাননি বলে জানিয়েছেন।

    English summary
    Apparently upset over the absence of senior doctors at an inaugural function in Chandrapur, Union Minister of State for Home Hansraj Ahir said on Monday that they “should join Naxals” and “we will then shoot you with bullets”. Ahir was speaking at the inauguration of a generic medicine counter at the Government Medical College and Hospital (GMCH) in Chandrapur.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more