• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

আশিস মিশ্রের জামিন খারিজের আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে লখিমপুর খেরি'র বিচারপ্রার্থীরা

  • |
Google Oneindia Bengali News

লখিমপুর খেরি'র ঘটনায় নতুন করে ফের একবার অস্বস্তি বাড়তে চলেছে বিজেপির কেন্দ্রীয়মন্ত্রীর ছেলের। গত কয়েকদিন আগেই মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিস মিশ্রের জামিন মঞ্জুর করে এলাহাবাদ আদালত। আর সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে ফের একবার আদালতের দ্বারস্থ লখিমপুর খেরি'র ঘটনায় মৃতদের পরিবার।

সুপ্রিম কোর্টে লখিমপুর খেরির বিচারপ্রার্থীরা

আজ সোমবার ঘটনায় মূল অভিযুক্তের জামিনের খারিজের আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ কৃষকদের পরিবার।

সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মৃতের এক পরিবার জানিয়েছে, বিচার চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছি। অভিযুক্তের জামিন খারিজের দাবিতে আদালতের হস্তক্ষেপ দাবি করা হয়েছে। আদালত সূত্রের খবর, খুব শিঘ্রই এই সংক্রান্ত মামলার শুনানি হতে চলেছে সুপ্রিম কোর্টের।

কার্যত 'হাইভোল্টেজ' এই মামলায় আদালত কি নির্দেশ জানায় সেদিকেই নজর সবপক্ষের। তবে এই মুহূর্তে শুনানির দিকে তাকিয়েই লখিমপুর খেরি বিচার প্রার্থীরা।

উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনের মধ্যেই লখিমপুর খেরির ঘটনায় মূল অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে আশিস মিশ্র জামিন পান। এলাহাবাদ হাইকোর্ট কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলেকে এই জামিন দেয়। আর এরপরেই কার্যত গর্জে ওঠেন লখিমপুর খেরি'র মানুষ। এতজন মানুষকে গাড়ি চাপা দিয়ে খুন করার পরেও কীভাবে জামিন পেলেন আশিস তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে থাকে। উল্লেখ্য, গত ১০ ফেব্রুয়ারি এলাহাবাদ হাইকোর্ট থেকে জামিন পান আশিস। আর এরপরেই পুলিশ এবং সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে থাকে।

যদিও সেখানখান মানুষ অভিযুক্তের জামিন পাওয়ার পরেই শেষ দেখে ছাড়ার হুঁশিয়ারি দেন। মৃতের পরিবারের স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, জামিন পেলেই লড়াই শেষ হয়ে যায়নি। অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে যত দূর যাওয়ার প্রয়োজন তাঁরা যাবেন বলেও হুঁশিয়ারি শোনা যায়। লড়াই জারি থাকবে বলেও দাবি উঠতে থাকে। আর এই অবস্থায় আজ সোমবার জামিন খারিজের দাবিতে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে দ্বারস্থ পরিবার।

বলে রাখা প্রয়োজন কৃষি আইন নিয়ে লখিমপুর খেরিতে আন্দোলনে নামেন কৃষকরা। সেখানে হঠাৎই পৌঁছে যান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্র এবং তাঁর ছেলে আশিস মিশ্র। মন্ত্রী সেখানে যেতেই উত্তেজনা বেড়ে যায় বলে অভিযোগ। অভিযোগ কৃষকরা তাঁদের প্রায় ঘিরে ধরে ফেলে।

আর তাঁদের হাত থেকে বাঁচতেই নাকি ওই সময় দ্রুত গতিতে গাড়ি চালিয়ে বেরতে চান মন্ত্রী এবং তাঁর ছেলে। আর সেই সময়ে মন্ত্রীর ছেলের গাড়ির ধাক্কা ৮ জনের মৃত্যু হয়। আর এই ঘটনার পরেই অগ্নিগর্ভ হয় পরিস্থিতি। তারপরেই সেখান থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন আশিস মিশ্র। দীর্ঘদিন তাঁকে গ্রেফতার করেনি উত্তর প্রদেশ পুলিশ। তদন্তে সিট গঠনের পর ২০২১ সালের ৯ অক্টোবর গ্রেফতার করা হয় আশিস মিশ্রকে।

English summary
Family of Lakhimpur Kheri victim challenges Union Minister's son in Supreme Court
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X